Dhaka, Sat, 5 Sep 2015, 5:04 am | লগ-ইন করুন | নিবন্ধন করুন   | English News   |   Search

ইন্টেলের নতুন প্রসেসরের তথ্য ফাঁস

Md. Ehsanul Haque's picture
Submitted by Md. Ehsanul Haque on Mon, 17/02/2014 - 5:01pm

একটা সময় ছিল যখন কিনা একটি কম্পিউটারে ছিল মাত্র ৫ মেগাবাইট র‍্যাম কিন্তু সময় বদলিয়েছে। এখন একটি সিপিউ এর ক্যাশ মেমোরিই ৫ মেগাবাইটের চেয়ে বেশি পাওয়া যায় এবং র‍্যাম কোন কোন মাদারবোর্ডে ৬৪ গিগাবাইট পর্যন্ত সমর্থন করে থাকে। সার্ভারের ক্ষেত্রে এটি হতে পারে আরও বেশি।

ইন্টেলের ‘আইভি-টাউন’ হল সেই সিপিউ সিরিজ যা কিনা এত উচ্চমানের ক্ষমতাসম্পন্ন প্রসেসর প্রদান করতে সক্ষম। অবশ্য প্রসেসরটি এখনও বাজারে উন্মুক্ত করা হয়নি, তবে আশা করা যাচ্ছে এটি খুব শীঘ্রই উন্মুক্ত করা হবে।

ইন্টেলের এই প্রসেসরের মডেল হল ক্সিওন ই৭-৮৮০০ভি২, যা কিনা মূলত প্রস্তুত করা হয়েছে ব্যবসায়িক কাজে ব্যবহৃত সার্ভার এবং বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের ওয়ার্কস্টেশনের জন্যে। প্রসেসরটি মূলত ১৫ কোর বিশিষ্ট অর্থাৎ ইন্টেলের হাইপার থ্রেড প্রযুক্তির মাধ্যমে এটি ৩০ টি থ্রেড হিসেবে কাজ করবে। এছাড়া প্রসেসরটিতে আছে ৩৫.৭ মেগাবাইট ক্যাশ মেমোরি এবং সাথে আরও আছে একটি উচ্চমানের ইনপুট/আউটপুট ইন্টারফেস।

এতে আছে ৪০টি পিসিআই এক্সপ্রেস লেন (২.৫/৫.০/৮.০ গিগাবিট প্রতি সেকেন্ড), চারটি ডাইরেক্ট মিডিয়া ইন্টারফেস (ডিএমআই) লেইনস (২.৫/৫.০ গিগাবিট প্রতি সেকেন্ড) এবং ৬০টি কিউপিআই লেইনস (৬.৪/৭.২/৮.০ গিগাবিট প্রতি সেকেন্ড) অন্য সার্ভার এবং সিপিউ এর সাথে যোগাযোগ স্থাপনের জন্যে।

অপরদিকে এর দুটি ডিডিআর৩ মেমোরি কন্ট্রোলারস প্রতিটির আছে দুটি করে মেমোরি চ্যানেল। এর আরও একটি ভাল দিক হচ্ছে প্রসেসরটি একাধিক ক্লকস্পিডে কাজ করতে সক্ষম ১.৪-৩.৮ গিগাহার্জ পর্যন্ত যেখানে ব্যবহৃত শক্তির পরিমাণ হবে ৪০ থেকে ১৫০ ওয়াট। ইন্টেলের এই প্রসেসরটি এ বছরের মাঝ বরাবর বাজারে আনা হবে। এখন এটি বাজারে সত্যিকার অর্থে কেমন প্রভাব ফেলে তা দেখার বিষয়।

বিভাগ: 
টপিক: 
প্রতিষ্ঠান: