বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন লিয়াকত আলী লাকী। ছবি: সংগৃহীত

১৫ জুলাই থেকে শিল্পকলা একাডেমিতে ৩৮০ শিল্পীর প্রদর্শনী

১৯৭৫ সালে সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে নবীনশিল্পী চারুকলা প্রদর্শনী আয়োজন করা হয়।’

সফিউল আলম রাজা
প্রধান প্রতিবেদক
১১ জুলাই ২০১৮, সময় - ২২:১৫


বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন লিয়াকত আলী লাকী। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে আগামী ১৫ জুলাই (রবিবার) থেকে শুরু হতে যাচ্ছে পক্ষকালব্যাপী ‘২১তম নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনী ২০১৮’। 

পক্ষকালব্যাপী এই প্রদর্শনীতে ৩৮০জন শিল্পীর ৪১২টি শিল্পকর্ম প্রদর্শিত হবে।

এ বছর প্রদর্শনীর জন্য ২১ থেকে ৩৫ বছর বয়সী নবীন ৭৮৭জন শিল্পীর ১৯৭৬টি শিল্পকর্ম জমা পড়েছিল। এর মধ্যে থেকে বাছাই কমিটির মাধ্যমে ৩৮০জন শিল্পীর ৪১২টি শিল্পকর্ম প্রদর্শনীর জন্য নির্বাচিত হয়। চিত্রকলা, ছাপচিত্র, ভাস্কর্য, মৃৎশিল্প, কারুশিল্প, স্থাপনা, পারফর্মেন্স এবং নিউ মিডিয়াসহ চারুশিল্পের প্রায় সকল মাধ্যমেই শিল্পকর্ম বিদ্যমান। নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনী ২০১৮ এর শিল্পকর্ম নির্বাচন কমিটিতে ছিলেন শিল্পী আব্দুল মান্নান, শিল্পী তরুণ ঘোষ, শিল্পী বিমানেশ চন্দ্র বিশ্বাস এবং শিল্পী আনিসুজ্জামান। পুরস্কার মনোনয়নের জন্য বিচারক মন্ডলী হিসেবে ছিলেন শিল্পী কে এম এ কাইয়ূম, শিল্পী চন্দ্র শেখর দে এবং শিল্পী সাইদুল হক জুঁইস।

নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীতে নবীন শিল্পী চারুকলা পুরস্কার, চিত্রকলায় শ্রেষ্ঠ পুরস্কার, ভাস্কর্যে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার, ছাপচিত্রে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার এবং চারটি সম্মানসহ পাঁচটি ক্যাটাগরিতে মোট আটটি পুরস্কার প্রদান করা হয়ে থাকে। এবার পূর্বের প্রচলিত রীতি অনুযায়ী পুরস্কারপ্রাপ্ত শিল্পীদের নাম উদ্বোধনী দিনে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করা হবে।

প্রদর্শনী উপলক্ষে বুধবার (১১ জুলাই) বিকাল ৫টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালার সেমিনার কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে মাধ্যমে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী, সিনিয়র ইন্সট্রাক্টর চারুকলা রেজাউল হাশেম ও প্রদ্যুৎ কুমার দাস, সহকারী পরিচালক আফজাল হোসেন, সহকারী পরিচালক চারুকলা এ এম মোস্তাক আহমেদ, সহকারী পরিচালক গ্যালারি শাহীন রেজা রাসেলসহ একাডেমির অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। 

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ১৪ জুলাই (শনিবার) বিকাল ৪টায় একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ এবং বরেণ্য চিত্রশিল্পী চন্দ্র শেখর দে।

প্রদর্শনী বিষয়ে ‘নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনী’র বিস্তারিত তুলে ধরে লিয়াকত আলী লাকী বলেন, ‘শিল্প সংস্কৃতি ঋদ্ধ সৃজনশীল মানবিক বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে ১৯৭৪ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি প্রতিষ্ঠা করা হয়। ‘বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি’ বাংলাদেশের শিল্প সংস্কৃতি বিকাশের একমাত্র জাতীয় প্রতিষ্ঠান। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির চারুকলা বিভাগ একাডেমির জন্মলগ্ন থেকেই চারুকলা বিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ প্রদর্শনী ও অনুষ্ঠান আয়োজন করে আসছে। দ্বিবার্ষিক এশীয় চারুকলা প্রদর্শনী, জাতীয় চারুকলা প্রদর্শনী, জাতীয় ভস্কর্য্য প্রদর্শনীসহ দুবছর অন্তর নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীর আয়োজন বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। ১৯৭৫ সালে সাল থেকে ধারাবাহিকভাবে নবীনশিল্পী চারুকলা প্রদর্শনী আয়োজন করা হয়।’

লিয়াকত আলী লাকী জানান, ১৯৭৫ সালে প্রথম নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীর আয়োজনে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন, শিল্পী কামরুল হাসান। প্রথম আয়োজনে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার অর্জন করেন শিল্পী চন্দ্র শেখর দে। গুনী এই শিল্পী শিল্পকলা পদক ২০১৭ লাভ করেছেন। ১৯৭৬ সালে দ্বিতীয় নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীতে শ্রেষ্ঠ পুরস্কার অর্জন করেন শিল্পী শহিদ কবির। তিনি আন্তর্জাতিক পর্যায়ের একজন শিল্পী। নবীন শিল্পী চারুকলা প্রদর্শনীতে যে সকল শিল্পী স্বীকৃত ও পুরস্কৃত হয়েছেন, তারাই আজ দেশে এবং বিদেশে আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীতে পুরস্কৃত হচ্ছেন এবং দেশের জন্য সুনাম অর্জন করেছেন।

প্রিয় সংবাদ/আজাদ/কামরুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
ট্রেন্ডিং