ছবি সংগৃহীত

অভিনয়ে কবি মজিদ মাহমুদ

প্রথমবারের মত নাটকে অভিনয় করলেন জনপ্রিয় কবি, প্রাবন্ধিক, গবেষক ও সাংবাদিক মজিদ মাহমুদ। একটি পত্রিকার সম্পাদক চরিত্রে দেখা যাবে তাকে।

priyo.com
লেখক
প্রকাশিত: ০৭ অক্টোবর ২০১৩, ০৯:৪৬ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৮


ছবি সংগৃহীত
প্রথমবারের মত নাটকে অভিনয় করলেন জনপ্রিয় কবি, প্রাবন্ধিক, গবেষক ও সাংবাদিক মজিদ মাহমুদ। একটি পত্রিকার সম্পাদক চরিত্রে দেখা যাবে তাকে। মাহমুদ দিদারের রচনা ও পরিচালনায় নির্মিত নাটকের নাম ‘নারী’। নাটকে সিদ্ধার্থ চরিত্রে অভিনয় করেছেন শহীদুজ্জামান সেলিম। এ ছাড়া আরও আছেন রোকেয়া প্রাচী, সাদিয়া ইসলাম মৌ, সুজাত শিমুল প্রমুখ। নাটকের কাহিনীতে দেখা যাবে- সিদ্ধার্থ একজন বোহেমিয়ান যুবক। হঠাৎ করেই তার ভাগ্য পরিবর্তন হয়ে গেল। প্রচুর মানুষ তার কাছে আসতে থাকল। একটা পুরনো প্রাসাদ টাইপের বাড়িতে তার কিছু লোক নিয়ে রীতিমতো আসর বসিয়ে দিল। একটা সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিল এই লিখে যে, সে একটা বিদ্যা লাভ করেছে। সে মানুষের মন পড়তে পারে। বেশ কয়েক বছর তিব্বতে নির্বাসনে থেকে সে এ বিদ্যা পেয়েছে। মানুষের মধ্যে একটা তোলপাড় শুরু হলো। কৌতূহলী লোকজন তার কিছু কিছু কথায় মিলও পেতে শুরু করল। যারা সন্দেহ করেছিল তাদের সে কিছু ভয়ানক পরিণতির কথা বলে থমকে দেয়। বেশ কিছু রমরমা মজার মজার ঘটনা ঘটতে থাকল চারপাশে। হঠাৎ একদিন সকালে সিদ্ধার্থের কাছে একজন নারী আসে। নারীকে ঘিরে মাইন্ড রিডিং করতে গিয়ে সিদ্ধার্থ একের পর এক রহস্যের ফাঁদে পড়ে। সে যা কিছু ভাবে, ওই নারী তাই বলে দিচ্ছে। ওই নারীর কাছে মানুষের ভীড় বাড়তে থাকে। নারীর কথা বলার কৌশল ও সৌন্দর্যে সিদ্ধার্থ নিজের আসন ও আমল হারাতে থাকল। ওই নারীর জন্য সিদ্ধার্থের ভালোবাসা প্রখর হয়ে ওঠে। সে তার সব বিদ্যা দিয়ে নারীকে পেতে চায়। ওই নারী সিদ্ধার্থকে শর্ত দেয়, তাকে একটা মিথ্যার জগৎ থেকে পরিশুদ্ধ হয়ে তার কাছে আসতে হবে। সিদ্ধার্থ ধ্রুপদী গান শুনল। ধ্যান করল। ওই নারী তাকে একটা পরিপূর্ণ স্বপ্নের মতো জীবনযাপনে জড়িয়ে নিল। নাটকে অভিনয় প্রসঙ্গে মজিদ মাহমুদ বলেন, "নাটকটির কাহিনী আমার কাছে ভালো লেগেছে। এ ছাড়া নাটকের চরিত্রের সঙ্গে আমার ব্যক্তি-চরিত্রের সামঞ্জস্য রয়েছে বলেই এতে আমি অভিনয় করেছি। পরিচালক দিদার অনেক ভালো কাজ করেন। অনেক আগে থেকেই তার সঙ্গে আমার পরিচয়। সবকিছু মিলিয়ে আশা করছি, আগামী ঈদে দর্শক নাটকটি দেখে অনেক আনন্দ পাবেন।" পরিচালক দিদার বলেন, "নাটকটির একটি ছোট্ট চরিত্রে মজিদ ভাই অভিনয় করেছেন। প্রথম হিসেবে তিনি অনেক সাবলীলভাবেই তার চরিত্র ফুটিয়ে তুলেছেন। আগামী ঈদে নাটকটি এনটিভিতে প্রচারিত হবে।" মোহাম্মদ কেরামত আলী বিশ্বাসের দশম পুত্র মজিদ মাহমুদের জন্ম ১৬ এপ্রিল পাবনা জেলায়। পড়াশোনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। বাংলা ভাষা সাহিত্যে প্রথম শ্রেণীতে স্নাতকোত্তর। লেখালেখির হাতেখড়ি শিশুবেলা থেকেই। কবিতা তার নিজস্ব ভুবন হলেও মননশীল গবেষণাকর্মে খ্যাতি রয়েছে। নজরুল ইনসটিটিউট, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের অধীনে তিনি কাজ করেছেন। সাংবাদিকতা তার মূল পেশা হলেও কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার অভিজ্ঞতা রয়েছে। তার প্রথম বই প্রকাশিত হয় ১৯৮৫ সালে। এ যাবৎ প্রকাশিত গ্রন্থসংখ্যা ৩০। উল্লেখযোগ্য বইয়ের মধ্যে মাহফুজা মঙ্গল তার অত্যনম জনপ্রিয়।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
প্রিয় অবসর : ২০ অক্টোবর ২০১৮
প্রিয় ডেস্ক ২০ অক্টোবর ২০১৮
আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ চট্টগ্রামে
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ২০ অক্টোবর ২০১৮
বাংলাদেশি তারকাদের পূজা উদযাপন
তাশফিন ত্রপা ১৯ অক্টোবর ২০১৮
পূজা মণ্ডপে বলিউড তারকারা
তাশফিন ত্রপা ১৯ অক্টোবর ২০১৮
হাতে ফুল, চোখে জল নিয়ে বাচ্চুকে বিদায়
মিঠু হালদার ১৯ অক্টোবর ২০১৮
রঙ্গলাল দেব চৌধুরী আর নেই
ইতি আফরোজ ১৯ অক্টোবর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট