ছবি সংগৃহীত

আড়াই ঘন্টায় রোশনারা আলীর জন্য বারো হাজার পাউন্ড নির্বাচনী তহবিল সংগ্রহ

আজ সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে পূর্ব লন্ডনের দ্য আট্রিয়ামে শুরু হয় লেবার পার্টির বর্তমান এমপি ও আগামী মে মাসের ২০১৫ সালের ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে বেথনাল গ্রিন ও বো আসনের এমপি পদপ্রার্থী রোশনারা আলীর নির্বাচনী তহবিল সংগ্রহের উদ্দেশ্যে লেবার দলের ফান্ড রেইজিং গালা ডিনার।

সেলিম আহমেদ
লেখক
প্রকাশিত: ৩১ অক্টোবর ২০১৪, ১০:৪০ আপডেট: ৩০ মে ২০১৮, ০৮:৩৭
প্রকাশিত: ৩১ অক্টোবর ২০১৪, ১০:৪০ আপডেট: ৩০ মে ২০১৮, ০৮:৩৭


ছবি সংগৃহীত
(প্রিয়.কম, লন্ডন) আজ সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে পূর্ব লন্ডনের দ্য আট্রিয়ামে শুরু হয় লেবার পার্টির বর্তমান এমপি ও আগামী মে মাসের ২০১৫ সালের ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে বেথনাল গ্রিন ও বো আসনের এমপি পদপ্রার্থী রোশনারা আলীর নির্বাচনী তহবিল সংগ্রহের উদ্দেশ্যে লেবার দলের ফান্ড রেইজিং গালা ডিনার। বিশাল আট্রিয়াম হল ভর্তি নারী পুরুষের উপস্থিতিতে শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য ও নির্বাচনী তহবিল, আগামী নির্বাচনের সম্ভাব্যতা, লেবার দলীয় সরকার গঠন, পলিসি ইত্যাদি নিয়ে বেশ মজাদার ও রসাত্মক ভঙ্গিতে উপস্থাপন করেন লেবার দলীয় এমপি, শ্যাডো হোম অফিস টিম শাবানা মাহমুদ এমপি ও কো-আপারেটিভ পার্টি জেনারেল সেক্রেটারি কারিন ক্রিস্টিয়ানসেন। এর পর শাবানা মাহমুদ এমপি ও কারিন অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানান সাবেক কেবিনেট মিনিস্টার ও লেবার দলীয় এমপি ফ্রাঙ্ক ডবসন এমপি ও কাউন্সিলর রাচেল স্যান্ডার্স। ফ্রাঙ্ক ডবসন তার স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতে সকলকে অনুষ্ঠানে স্বাগত জানিয়ে বলেন, এই ফান্ড রেইজিং গালা ডিনার শুধু ব্রিটিশ লেবার পার্টির নয়, বরং এটা বাংলাদেশেরও তথা ব্রিটিশ বাংলাদেশীদের। ফ্রাঙ্ক ডবসন তার দশ মিনিটের বক্তৃতায় রোশনারা আলীর কাজের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, রোশনারা ব্রিটিশ পার্লামেন্টের একজন ক্যারিশম্যাটিক এবং জনপ্রিয় লিডার। তিনি সকলকে রোশনারা আলীকে আবারো জয়যুক্ত করার আহ্বান জানান। একই আহ্বান জানান কাউন্সিলর রাচেল স্যান্ডার্সও। ফ্রাঙ্ক ডবসন এমপির বক্তব্যের পর পরই গালা ডিনারের ফার্স্ট কোর্স স্টার্টার সার্ভ করা হয় প্রত্যেক টেবিলে টেবিলে। এ সময় রোশনারা আলী এমপি, শাবানা মাহমুদ এমপি, জিম ফিটজপ্যাট্রিক এমপি, অ্যালান জনসন এমপি, লেবার দলের মিডিয়া অফিসার সৈয়দ মনসুর উদ্দিন, কাউন্সিলর মতিন, সাবেক কাউন্সিলর আব্দাল আলী তাদেরকে নিয়ে হল রুমের প্রত্যেক টেবিলে টেবিলে গিয়ে অভ্যাগত ও অতিথি এবং আমন্ত্রিতদের সাথে কুশল বিনিময় করেন, সাংবাদিকদের সাথেও কুশলাদি জিজ্ঞেস করেন এবং ছবিও তুলেন। ফার্স্ট কোর্স সার্ভের পর অনুষ্ঠানে কি নোট উপস্থাপন করেন সাবেক ওয়ার্কস এন্ড পেনশন সেক্রেটারি ও বর্তমান লেবার দলীয় এমপি অ্যালান জনসন এমপি। তিনি একজন পোস্টম্যান হিসেবে কর্ম জীবন শুরু করে কেমন করে অধ্যবসায় আর কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে ব্রিটিশ রাজনীতির লাইম লাইটে আসেন, সুন্দর উপমা আর কৌতুকের মাধ্যমে বক্তব্য উপস্থাপনের মধ্য দিয়ে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট ও রাজনীতিতে একজন রোশনারার নানা সাফল্য ও অপরিহার্যতার কথা উল্লেখ করে তাকে পূণঃনির্বাচনের আবেদন জানান। এ সময় তিনি আগামীতে লেবার দল ক্ষমতায় এলে এনএইচএস সহ শিক্ষা খাত ও বেনিফিট পলিসিতে কেমন করে সাধারণ জনগণের কল্যাণের জন্য লেবার দল কাজ করবে, তারও ব্যাখ্যা তুলে ধরেন। অ্যালান জনসন এমপি বলেন, বিগত ৫০ বছরের মধ্যে ৩৫ বছর টোরি পার্টি দেশ শাসন করেছে, তার মধ্যে মাত্র ১৫ বছর লেবার দল শাসিত হয়েছে, যাতে জনগণের কল্যাণে অনেক কর্মসূচীর ফল জনগণ পেয়েছিলেন বলে দাবী করেন। অ্যালান জনসন এমপির বক্তব্যের পর ডিনার সার্ভ করা হয়। কাচ্চি বিরিয়ানি, সাদা রাইস, সব্জি, ডাল, চিকেন, কিং পুড়ন ডিনারের মেন্যুতে সবই ছিলো। সুস্বাদু খাবারের প্রশংসা সকলেই করেছেন। ডিনারের পর পরই অনুষ্ঠিত হয় অকশন। লোকাল চিত্র শিল্পীদের আকা চিত্র, হাউস অব কমন্সের মনোগ্রাম সম্বলিত ঐতিহাসিক টি সেট, গ্লাস সেট, টি পার্টি উইথ শাবানা মাহমুদ এমপি, টি পার্টি উইথ রোশনারা আলী এমপি, অ্যালান জনসন এমপি, দুর্লভ এক পেইন্টিং, হাউস অব কমন্স সিল্ক টাই, ইসলামিক পেইন্টিং, মালয়েশিয়া থেকে আগত ইসলামিক ক্যালিগ্রাফি পেইন্ট, হাউস অব কমন্স কফলিঙ্ক ইত্যাদি অকশনে ডাকা হয়। আর অকশন ডাকেন লেবার দলীয় মি. পিটার। অকশন ডাকার পূর্বে তিনি তার বক্তব্যে বলেন, আমি একজন ব্ল্যাক প্রেসিডেন্টের কথা বলছি, আমেরিকার জনগণ একজন ব্ল্যাক প্রেসিডেন্ট পেয়েছেন, আমি বারাক ওবামাকে দেখেছি। কিন্তু ব্রিটেনের জনগণ ব্ল্যাক প্রেসিডেন্ট পাওয়ার সম্ভাবনা ও সুযোগ নেই। তবে ব্রিটিশ জনগণ একজন ব্ল্যাক প্রধানমন্ত্রী ডাউনিং ষ্ট্রীটে পাবেন অদূর ভবিষ্যতে, যার সম্ভাবনা এখনি দৃশ্যমান হতে শুরু করেছে আর তিনি হলেন রোশনারা আলী। গালা ডিনারের টিকেট ও অকশন থেকে এ সময় ১২,০০০ হাজার পাউন্ড সংগৃহীত হয় বলে অনুষ্ঠানে কারিন ক্রিস্টিয়ানসেন জানান।সন্ধ্যা ৭.৩০টা থেকে শুরু হয়ে রাত ১০.০০ টার মধ্যে এই বারো হাজার পাউন্ড সংগ্রহের রেকর্ড গড়লেন রোশনারা আলীর সম্মানে এই গালা ডিনারের পার্টির আয়োজকেরা। ডিনারের পর পরই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন প্রধান আকর্ষণ রোশনারা আলী। তিনি হাসি মুখে মঞ্চে আরোহণ করে সবাইকে সম্বোধন করেন আসসালামু-আলাইকুম বলে এবং উপস্থিত সকলকে গুড ইভনিং বলার পর পরই জিজ্ঞেস করেন আপনারা সকলে ভালা আছেননি ? রোশনারা আলী স্মিত হেসে তার বক্তব্যে বলেন, আমি আপনাদেরকে একটা জিনিস ক্লিয়ার করতে চাই, আমি শ্যাডো মন্ত্রীর পদ থেকে ইরাক ইস্যুতে পদত্যাগ করেছি, তবে আমি এমপি আছি, এই পদ ছাড়িনি। আপনাদের প্রতিনিধির পদ ছাড়িনি। আবারো আপনাদের প্রতিনিধিত্ব করতে চাই। কারণ আমি আপনাদের কাজ ও সেবা করতে ভালোবাসি। রোশনারা বলেন, আপনারা সকলেই মিলে মিশে আমাকে সাপোর্ট করবেন এবং বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যম আর টেলিফোনে ক্যাম্পেইন করবেন। কারণ টেলিফোন ক্যাম্পেইন একটা শক্তিশালী মাধ্যম। আত্মীয়, বন্ধু, কলিগ সকলের সাথে আলাপ আলোচনা করবেন। এ সময় টেবিলে টেবিলে ডিজার্ট সার্ভ করা হয়। রোশনারা আলী সব শেষে সকলের সাপোর্ট আর সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানান। একই সাথে সিলেটী বাংলা ভাষায় তিনি স্কটিশ ল্যাঙ্গুয়েজের সাথে একটা তুলনামূলক চিত্র কাব্যিক আকারে তুলে ধরে বলেন, আপনারা সকলে মিলে আনার জন্য কাজ করবেন, যাতে আমরা আগামীতে পাশ করতে পারি এবং আগামীর সরকার লেবার দলের সরকার হয়। অনুষ্ঠানের সমাপনী বক্তব্য দেন সাবেক মন্ত্রী, হুইপ জিম ফিজটস প্যাট্রিক এমপি। গালা ডিনারে লন্ডনের স্থানীয় বাংলা সাপ্তাহিকগুলোর বেশ কয়েকজন সম্পাদক, সাংবাদিক, লন্ডন রিপোর্টার্স ইউনিটি, বাংলা চ্যানেলগুলোর স্থানীয় প্রতিনিধিবৃন্দ, জিবিনিউজ, বেতার বাংলা, লন্ডন ক্যাটারার্স ইউনিয়ন, সেলেব্রিটি বাংলা শেফ রইস আলী, আওয়ামীলীগ সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক, সাবেক সাংসদ শফিকুর রহমান, যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগ নেতা সৈয়দ সাজিদুর রহমান, আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, স্থানীয় কাউন্সিলর সহ লন্ডনের মেইন মূলধারার লেবার দলীয় রাজনীতিবিদ, সাংসদ, নেতা কর্মী সহ বিভিন্ন বাংলাদেশী সংগঠনের নের্তৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ-লন্ডন থেকে