ছবি সংগৃহীত

চিনে নিন আয়োডিনে ভরপুর ৮ টি সহজলভ্য খাবার

দেহের সুস্থতা, বুদ্ধিমত্তার বিকাশ আর গলগন্ড রোগ প্রতিরোধে আয়োডিন একটি বিশেষ উপকারী খাদ্য উপাদান। আমরা অনেকেই কিন্তু জানি না আমাদের দৈনন্দিন অনেক খাবারই কিন্তু আয়োডিনের দারুন উৎস। চিনে নিন আয়োডিনে ভরপুর ৮ টি সহজলভ্য খাবার।

Uurmy Rubina
লেখক
প্রকাশিত: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, ০৩:১৫ আপডেট: ১১ মে ২০১৮, ২২:৩৮
প্রকাশিত: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৫, ০৩:১৫ আপডেট: ১১ মে ২০১৮, ২২:৩৮


ছবি সংগৃহীত
(প্রিয়.কম) “যদি সুস্থ থাকতে চান, আয়োডিন যুক্ত লবন খান”। দেহের সুস্থতা, বুদ্ধিমত্তার বিকাশ আর গলগন্ড রোগ প্রতিরোধে আয়োডিন একটি বিশেষ উপকারী খাদ্য উপাদান। বিশেষত বাড়ন্ত শিশু ও গর্ভবতী মায়েদের জন্যে আয়োডিনের প্রয়োজনীয়তা বলার অপেক্ষা রাখে না। খাবার লবনে আয়োডিন আছে কিনা এটা পরীক্ষা করাটাও কিন্তু বেশ সহজ। কয়েক দানা ভাতের সাথে খানিকটা লবন আর লেবুর রস মিশিয়ে ভালো করে মাখালে যদি তা বেগুনী রঙ ধারণ করে তবে বুঝতে হবে এতে আয়োডিন আছে। রঙ না হলে বোঝা যাবে এতে আয়োডিন নেই। কিন্তু প্রশ্ন হলো খাবার লবনে আয়োডীন আছে কি নেই সেটা পরীক্ষা করার বদলে আয়োডিনে পূর্ণ খাবারগুলো খেলেই তো হয়। আমরা অনেকেই কিন্তু জানি না আমাদের দৈনন্দিন অনেক খাবারই কিন্তু আয়োডিনের দারুন উৎস। তাই জেনে নিন আয়োডিনে ভরপুর ৮ টি সহজলভ্য খাবারের নামঃ

১। দুধঃ

দুধে কমবেশী প্রায় সকল পুষ্টি উপাদানই বিদ্যমান। কিন্তু এতে যে আয়োডিনও আছে তা হয়তো আপনি আগে জানতেন না। শরীরের জন্যে অতি দরকারী ক্যালসিয়াম আর ভিটামিন ডি’র পাশাপাশি এক কাপ পরিমাণ দুধে থাকে ৫৬ মাইক্রোগ্রাম আয়োডিন।

২।চিংড়িঃ

সামুদ্রিক মাছ সাধারণত আয়োডিনের ভালো উৎস। প্রোটিন ও ক্যালসিয়ামের পাশাপাশি এই সুস্বাদু খাবারে আছে আয়োডিন। ৩ আউন্স পরিমাণ চিংড়িতে ৩৫ মাইক্রোগ্রাম পর্যন্ত আয়োডিন পেতে পারেন আপনি।

৩।টুনা মাছঃ

বাজারে এই মাছটি ক্যানে বা এমনিতেই পাওয়া যায়। এম্নিতে মাছটি রান্না করে খেতে পারেন। তবে ক্যানে থাকা টুনা মাছে আয়োডিনের পরিমাণ বেশী থাকে। ৩ আউন্স ওজনের ১ ক্যান টুনা মাছে প্রোটিন, ভিটামিন ডি ও আয়রন ছাড়াও প্রায় ১৭ আউন্স পর্যন্ত আয়োডিন থাকে।

৪।সেদ্ধ ডিমঃ

সেদ্ধ ডিম তো কতভাবেই খাওয়া যায়। তরকারী, স্যান্ডুইচ, সালাদ বা এমনি এমনিই!আপনি কি জানেন একটি সেদ্ধ ডিমে ভিটামিন এ, ভিতামিন ডি, জিঙ্ক, ক্যালসিয়াম, এন্টিওক্সিডেন্ট ছাড়াও ১২ মাইক্রোগ্রাম পরিমাণ আয়োডিন থাকে!

৫। টকদইঃ

এক কাপ টকদই আপনার প্রতিদিনের আয়োডিন চাহিদার প্রায় ৫৮ শতাংশ পূরণ করে। এই দারুণ সুস্বাদু আর পুষ্টিকর খাবারটিতে প্রচুর প্রোটিন আর ক্যালসিয়ামের পাশাপাশি মাত্র ১ কাপ টকদইয়ে থাকে ১৫৪ মাইক্রোগ্রাম আয়োডিন!

৬। কলাঃ

কলা খেতে যেমন ভালো, দামে সস্তা আর সারাবছরই পাওয়া যায়। সেই সাথে পুষ্টিগুণেও অনন্য। প্রচুর পটাশিয়ামের পাশাপাশি প্রতিটি কলায় আপনি পাচ্ছেন ৩ মাইক্রগ্রাম পরিমাণ আয়োডিন।

৭। স্ট্রবেরীঃ

স্ট্রবেরী ফলটি দেখতে যেমন সুন্দর, খেতেও ভারি সুস্বাদু। আর সেই সাথে প্রচুর ভিটামিন আর মিনারেলের পাশাপাশি ১ কাপ পরিমাণ স্ট্রবেরিতে রয়েছে ১৩ মাইক্রোগ্রাম আয়োডিন।

৮।ভুট্টাঃ

ভুট্টা তো আজকাল নানা ভাবেই আমরা শহুরে জীবনে খেয়ে থাকি। পুড়িয়ে, স্যুপের সাথে, পপকর্ন অথবা সালাদের সাথে। অথচ আপনি কি জানেন মাত্র আধা কাপ ভুট্টা থেকে আপনি পেতে পারেন ১৪ মাইক্রোগ্রাম পরিমাণ আয়োডিন? তাহলে এখন থেকে আর শুধুমাত্র আয়োডিনযুক্ত লবনের উপরই নির্ভরতা নয়। বরং খাদ্যতালিকায় রাখুন এই খাবারগুলোও। সুস্থ থাকুন! সূত্রঃ bembu.com