ছবি সংগৃহীত

ছেলেদের জন্য কোন মুখে কেমন হেয়ারকাট?

পুরুষের সৌন্দর্যের জন্য সবচাইতে জরুরী হেয়ার কাট বা চুলের স্টাইল। এমনকি মেয়েদের চাইতেও! মেয়েরা চুলে নানান রকম ডিজাইন করে হেয়ার কাটের ত্রুটি ঢেকে ফেলতে পারেন, কিন্তু পুরুষদের ক্ষেত্রে সেটা সম্ভব না একেবারেই। তাই হেয়ার কাট দিতে হবে সঠিক, নিজের চেহারার সাথে মিলিয়ে। তাহলে কোন ধরণের মুখে মানাবে কেমন হেয়ার কাট? আসুন, জেনে নেই।

প্রিয় লাইফ
লেখক
প্রকাশিত: ২৩ মার্চ ২০১৪, ০৪:১১ আপডেট: ২৯ মার্চ ২০১৮, ০৫:০৮
প্রকাশিত: ২৩ মার্চ ২০১৪, ০৪:১১ আপডেট: ২৯ মার্চ ২০১৮, ০৫:০৮


ছবি সংগৃহীত
চুল কাটা নিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে ভোগেন প্রায় সবাই। কীভাবে কাটলে মানানসই হবে, কোন কাট বা স্টাইলটি দিলে ভালো দেখাবে তা নিয়ে চিন্তা অনেকেরই। কারণ চুল কেটে ফেলার পর ভালো না লাগলে তা বদলে ফেলার উপায় থাকে না। নতুন ভাবে চুল লম্বা না হলে হেয়ার কাট বদলানো যায় না। আসলেই সঠিক হেয়ার কাট নির্বাচন রূপ ও ফ্যাশন সচেতন যে কারো জন্য অনেক বেশি চিন্তার বিষয়। সাধারণত মুখের আকার জানা থাকলে তার সাথে মিলিয়ে হেয়ার কাট দিলে সুবিধা হয়। কারণ একেক আকৃতির মুখে একেক ধরণের হেয়ার কাট মানায়। আপনাকে শুধু জেনে নিতে হবে আপনার মুখের আকার কোন ধরণের এবং কোন হেয়ার কাটে আপনাকে মানাবে। তাহলে দেখে নিন কোন আকৃতির মুখের জন্য কোন হেয়ার কাট সবচেয়ে বেশি মানান সই।

ডিম্বাকৃতি মুখের জন্য

ডিম্বাকৃতি মুখ যে কোনো হেয়ার কাটের জন্য বেশ উপযোগী। এই আকৃতির মুখের সাথে প্রায় সব ধরণের হেয়ার কাট মানিয়ে যায়। এই আকৃতির মুখের ছেলেরা বেশ ভাগ্যবান। কারণ তাদের হেয়ার কাট নিয়ে বেশি চিন্তা করার প্রয়োজন হয় না। আপনি ইচ্ছে হলে চুল সামান্য বড় করে চুল এক পাশ করে আঁচড়াতে পারেন কিংবা চুলে দিতে পারেন স্পাইক কাট অথবা চুল ছোট ছোট করে আর্মি ছাট দিলেও মানিয়ে যাবে। কিংবা সাইড ব্যাঙস দিতে পারেন। তবে সামনে চুল বড় করে কপাল ঢাকা কোন হেয়ারকাট দেবেন না। অন্য যে কোন একটি স্টাইল করে দেখুন নিজেকে অনেক বেশ স্টাইলিশ মনে হবে।

গোলাকৃতি মুখের জন্য

গোলাকৃতি মুখের ছেলেদের সব হেয়ার কাটে মানায় না। বিশেষ করে বড় চুল এবং যে কাটে চুল কানের পর পর্যন্ত পরে সেসব হেয়ারকাটে মুখ আরও বেশি গোলাকার দেখায় ও মোটা লাগে। গোলাকৃতি মুখের জন্য দরকার এমন কাট যা মুখের আকৃতি একটু লম্বাটে করে। আর এর জন্য ছোট চুলের হেয়ারকাট দিতে পারেন। স্পাইক করতে পারেন অথবা সামনের চুলের উচ্চতা বাড়িয়ে তোলে এমন কোন কাট দিন। এতে মুখের দুই পাশের অংশ কম ফোলা লাগে দেখতে।

লম্বাটে মুখের জন্য

লম্বাটে মুখ তুলনামূলক ভাবে একটু শুকনো দেখায়। সেজন্য হেয়ার কাটটি এমন হতে হয় যাতে করে মুখ কিছুটা ভারী লাগে। লম্বাটে মুখের জন্য লম্বা চুল বা স্ট্রেইট ধরণের হেয়ার কাট একদমই ভালো লাগে না। লম্বাটে মুখের সাথে লেয়ার ধরণের হেয়ারকাট বেশ ভালো মানায়। এতে মুখের ওপরের অংশ ভারী দেখায় এবং মুখ একটু কম লম্বা দেখাবে। এছাড়া লম্বাটে মুখে সামনের চুল বড় করে ব্যাক ব্রাশ হেয়ার অনেক ভালো মানায়। এমন হেয়ার কাট দিন যাতে সামনের চুল বড় থাকে এবং দু পাশের চুল ছোট থাকে। এতে মুখের লম্বাটে ভাব দূর হবে।

হার্ট আকৃতির মুখের জন্য

হার্ট আকৃতির মুখ অনেক স্টাইলিশ হয়। তবে আপনার সামান্য একটু খেয়াল করে চুল কাটা আপনার মুখের গ্ল্যামার বাড়াবে। হার্ট আকৃতির জন্য মুখের দুপাশে চুল থাকে এমন কাট নির্বাচন করুন। কারন এতে করে মুখের চওড়া হাড় ঢেকে যাবে। দেখতে ভালো লাগবে। লম্বা চুলের কাট হার্ট আকৃতির মুখের জন্য মানানসই। হার্ট আকৃতির মুখের ছেলেরা ভুলেও ব্যাক ব্রাশ করতে যাবেন না। এতে মুখের ওপরটা বেশ চওড়া দেখাবে।

চারকোণা মুখের জন্য

চারকোণা আকৃতির মুখের ছেলেদের গোলাকৃতি মুখের ছেলেদের মতই হেয়ার কাট দিতে হবে। চারকোণা মুখের আকৃতির ছেলেদের চোয়াল অনেক চওড়া হয়। তাই চুলের আউটলাইন চওড়া চোয়ালের সাথে মিলিয়ে দিতে হবে। লেয়ার কাট দিতে পারেন। অথবা গোলাকৃতি মুখের মত স্পাইক করতে পারেন অথবা সামনের চুলের উচ্চতা বাড়িয়ে তোলে এমন কোন কাট দিন। এতে মুখের দুপাশের চওড়া ভাব অনেকটা কমে আসবে।

ডায়মন্ড আকৃতি মুখের জন্য

ডায়মন্ড আকৃতির মুখের জন্য হেয়ার কাট নির্বাচন বেশ কঠিন। কারন এই আকৃতির মুখের জন্য খুব লম্বা ধরণের আবার খুব শর্ট ধরণের হেয়ার কাট একদমই মানায় না। একটু বুদ্ধি করে মাঝারি ধরণের কোন কাট নির্বাচন করাই ভালো। সামান্য লম্বা চুলে চোয়ালের দিক ভারী করে এমন হেয়ার কাট দিন। এতে মুখের উপরের দিকের সাথে চোয়ালের ভারসাম্য থাকবে। সামনে চুল আনতে ব্যাঙস কাটুন এবং মুখের দুইপাশেও চুল থাকে এমনভাবে কাট দিন। ইমো কাট ডায়মন্ড আকৃতি মুখের সাথে ভালো মানায়।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...