ছবি সংগৃহীত

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষককে পেটালেন ছাত্রলীগ নেতা মামুন

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের অধ্যাপককে পিটিয়ে আহত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা মামুন খান। বৃহস্পতিবার বিকেলে সমাজ বিজ্ঞান ভবনের নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে।

priyo.com
লেখক
প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০১৪, ১৩:৫২ আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৬:০৬
প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০১৪, ১৩:৫২ আপডেট: ১৭ এপ্রিল ২০১৮, ১৬:০৬


ছবি সংগৃহীত
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের অধ্যাপককে পিটিয়ে আহত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা মামুন খান। বৃহস্পতিবার বিকেলে সমাজ বিজ্ঞান ভবনের নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে। নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক গোলাম মঈনুদ্দীনকে কিল-ঘুষি মারেন ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার গ্রন্থণা ও প্রকাশনা সম্পাদক মামুন খান। প্রত্যক্ষদর্শী সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাজেদুর রহমান বলেন, ভবনের নিচে বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে দেখি হঠাৎ করে পেছন দিক থেকে এসে মামুন খান অধ্যাপক মঈনুদ্দীনকে কিল-ঘুষি মারছে। আহত শিক্ষক মঈনুদ্দিন তাৎক্ষণিকভাবে প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন। ওই সময় তার কপালে ক্ষতচিহ্ন দেখা গেছে। ছাত্রলীগ নেতা মামুন শিক্ষক পেটানোর অভিযোগ অস্বীকার করে সাংবাদিকদের বলেন, আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে অবস্থান করছি, শিক্ষকরা আমাকে নিয়ে অযথা রাজনীতি করছেন। ন্যূনতম যোগ্যতা না থাকায় মাস্টার্সের দ্বিতীয় সেমিস্টারের পরীক্ষায় অংশ নিতে না পেরে গত বছরের সেপ্টেম্বরে পরীক্ষার দিন বিভাগে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছিলেন মামুন। তখন কয়েকজন শিক্ষার্থীর প্রবেশপত্র ছিনিয়েও নিয়েছিলেন তিনি। প্রক্টর অধ্যাপক মুজিবুর রহমান বলেন, শিক্ষকের ওপর হামলার বিষয়ে রাতে শৃঙ্খলা কমিটি বৈঠকে বসবে। দ্রুত ব্যবস্থা নিতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ আমরা। মারধরের ঘটনা শুনে শিক্ষক সমিতির সভাপতি অজিত কুমার মজুমদারের নেতৃত্বে শতাধিক শিক্ষক সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের সামনে জড়ো হয়ে প্রতিবাদ জানান। তিনি বলেন, এসব অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার জন্য অধ্যাপক আনোয়ারের দীর্ঘ দিনের অপশাসন দায়ী, অনিয়মের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলব আমরা। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুর রহমান তার কমিটির প্রকাশনা সম্পাদকের বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষীয় ব্যবস্থা মেনে নেবেন বলে জানিয়েছেন।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

ভোট শেষে চলছে গণনা

প্রিয় ১৮ ঘণ্টা, ৪৩ মিনিট আগে

‘আমরা জয়ী হবই’

প্রিয় ১ দিন, ২০ ঘণ্টা আগে

loading ...