সম্প্রতি মাইক্রোসফট আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করেছে কি হতে যাচ্ছে তাদের উইন্ডোজ এর পরবর্তি ভার্শন। অনেকেই ধারনা করেছিল এটা হতে পারে উইন্ডোজ ৯ অথবা উইন্ডোজ অন অথবা শুধুই “উইন্ডোজ”। কিন্তু পরবর্তিতে দেখা গেল তারা তাদের এই ভার্শনের নাম দিয়েছে উইন্ডোজ ১০। মাইক্রোসফট বুঝতে পেরেছিল ডেক্সটপ ব্যবহারকারীরা উইন্ডোজ ৮ নিয়ে সন্তুষ্ট নন, কারন তারা তাদের চিরাচরিত ডেক্সটপটিকে ফিরে চাচ্ছিল আর এসব কথা মাথায় রেখেই ডেভেলপাররা উইন্ডজের এই ভার্শনটিতে, ডেক্সটপ ব্যবহারের উপরই বেশি নজর দিয়েছে। মাইক্রোসফট উইন্ডোজ এর এই রিলিজের এর লক্ষ্য হচ্ছে সব কিছু এক করে দেওয়া, মানে হল যেকোন ডিভাইসের জন্য অ্যাপ স্টোর এবং প্লাটফর্ম থাকবে মাত্র একটা। আর তাই এখন থেকে, উইন্ডোজ ১০ এর জন্য বানানো অ্যাপ একই সাথে ট্যাবলেট, স্মার্ট ফোন, ল্যাপটপ এবং ডেক্সকটপেও কাজ করবে। (নোটঃ এখানে দেখানো প্রতিটি স্ক্রিন সট নেওয়া হয়েছে মাইক্রসফট এর অ্যানাউন্সমেন্ট পোস্ট থেকে এবং সব ফিচারের তালিকা গুলোও সেখান থেকেই নেয়া। আপনিও ইচ্ছে করলে উইন্ডোজ ১০ এর টেক প্রিভিউ ভার্সনটি ইনস্টল করে নিতে পারেন আপনার কম্পিউটারে।) তো চলুন আর দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক কি কি থাকছে উইন্ডোজের এই চমকপ্রদ ভার্শনটিতেঃ

ফিরে আসল স্টার্ট মেনুঃ

খুব সম্ভবত উইন্ডোজ ১০ এর ক্ষেত্রে এ পর্যন্ত সবথেকে গুরুত্তপুর্ণ জিনিস হচ্ছে স্টার্ট মেনুর প্রত্যাবর্তন। হ্যা, এখন থেকে আপনি আপনার সব মেট্রো টাইল গুলোকে নতুন যুক্ত হওয়া স্টার্ট মেনুতেই পিন করে রাখতে পারবেন। শুধু তাই নয়, ইচ্ছে মত কাস্টমাইজ ও রিসাইজ করতে পারবেন। aa

মেট্রো/মডার্ন/ইউনিভার্সাল/উইন্ডোজ-স্টোর-অ্যাপ উইন্ডোঃ

উইন্ডজ ১০ এর মাধ্যমে এখন থেকে মেট্রো স্টাইল অ্যাপ গুলো ডেক্সটপে অন্যান্য অ্যাপ গুলোর মতই নিজস্ব আলাদা উইন্ডোতে রান হবে। ট্যাবলেট অথবা ফোন এর ক্ষেত্রে অ্যাপ গুলো ফুল স্ক্রিনেই রান হবে কিন্তু ডেক্সটপ অথবা ল্যাপটপ এর ক্ষেত্রে এরা অন্যান্য রেগুলার অ্যাপ এর মত আলাদা উইন্ডতে রান হবে। aa এর মানে হচ্ছে আপনি এদের কে টাইল করতে পারবেন, অ্যাপ গুলোর মধ্যে সুইচ করতে পারবেন যেমনটি আপনি আশা করবেন। ধারনা করা হচ্ছে শেষ পর্যন্ত এদের কে ব্যবহারও করা যাবে এবং আশা করা যায় ডেভেলপাররা আগের মত শুধু মাত্র টাচ ডিভাইসের জন্য অ্যাপ না বানিয়ে বরং ডেক্সটপে ব্যবহার উপযোগী অ্যাপ ও তৈরি করবে।

ইজি এক্সেস বাটনের সাথে নতুন টাস্ক সুইচারঃ

অ্যাপলিকেশন গুলোর মধ্যে দ্রুত সুইচ করার জন্য টাস্কবার এ যুক্ত করা হয়েছে টাস্ক সুইচার ভিউ বাটনটি। এর মাধ্যমে এখন থেকে খুব সহজেই মাল্টিটাস্ক করা যাবে বিভিন্ন অ্যাপলিকেশন গুলোর মধ্যে । aa

ভার্চুয়াল ডেক্সটপঃ

টাস্ক সুইচার বাটন এর মাধ্যমে আরও একটা নতুন সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে যা কিনা অনেক কাল আগে থেকেই আমরা থার্ড পার্টি সফটওয়্যার দিয়ে ব্যবহার করে আসছিলাম। আর তা হল ভার্চুয়াল ডেক্সটপ। এর মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন কাজ করার জন্য আলাদা আলাদা ডেক্সটপ ব্যবহার করতে পারেন। যেমনঃ ওয়েব ব্রাউজ করার জন্য একটি ডেক্সটপ আবার লেখা লেখি করার জন্য অন্য আরেকটি ডেক্সটপ, যদি আপনি আপনার লেখালেখির মধ্যে কোন ইন্টার ফেয়ার না চান। aa আরও ফিচার সম্পর্কে জানতে চাইলে দেখে নিতে পারেন মাইক্রসফট এর করা উইন্ডজ ১০ এর অ্যানাউন্সিং ভিডিও টিঃ

অন্যান্য সব খুঁটিনাটিঃ

উইন্ডজ ১০ সম্পর্কে এখন পর্যন্ত আমরা আরও জা জানতে পেরেছি তাহলঃ ১. উইন্ডজের ফাইনাল ভার্শনটি ২০১৫ সালের মাঝামাঝির আট পর্যন্ত রিলিজ হচ্ছে না। ২. কমান্ড-প্রোমট কে আরও আপডেট করা হয়েছে এখন CTRL + V চেপেই আপনি যেকোন কিছু পেস্ট করতে পারবেন কমান্ড-প্রোমট এ। এটাতো ছিল শুধু মাত্র সময়ের ব্যাপার। ৩. ডেক্সটপ ব্যবহারকারীদের জন্য চার্মবারটি আর থেকছে না, যদিও প্রিভিউ ভার্সনে এটি থাকতেও পারে। ৪. আর আমরা এখনো জানতে পারি নাই, কেন এটার নাম উইন্ডোজ ৯ না হয়ে উইন্ডোজ ১০ হল।

যদি এখনই উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করতে চানঃ

আপনি যদি এখনই উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনাকে উইন্ডোজ ইনসাইডার প্রোগ্রামের মাধ্যমে তাদের টেকনিক্যাল প্রিভিউ ভার্শনটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন এই লিঙ্কটি থেকেঃ http://preview.windows.com আর ইন্সটল করা আগের অন্যান্য ভার্শনের উইন্ডোজ এর মতই। একটা জিনিষ যেটা আমরা আপনাকে বলতে পারি তা হল উইন্ডোজ এর এই ভার্শনটি আপনার রেগুলার কম্পিউটারে ইন্সটল না করাটাই ভাল, যেহেতু এটা একটা প্রিভিউ। ধন্যবাদ।