ছবি সংগৃহীত

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১১ হাজার ফুট উপরে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির শুটিং

এবার সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১১ হাজার ফুট উপরে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির শুটিং হয়েছে। আর এ জায়গাটি বান্দরবানের নীলাচলের পাদদেশ নামে পরিচিত। আর সেখানে পৌঁছানোর জন্য তিন থেকে চার হাজার ফুট উপরে হেঁটে উঠতে হয়।

mithu haldar
লেখক
প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬, ১৬:৪২
আপডেট: ১১ মে ২০১৮, ২৩:১৫


ছবি সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত।

(প্রিয়.কম) ছবির গল্পের প্রয়োজনে বিভিন্ন লোকেশনে শুটিং হয়ে থাকে। এবার সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১১ হাজার ফুট উপরে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির শুটিং হয়েছে। আর এ জায়গাটি বান্দরবানের নীলাচলের পাদদেশ নামে পরিচিত। আর সেখানে পৌঁছানোর জন্য তিন থেকে চার হাজার ফুট উপরে হেঁটে উঠতে হয়। এদিকে ছবির শুটিং বান্দরবানের গোদারপাড় ছাড়াও বিভিন্ন লোকেশনে হচ্ছে। আগামী ২০ তারিখ পর্যন্ত শুটিং চলবে।

শুটিং সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, সাধারণ মানুষ বান্দরবানের যেসব জায়গায় প্রবেশ করতে পারেন না, সেখানে ছবির গল্পের প্রয়োজনে সেসব জায়গায় শুটিং হচ্ছে। আর অপরাধী চক্রের লোকজন সাধারণভাবেই মসৃণ পথ দিয়ে হেঁটে যাবে না। ফলে এ জায়গাগুলোকে বেছে নেওয়া। আর এখানকার লোকজন সাধারণ এলাকার মানুষের সাথে গিয়ে মিশেন না। শুটিং সংশ্লিষ্ট একজন বলেন, ‘গতকাল সেখানে স্থানীয় লোকের সাথে কথা হচ্ছিল। তিনি জানিয়েছেন, সাধারণ মানুষের সাথে মিশি না। কারণ আমাদের চেহারা দেখতে সুন্দর নয়’।

এদিকে মাহিয়া মাহি এ ছবির শুটিং শুরুর সময় থেকেই বেশ উচ্ছ্বসিত ছিলেন। এবার তার কথায় যেন উচ্ছ্বাসের মাত্রা আরও বেশি লক্ষ্য করা গেল। তিনি জানালেন, ‘আমরা যখন আউটডোরে শুটিংয়ের জন্য যাই তখন আমাদের খুব সকাল যেমন ভোর পাঁচটায় ঘুম থেকে উঠতে হয়। এ ছবির শুটিং শেষ করে ঘুমাই ভোর ছয়টায় আর উঠি বারোটায় একটায়। দুপুরে মেকআপ নিয়ে স্পটে যাই। এরপর খেয়ে গাড়িতে ঘুম দিই। এরপর যখন উঠে দেখি সূর্য মোটামুটি নেই। তখন দুটি শট দেই। এরপর আবার হোটেলে ফিরে যাই। আমি আসলে বুঝতে পারছি না। শুটিংয়ে আছি নাকি পিকনিকে আছি’।

তিনি আরও বলেন, ‘আর আমাদের যেখানে শুটিং হচ্ছে সেখানে সাধারণত মানুষ আসে না। এখানে নিরাপত্তা নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। আমাদের সাথে যারা অভিনয় করছে তারাও পুলিশের সদস্য। সেখানে বোমা বিশেষজ্ঞ দলের সদস্য, সোয়াট টিম। এখানে শুটিং করতে এসে আসলে ভয় লাগার যে বিষয় সেটি হলো সাপ নিয়ে। পোকামাকড় নিয়ে আসলে টেনশনে আছি। বিশেষ করে সাপের ভয়। বান্দরবানে এসে দেখেছি মানুষ সাপ মারছে। কিন্তু আমার সামনে যদি জীবিত সাপ পরে যায়। তাহলে আমি শুটিং ছেড়ে পালাব’।

চৈতি নামের একজন সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করছেন মাহিয়া মাহি। আর তার বিপরীতে অভিনয় করছেন আরিফিন শুভ। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিটির গল্প লিখেছেন সানি সানোয়ার। পরিচালনা করছেন দীপংকর দীপন। পুলিশ পরিবার কল্যাণ সমিতি লিমিটেডের নিবেদনে ছবির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান থ্রি হুইলারস লিমিটেড। প্রযোজনা করছে স্প্ল্যাশ মাল্টিমিডিয়া। ছবিতে আরিফিন শুভ ও মাহি ছাড়াও এবিএম সুমন, নওশাবা ও শতাব্দী ওয়াদুদ অভিনয় করছেন।

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
বৃদ্ধাশ্রমের আনন্দের ভাগীদার পাপী মনা
তাশফিন ত্রপা ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
ভালো মানুষ হয়ে, ভালো নির্মাতা হতে চাই : ইউসুফ
তাশফিন ত্রপা ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
প্রিয় অবসর: ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
প্রিয় ডেস্ক ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
দেশে ফিরেছেন ‘মিস বাংলাদেশ’ ঐশী
তাশফিন ত্রপা ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
বিজয় দিবসের গানে আবদুল হাদী
নিজস্ব প্রতিবেদক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
ঢাকা-৯ : সরব নৌকা, মাঠে নেই ধানের শীষ
ঢাকা-৯ : সরব নৌকা, মাঠে নেই ধানের শীষ
জাগো নিউজ ২৪ - ১৮ ঘণ্টা আগে
১৩ ডিসেম্বর: আজকের ঢাকা
১৩ ডিসেম্বর: আজকের ঢাকা
যুগান্তর - ২১ ঘণ্টা আগে
ঢাকা-৫ আসনে আ’লীগ প্রার্থীর সমর্থনে মিছিল
ঢাকা-৫ আসনে আ’লীগ প্রার্থীর সমর্থনে মিছিল
নয়া দিগন্ত - ১ দিন, ৫ ঘণ্টা আগে