উখিয়ায় নৌকা বোঝাই ১২৫ রোহিঙ্গা উদ্ধার, মাঝি আটক

প্রাণহানি ঠেকাতে নৌকায় রোহিঙ্গাদের বহনে নিষেধাজ্ঞা আরোপসহ বেশ কিছু নৌকার মাঝি, মালিক, দালালসহ ৪৫২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

আবু আজাদ
সহ-সম্পাদক
১০ নভেম্বর ২০১৭, সময় - ২০:১৮

নৌকায় চড়ে নাফ নদী পাড়ি দিচ্ছেন রোহিঙ্গারা। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার উপকূলীয় এলাকা থেকে ১২৫ জন রোহিঙ্গা শরনার্থীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রোহিঙ্গা বহনের অভিযোগে মাঝিকে আটক ও নৌকাটিকে জব্দ করা হয়েছে। ১০ নভেম্বর শুক্রবার বেলা দুইটা দিকে উপজেলার জালিয়াপালং ইউনিয়নের ইমামের ডেইল সমুদ্র সৈকতে এ ঘটনা ঘটে।  

আটক মাঝির নাম আবদুল মাজেদ (৩৭)। তিনি ওই ইউনিয়নের সোনারপাড়া গ্রামের এলাকার আবুল শামার ছেলে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল বলেন, শুক্রবার দুপুর দুইটার দিকে রোহিঙ্গা বোঝাই নৌকাটি তীরে ভেড়ে। ওই নৌকা থেকে বিভিন্ন বয়সের ১২৫ জন রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছে। যাদের বেশির ভাগই নারী ও শিশু। অপরদিকে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রোহিঙ্গা বহনের দায়ে নৌকার মাঝিকে আটক করা ছাড়াও নৌকাটিকে জব্দ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, উদ্ধার রোহিঙ্গাদের যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে কুতুপালংয়ে এবং নৌকার মাঝিকে আদালতে হাজির করা হবে।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা নিধন অভিযান শুরু হলে বাংলাদেশে শরনার্থীদের ঢল নামে। দুর্গম পাহাড়ি পথ ছাড়াও উত্তাল নাফ নদী পেরিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে গিয়ে এ পর্যন্ত ২৮টি নৌকা ডুবে দুই শতাধিক মানুষের প্রাণহানি হয়েছে।

অনাকাঙ্খিত এসব প্রাণহানি ঠেকাতে নৌকায় রোহিঙ্গাদের বহনে নিষেধাজ্ঞা আরোপসহ অতিরিক্ত রোহিঙ্গা বোঝাই বেশ কিছু নৌকার মাঝি, মালিক, দালালসহ ৪৫২ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। ফলে নৌকার মাঝি ও মালিকেরা নৌকায় রোহিঙ্গাদের বহন করছেন না। এমতাবস্থায় গত ৮ নভেম্বর বুধবার থেকে হাতে বানানো ভেলায় চড়ে আসতে শুরু করেছে

প্রিয় সংবাদ/কামরুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


স্পন্সরড কনটেন্ট
জনপ্রিয়
আরো পড়ুন