লঙ্কানদের ৩১২ রানে অল আউট করে মাঠ ছাড়ছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। ছবি: সংগৃহীত

শুরুতে মুস্তাফিজ, শেষে সানজামুল

মুস্তাফিজের পর বল হাতে আলো ছড়িয়েছেন সানজামুল ইসলাম। কাটার মাস্টারের ৩ উইকেটের পর বাঁহাতি এই স্পিনার তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ জুলাই ২০১৮, ২১:৩৫ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ০১:১৬


লঙ্কানদের ৩১২ রানে অল আউট করে মাঠ ছাড়ছে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) থেকে ফিরেছেন চোট সঙ্গী করে। মাঠের বাইরে ছিলেন প্রায় দেড় মাস। চোট কাটিয়ে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে চলমান তৃতীয় ও শেষ চার দিনের ম্যাচের মধ্য দিয়ে মাঠে ফিরেছেন মুস্তাফিজুর রহমান। ফিরেই আলো ছড়িয়েছেন বল হাতে। ৪৪ রানে তুলে নিয়েছেন স্বাগতিকদের ৩ উইকেট।

ইনজুরি কাটিয়ে ফেরা মুস্তাফিজ এখন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ খেলার অপেক্ষায়। এ জন্যই তাকে খেলানো হচ্ছে শ্রীলঙ্কা ‘এ’ দলের বিপক্ষে চার দিনের ম্যাচে। উদ্দেশ্য একটাই, মুস্তাফিজ কতটা প্রস্তুত, সেটা যাচাই করা। ১১ ওভারে ৪৪ রানে ৩ উইকেট তুলে নিয়ে ফিটনেস যাচাইয়ের সেই পরীক্ষায় ভালোভাবেই উতরে গেছেন বাঁহাতি এই পেসার।

মুস্তাফিজের পর বল হাতে আলো ছড়িয়েছেন সানজামুল ইসলাম। কাটার মাস্টারের ৩ উইকেটের পর বাঁহাতি এই স্পিনার তুলে নিয়েছেন ৪ উইকেট। মুস্তাফিজ-সানজামুলের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে বেশি দূর যেতে পারেনি লঙ্কানরা। সিহান জয়সুরিয়ার ১৪২ রানের অনবদ্য ইনিংসের পরও ৩১২ রানে থামতে হয়েছে তাদের। জবাবে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে এক উইকেটে ৫৭ রানের সংগ্রহ পেয়েছে প্রথম ইনিংসে ১৬৭ রানে গুটিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ ‘এ’ দল।

সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের করা ১৬৭ রানের জবাবে ৩ উইকেট হারিয়ে ৭৮ রান তুলে প্রথম দিনের খেলা শেষ করে শ্রীলঙ্কা। এদিন ১ উইকেট শিকার করা মুস্তাফিজ দ্বিতীয় দিন তুলে নেন আরও ২ উইকেট। দিনের শুরুতে মুস্তাফিজের করা প্রথম বলে সৌম্য সরকারের হাতে ক্যাচ তুলে দেন চারিথ আশালঙ্কা।

পঞ্চম উইকেটে ১১৮ রানের জুটি গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান আশান সাম্মু ও জয়সুরিয়া। ৬০ রানে সাম্মুকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে জুটি ভাঙেন সানজামুল। এরপর জয়সুরিয়াকে ফিরিয়ে স্বস্তি ফেরান এই অফস্পিনার। এরপর মুস্তাফিজ-সানজামুল-নাঈমরা দ্রুত উইকেট তুলে নিলে ৩১২ রানে থামে লঙ্কানদের প্রথম ইনিংস।

বাংলাদেশের হয়ে ২৮.১ ওভারে ১০৪ রানের বিনিময়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নিয়েছেন সানজামুল। এ ছাড়া নাঈম হাসান দুটি ও সৌম্য সরকার নিয়েছেন ১ উইকেট।

১৪৫ রান পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে ৪৩ রান তুলতেই ১ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ব্যক্তিগত ১৯ রানে মালিন্দা পুষ্পকুমারার বলে স্টাম্পড হয়ে সাজঘরে ফেরেন সাদমান ইসলাম। শেষ পর্যন্ত ১ উইকেটে ৫৭ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করেছে বাংলাদেশ। লঙ্কানদের চেয়ে এখনো ৮৮ রান পিছিয়ে মোহাম্মদ মিথুনের দল। সৌম্য সরকার ১৮ ও মিজানুর রহমান ৫ রানে অপরাজিত আছেন।

প্রিয় খেলা/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট