ছবিটি প্রতীকী, ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত।

একটি ক্ষতিকর সম্পর্ক চিনে নেয়ার ৭টি গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ!

কিছু কিছু সম্পর্ক এমনও আছে যা আমাদের বড় ধরণের ক্ষতি করে দেয়।কিছু কিছু মানুষ কেবল খারাপ উদ্দেশ্য নিয়েই জীবনে আসে!

রুমানা বৈশাখী
বিভাগীয় প্রধান (প্রিয় লাইফ)
প্রকাশিত: ২৪ জুলাই ২০১৮, ২৩:৫৩ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২২:৩২


ছবিটি প্রতীকী, ইন্টারনেট হতে সংগৃহীত।

(প্রিয়.কম) পরিবারের বাইরে জীবনে যে কেবল প্রেম কিংবা বিয়ে হয়, সেটাই কিন্তু নয়। বন্ধুত্ব হয়, সহকর্মীর সাথে সম্পর্ক হয়, ইন্টারনেটের দুনিয়ায় পরিচয় হয়, খেলাধুলার বন্ধু হয়, ব্যবসায়িক সম্পর্ক হয় ইত্যাদি আরও কত কি! কিন্তু সব সম্পর্কই কি নিরাপদ? না! কিছু কিছু সম্পর্ক এমনও আছে যা আমাদের বড় ধরণের ক্ষতি করে দেয়। সেই সম্পর্ক হতে পারে প্রেম কিংবা বিয়ের, হতে পারে বন্ধুত্ব বা কর্মক্ষেত্রের, হতে পারে এর বাইরেও অন্যকিছু। এই মানুষগুলো আমাদের জীবনে আসে, নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারের জন্য নানান ভাবে আমাদেরকে ব্যবহার করে, আর তারপর মন ভেঙে দিয়ে চলে যায়।

কীভাবে চিনে নেবেন এমন মানুষ, যারা আপনার ক্ষতি করে চলে যাবে? জেনে নিন ৭টি গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ।

১.আপনি তাদেরকে প্রায়ই দেখেন অন্যের সাথে খুব খারাপ আচরণ করতে কিংবা এমন কোন কাজ করতে যাতে অন্যের বড় ধরণের ক্ষতি হয়। আপনার সাথে যদিও তারা খুবই ভালো ব্যবহার করেন। কিন্তু জানবেন, যে মানুষ আজ অন্যের সাথে নিষ্ঠুর কাজ করতে পারছে, কাল সে আপনারও বড় একটা ক্ষতি করে পারবে।

২. তারা ক্রমাগত অন্যের নামে বদনাম করে চলেন। তাদের কাছে কেউই ভাল নয়, সকলেই খারাপ। কিন্তু এইসব বদনাম বা সমালোচনা তারা কারো সামনে বলেন না, বরং করেন পিঠ পিছে। সামনা-সামনি বলার সাহস তাদের নেই।

৩. তারা অসম্ভব স্বার্থপর। হয়তো তিনি আপনাকে খুবই ভালোবাসেন এই মুহূর্তে, কিন্তু স্বার্থে আঘাত লাগলে তার আচরণ বদলে যায়। আপনার চোখের সামনেই তিনি অন্য মানুষদের সাথেও স্বার্থপর আচরণ করেন।

৪. তিনি দুমুখো সাপের মত একজন মানুষ। সকলের সাথেই তাল মিলিয়ে চলেন, সকলকেই খুশি করার চেষ্টা করেন।

ছবিটি প্রতীকী।

৫. ন্যায়-অন্যায়ের বোধ তার মাঝে খুবই কম। জীবনের অনেক খারাপ দিককেই তিনি খারাপ মনে করেন না। আপনার সাথে নীতি ও আদর্শগত দিক থেকে তার আকাশ-পাতাল ফারাক আছে। শুভ ও সুন্দর জিনিসের চাইতে বিতর্কিত আর অন্ধকারের দিকেই তার বেশি আগ্রহ।

৬. আপনার সাথে তার কোন একটা স্বার্থ জড়িয়ে আছে। যেমন ধরুন, আপনার কাছ থেকে তিনি কোনরূপ সহায়তা পাচ্ছেন কিংবা আপনার সাথে বন্ধুত্ব/প্রেম আছে বিধায় সমাজের বাহবা পাচ্ছেন। এমনও হতে পারে যে তিনি আপনার রূপে মুগ্ধ বা শারীরিক সম্পর্কের মাধ্যমে ফায়দা তুলছেন। খুব গভীর ভাবে ভেবে দেখুন, হয়তো নিজের অজান্তেই ব্যবহৃত হয়ে চলেছেন আপনি।

৭. আপনার আগেও তার অনেক কাছের মানুষ ছিল। তাদের কারো সাথেই তার সম্পর্ক সুন্দরভাবে শেষ হয়নি। সকলের সাথেই তিক্ততা দিয়ে শেষ হয়েছে এবং সবক্ষেত্রে তার নিজেরই দোষ ছিল। তার কোন পুরাতন, ঘনিষ্ঠ ও সত্যিকারের বন্ধুত্ব নেই। যাদের সাথে তিনি মেলামেশা করেন, সকলের সাথেই কোন না স্বার্থ জড়িয়ে আছে।

মনে রাখতে হবে যে এইসব বিষাক্ত মানুষেরা কখনো কারো আপনজন হতে পারে না। আপনি হয়তো মন থেকেই তাকে ভালবাসলেন, কিন্তু সেই ভালোবাসার প্রতিদান দেবার ক্ষমতা আসলে তাদের নেই। তাই এই লক্ষণগুলো কোন প্রিয় মানুষের মাঝে দেখতে পেলে সম্পর্কটি নিয়ে ভালো করে ভেবে দেখাই উত্তম।

প্রিয় লাইফ/ আর বি

পাঠকের মন্তব্য(১)

মন্তব্য করতে করুন


Mazhar Manik
Mazhar Manik

Wow so true n unique...

আরো পড়ুন
পিরিয়ড লেট হওয়াটা কী স্বাভাবিক?
কে এন দেয়া ২২ অক্টোবর ২০১৮
ঝাল স্বাদে জনপ্রিয় খাবার চিকেন ৬৫
রুমানা বৈশাখী ২২ অক্টোবর ২০১৮
ব্যায়ামের আগে ও পরে খাবেন যে ফলটি
কে এন দেয়া ২০ অক্টোবর ২০১৮
খুব সহজে সুস্বাদু টুইস্টেড ফ্রাইড ডোনাট
রুমানা বৈশাখী ২০ অক্টোবর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট