এইচ টি ইমাম। সংগৃহীত ছবি

গাজীপুর-খুলনার মেয়ররা প্রচারে অংশ নিয়ে বিধি লঙ্ঘন করেননি: এইচ টি ইমাম

বিধি অনুযায়ী, সিটি করপোরেশনের মেয়ররা নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে পারেন না।

প্রদীপ দাস
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৫ জুলাই ২০১৮, ২০:৩১
আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৪:৪৮


এইচ টি ইমাম। সংগৃহীত ছবি

(প্রিয়.কম) চলমান তিন সিটি (বরিশাল, রাজশাহী ও সিলেট) নির্বাচনের প্রচারে অংশ নিয়ে গাজীপুরখুলনা সিটির নবনির্বাচিত মেয়ররা বিধির কোনো লঙ্ঘন করেননি বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম

২৫ জুলাই, বুধবার বিকেলে নির্বাচন কমিশনে এসে এমন মন্তব্য করেন এইচ টি ইমাম। এর আগে এই জ্যেষ্ঠ আওয়ামী লীগ নেতার নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের এক প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সামনে এই মন্তব্য করেন এইচ টি ইমাম।

সম্প্রতি গাজীপুর ও খুলনা সিটির নবনির্বাচিত আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র জাহাঙ্গীর আলম ও তালুকদার আব্দুল খালেক আসন্ন তিন সিটি নির্বাচনের প্রচারে অংশ নেন। বিধি অনুযায়ী, সিটি করপোরেশনের মেয়ররা নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে পারেন না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে এইচ টি ইমাম বলেন, ‘আমি মনে করি, এখানে কোনো বিধির লঙ্ঘন হয়নি। গাজীপুরের জাহাঙ্গীর এখনো শপথই নেন নাই। তিনি মেয়র নন, তিনি নির্বাচিত মেয়র। গেজেট হলেই হবে না, তাকে শপথ নিতে হবে। তাকে কার্যভার গ্রহণ করতে হবে। তখন তিনি মেয়র। খুলনার মেয়র খালেকের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘মৌখিকভাবে দুই সিটির নির্বাচিত মেয়রদের মৌখিকভাবে সতর্ক করা হয়েছে।’

রাজশাহী মেডিকেল কলেজের চিকিৎসকরা প্রচারে অংশ নিয়েছেন—এমন বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি জানি, রাজশাহীতে না, সারা দেশেই স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ বলে চিকিৎসকদের একটি সংগঠন রয়েছে। তারা রাজনীতি করেন এবং স্বাধীনতার পক্ষের। কিন্তু তারা কখনো নির্বাচনি প্রচারে প্রার্থীর পক্ষে প্রচারে অংশগ্রহণ করতে পারেন না। যদি তারা অংশ নেন, যদি তারা সরকারি চাকরি করেন। সরকারি না হলে তারা তো প্রচারে অংশ নিতেই পারেন।’

সংসদ নির্বাচনসহ সব নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সবকিছুই করবে আওয়ামী লীগ বলেও মন্তব্য করেন এইচ টি ইমাম। তিনি বলেন, ‘আমাদের নির্বাচন কমিশন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে নির্বাচন করছেন। নির্বাচন কমিশনে এসেছিলাম সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য কীভাবে আমরা সহযোগিতা করতে পারি, তা জানানোর জন্য।’

গাজীপুর ও খুলনার নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি বলে প্রতিবেদন দেয় ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপ (ইডব্লিউজি)। সেই প্রতিবেদন সঠিক নয় বলেও দাবি করেন এইচ টি ইমাম। তিনি বলেন, ‘কয়েকটি এনজিও নিয়ে এই গ্রুপটি গঠিত হয়েছে। কোনো গ্রুপ নিবন্ধন পেতে পারে না। তাই তারা পৃথকভাবে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করে। নিয়ম অনুযায়ী আগে কমিশনে প্রতিবেদন দিতে হয়, কিন্তু তারা তা না করে বাইরে সেটি প্রকাশ করেছে। তাদের প্রতিবেদন গ্রহণযোগ্য নয়।’

এইচ টি ইমামের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের পাঁচ সদস্যের মধ্যে অন্যরা হলেন দলটির দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, প্রচার সম্পাদক ড. হাসান মাহমুদ, উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ড. রাশেদুল আলম এবং কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য অ্যাডভোকেট এ বি এম রিয়াজুল কবীর কাওছার।

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট
ঢাকার পথে শেখ হাসিনা
প্রিয় ডেস্ক ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শেখ হাসিনার শ্রদ্ধাঞ্জলি
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
টুঙ্গীপাড়ার পথে শেখ হাসিনা
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
প্রচলিত আইনে খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারেন না: আব্দুর রহমান
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
আ. লীগের ওপরই হামলা হচ্ছে বেশি: এইচ টি ইমাম
আ. লীগের ওপরই হামলা হচ্ছে বেশি: এইচ টি ইমাম
বিডি নিউজ ২৪ - ১ দিন, ৭ ঘণ্টা আগে