বৃহস্পতিবার থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল দলের গোল উৎসব। ছবি: সংগৃহীত

পাকিস্তানের জালে বাংলাদেশের ১৪ গোল

দ্বিতীয়ার্ধে পাকিস্তানকে খেলায় ফিরতে না দিয়ে উল্টো মুহুর্মুহু আক্রমণ চালিয়ে যান মারিয়ারা। দ্বিতীয়ার্ধ থেকে বাংলাদেশ দল আদায় করে নেয় আরও ৮টি গোল।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৯ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৮ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৩২
প্রকাশিত: ০৯ আগস্ট ২০১৮, ২১:৪৮ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৩২


বৃহস্পতিবার থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল দলের গোল উৎসব। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্য নিয়েই সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপে অংশ নিয়েছে বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল দল। সেই লক্ষ্যের শুরুটা হয়েছে উড়ন্ত সূচনা দিয়ে। পাকিস্তানকে ১৪-০ ব্যবধানে উড়িয়ে শুরু শিরোপা ধরে রাখার অভিযান শুরু করেছে শামসুন্নাহার-মারিয়ারা।

ভুটানে চলমান সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ চ্যাম্পিয়নশিপের ম্যাচে এদিন বাংলাদেশের জালে বলই জড়াতে পারেনি নবাগত পাকিস্তান। থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচের প্রথমার্ধে জোড়া গোল করেন তহুরা খাতুন। শেষ পর্যন্ত ৬-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই প্রথমার্ধ শেষ করে বাংলাদেশের মেয়েরা। বাকি চার গোল করেছেন মারিয়া মান্ডা, মানিকা চাকমা, আখি খাতুন ও শামসুন্নাহার।

দ্বিতীয়ার্ধে পাকিস্তানকে খেলায় ফিরতে না দিয়ে উল্টো মুহুর্মুহু আক্রমণ চালিয়ে যান মারিয়ারা। দ্বিতীয়ার্ধ থেকে বাংলাদেশ দল আদায় করে নেয় আরও ৮টি গোল। একের পর এক ধারাবাহিকভাবে গোল করতেই থাকেন গোলাম রব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। দ্বিতীয়ার্ধে মাত্র ১২মিনিটে (৪৮ থেকে ৬০ মিনিট) ৬টি গোল করে বাংলাদেশের মেয়েরা। ৯০ মিনিটে বাংলাদেশ অন টার্গেটে শট নেয় ৩২টি। কর্নার পেয়েছে আরও ১২টি। 

এদিন গোলের দেখা পেয়েছেন আক্রমণভাগের প্রায় সবাই। বাংলাদেশের হয়ে শামছুন্নাহার একাই করেছেন ৫ গোল। দুটি করে গোল করেছেন তহুরা খাতুন, সাজেদা খাতুন ও আনাই মোগিনি। এ ছাড়া একটি করে গোল করেন মনিকা চাকমা, শামসুন্নাহার ও মারিয়া।

এই জয়ের ফলে সেমিফাইনালের পথে অনেকটাই এগিয়ে গেল বাংলাদেশের মেয়েরা। ১৩ আগস্ট, সোমবার গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ নেপাল।

অনূর্ধ্ব-১৫ নারী সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় আসরে ছয়টি দল অংশ নিয়েছে। দলগুলো হচ্ছে- ভুটান, ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। বাংলাদেশ রয়েছে ‘বি’ গ্রুপে। তাদের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান ও নেপাল।

‘এ’ গ্রুপে রয়েছে ভারত, শ্রীলঙ্কা ও স্বাগতিক ভুটান দল। ৯ থেকে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে গ্রুপপর্বের ম্যাচগুলো। ১৬ আগস্ট হবে দুটি সেমিফাইনাল ম্যাচ। আর ১৮ আগস্ট হবে ফাইনাল ও তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ।

প্রিয় খেলা/শান্ত