রানওয়েতে আকাশবীণা উড়োজাহাজ। ছবি: প্রিয়.কম

ওয়াটার ক্যানন স্যালুটে অাকাশবীণাকে বরণ

‘অামরা অাশাবাদি এ উড়োজাহাজ বহরে যুক্ত হওয়ায় বিমান বাংলাদেশ নব উদ্যোমে জেগে উঠবে। প্রতিটি ব্যবসায় লাভ ও লোকসান হবে।’

মোস্তফা ইমরুল কায়েস
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৯ আগস্ট ২০১৮, ২০:১১ আপডেট: ২০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:৩২


রানওয়েতে আকাশবীণা উড়োজাহাজ। ছবি: প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) দেশের বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যোগ হলো অারেকটি উড়োজাহাজ অাকাশবীণা। উড়োজাহাজটি দেশের মাটিতে পা রাখতেই ওয়াটার ক্যানন স্যালুটের মাধ্যমে তাকে বরণ করা হয়।

১৯ অাগস্ট, রবিবার বিকেল ৫টা ২০মিনিটে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামে উড়োজাহাজটি। এ সময় সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ অগ্নি নির্বাপক দুটি গাড়িতে করে অানা পানি ছিটিয়ে বরণ করে নেয় উড়োজাহাজটিকে।

জাতীয় পতাকাবাহী সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হতে যাওয়া বোয়িং-৭৮৭ ড্রিমলাইনারের প্রথম উড়োজাহাজ অাকাশ বীণা। এ নামটি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উড়োজাহাজটি বাংলাদেশ বিমানের বহরে যুক্ত হওয়ায় উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়াল ১৫-তে।

রানওয়েতে দাঁড়ানো আকাশবীণা। ছবি: প্রিয়.কম
রানওয়েতে দাঁড়ানো আকাশবীণা। ছবি: প্রিয়.কম

উড়োজাহাজটি রানওয়েতে থামার পর সেটি থেকে নেমে অাসেন বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পরিচালনা পর্যদের চেয়ারম্যান এয়ার মার্শাল (অব.) ইনামুল বারীর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল। এ সময় তাদের ফুল দিয়ে বরণ করা হয়।

উড়োজাহাজ থেকে থেকে নেমে বিমানের চেয়ারম্যান এনামুল বারী বলেন, ‘অামরা অাশাবাদী এ উড়োজাহাজ বহরে যুক্ত হওয়ায় বিমান বাংলাদেশ নব উদ্যোমে জেগে উঠবে। প্রতিটি ব্যবসায় লাভ ও লোকসান হবে। এ বিমানে জ্বালানি সাশ্রয়ী হওয়ায় অামাদের খুবই লাভজনক হবে।’

১ সেপ্টেম্বর এ উড়োজাহাজটি উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেদিন সন্ধ্যা থেকে সিঙ্গাপুর-কুয়ালালামপুরে ফ্লাইট কার্যক্রম শুরু করবে। পর্যায়ক্রমে অাগামী বছরের জানুয়ারিতে গুয়াংজু রুটে বিমান চালু করা হবে বলে জানান এনামুল বারী।

এনামুল বারী আরও বলেন, ‘অাগামী এক মাস বিমানটিকে সিঙ্গাপুর-কুয়ালালামপুর রুটে চালানোর মাধ্যমে প্রশিক্ষণ চলবে। এ রুট ছাড়া অন্য রুটে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করলে ৮/১০ কোটি টাকা খরচ পড়বে। এক মাস চালানোর মধ্যদিয়ে এটিকে অামরা নিয়ন্ত্রণে নিয়ে অাসব।’

প্রিয় সংবাদ/হাসান/কামরুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
আমলনামার ভিত্তিতেই নির্বাচনে মনোনয়ন: ওবায়দুল
জানিবুল হক হিরা ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
চাকরি স্থায়ী হচ্ছে কারিগরির ৩০০ শিক্ষকের
প্রিয় ডেস্ক ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
১০ দিন বয়সী নবজাতকের লাশ পুকুরে
মো. ইমাম জাফর ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পুনর্বিবেচনার দাবি টিআইবির
জানিবুল হক হিরা ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
ট্রেন্ডিং