মুস্তাফিজুর রহমান ও মাশরাফি বিন মুর্তজা। ছবি: সংগৃহীত

মাশরাফি-মুস্তাফিজে মুগ্ধ ওয়ালশ

অভিজ্ঞ মাশরাফির পাশাপাশি ওয়ালশকে রীতিমতো মুগ্ধ করেছেন তরুণ মুস্তাফিজ।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৩২ আপডেট: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৩২


মুস্তাফিজুর রহমান ও মাশরাফি বিন মুর্তজা। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ‘রতনে রতন চেনে’। বাংলাদেশের ক্রিকেটের অন্যতম দুই রত্ন মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মুস্তাফিজুর রহমানকে ঠিকই চিনে ফেলেছেন কোর্টনি ওয়ালশ। ২০১৬ সাল থেকে জাতীয় ক্রিকেট দলের পেস বোলিং কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ক্যারিবীয় এই কিংবদন্তি। দুই বছর ধরে মাশরাফি-মুস্তাফিজদের নিয়ে কাজ করলেও দুই শিষ্যের প্রতিভার গভীরতা খুঁজে পেতে বেশি সময় লাগেনি অভিজ্ঞ ওয়ালশের।

৮ সেপ্টেম্বর, শনিবার মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দুজনকে নিয়ে উপলব্ধির কথাই জানালেন কোর্টনি ওয়ালশ। সেখানে ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছিলেন সাবেক এই ক্যারিবীয় পেসার। একই সঙ্গে তরুণদের তাগিদ দিলেন মাশরাফিকে অনুরসণ করার, তার জিততে চাওয়ার ক্ষুধাটা নিজেদের মধ্যে আয়ত্ত করার।

অভিজ্ঞ মাশরাফির পাশাপাশি ওয়ালশকে রীতিমতো মুগ্ধ করেছেন তরুণ মুস্তাফিজ। অভিজ্ঞ ওয়ালশের চোখে, বাঁহাতি এই পেসার বিশেষ প্রতিভা। মাঝে খারাপ সময়, ইনজুরি, বাজে ফর্ম গেলেও মুস্তাফিজের দক্ষতা ওয়ালশের চোখে বিশেষ।

মাশরাফি সম্পর্কে মূল্যায়ন করতে গিয়ে ওয়ালস বলেন, ‘ম্যাশের অভিজ্ঞতা ও ওর স্কিলসেট অন্যদের থেকে অনেক আলাদা। আরও ভালো। বরাবরই সে দারুণ এক ফাস্ট বোলার। ইনজুরি না থাকলে এখসো হয়তো সে টেস্ট ক্রিকেট খেলত। আমি এখানে আসার পর প্রথমে ওকে এটাই বলেছিলাম, ‘‘এখনও তো তুমি টেস্ট ক্রিকেট খেলতে পারো!’’ কিন্তু ইনজুরির কারণে সব সংস্করণ খেলতে পারছে না। অনেক বছর ধরেই বাংলাদেশের জন্য যে খুবই উঁচু মানের পেস বোলার।’

কোর্টনি ওয়ালশ। ছবি: সংগৃহীত

ওয়ালশ আরও বলেন, ‘আমি মনে করি, সে যতটা করতে পারে, তার পুরোটা সে করতে চায়। তরুণদেরও এই ক্ষুধা থাকতে হবে। আমরা কেবল আড়াল থেকে কাজ করতে পারি। কিন্তু তরুণদের মাঠে নেমে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পারফর্ম করতে হবে। ম্যাশ তার পারফরম্যান্সকে আত্মসম্মান হিসেবে দেখে। সেখানে অন্যদের সঙ্গে বড় পার্থক্য। সে তার ক্ষুধাটা ফুটিয়ে তোলে, সে পারফর্ম করতে চায়, ভালো করতে চায়, লড়াই করতে চায়।’

মুস্তাফিজকে বিশেষ প্রতিভা উল্লেখ করে ওয়ালশ বলেন, ‘ও ভালোভাবেই এগোচ্ছে। অবশ্যই যে জায়গাটায় থাকা উচিত, এখনো সেখানে যেতে পারেনি। আমার মনে হচ্ছে যে, এই সফরটি (এশিয়া কাপ) মুস্তাফিজের জন্য খুব ভালো হতে পারে। ওয়েস্ট ইন্ডিজে সে ভালো করেছে। ইনজুরিগুলো যদি দূরে থাকে, সে আরও ভালো করবে। কারণ সে বিশেষ প্রতিভা, তার দক্ষতাও বিশেষ।’

প্রিয় খেলা/আজহার

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
‘ডাবল সেঞ্চুরি একা করা যায় না’
মুশাহিদ ১২ নভেম্বর ২০১৮
‘মিরাজ খুব মজার একটা চরিত্র’
শান্ত মাহমুদ ১২ নভেম্বর ২০১৮
যে তালিকায় সবার উপরে মুশফিক
মুশাহিদ ১২ নভেম্বর ২০১৮
নির্ভীক মুশফিকে বাংলাদেশের শাসন
শান্ত মাহমুদ ১২ নভেম্বর ২০১৮
অনবদ্য ডাবলে রেকর্ড চূড়ায় মুশফিক
সৌরভ মাহমুদ ১২ নভেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট