মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবাল। ছবি: সংগৃহীত

তামিম-মুশফিক একই দলে, অবিক্রীত রইলেন আশরাফুল

বাংলাদেশ থেকে প্লেয়ার ড্রাফটে জায়গা পাওয়া বাকি ১২ ক্রিকেটারের কেউই দল পাননি।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২১:১০ আপডেট: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৪৪


মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবাল। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) আফগানিস্তান টি-টোয়েন্টি প্রিমিয়ার লিগে (এপিএল) তামিম ইকবাল দল পাচ্ছেন তা আগেই মোটামুটি নিশ্চিত ছিল। প্লেয়ার ড্রাফট প্রকাশের আগেই বাঁহাতি এই ওপেনারের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছিলেন এই টুর্নামেন্টের বিনিয়োগকারী অংশীদার স্নেক্সার স্পোর্টসের প্রধান নির্বাহী আশীষ শেঠি। তামিম ছাড়া প্লেয়ার ড্রাফটে নাম উঠেছিল বাংলাদেশের আরও ১৩ ক্রিকেটারের।

অবশ্য ১৪ ক্রিকেটারের মধ্যে দল পেয়েছেন কেবল তামিম ইকবালমুশফিকুর রহিম। দুজনকেই দলে ভিড়িয়েছে নাঙ্গরহর। প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিতব্য এই টুর্নামেন্টের প্লেয়ার ড্রাফটে ‘ডায়মন্ড’ ক্যাটাগরিতে ছিলেন তামিম। এই ক্যাটাগরিতে থাকা বিদেশি খেলোয়াড়ের পারিশ্রমিক ৬৩ লাখ টাকা। ‘গোল্ড’ ক্যাটাগরিতে থাকা মুশফিকের পারিশ্রমিক ২৫ লাখ টাকা। দলটির আইকন খেলোয়াড় ওয়েস্ট ইন্ডিজের আন্দ্রে রাসেল। 

বাংলাদেশ থেকে প্লেয়ার ড্রাফটে জায়গা পাওয়া বাকি ১২ ক্রিকেটারের কেউই দল পাননি। এমনকি দীর্ঘ নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরা মোহাম্মদ আশরাফুলের প্রতিও আগ্রহ দেখায়নি কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি। সাব্বির-মুশফিকের সঙ্গে প্লেয়ার ড্রাফটে গোল্ড ক্যাটাগরিতে ছিলেন বাংলাদেশি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান।

আফগানিস্তান টি-টোয়েন্টি প্রিমিয়ার লিগ (এপিএল) নামে নতুন আঙ্গিকে একটি ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আয়োজন করার ঘোষণা আগেই দিয়েছিল আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। এরপর গেল ১৩ আগস্ট টুর্নামেন্ট আয়োজনের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) কাছ থেকে ছাড়পত্র পায় দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।

সোমবার দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত নিলামে তোলা হয় দেশি-বিদেশি মিলিয়ে ৩৫০ জন ক্রিকেটারকে। সেখানে মুশফিক-আশরাফুল ছাড়াও গোল্ড ক্যাটাগরিতে ছিল সাব্বির রহমানের নাম। সিলভার ক্যাটাগরিতে ছিলেন এনামুল হক বিজয়, শাহরিয়ার নাফিস, ইমরুল কায়েস, লিটন কুমার দাস, আবুল হাসান রাজু, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার রনি, তাসকিন আহমেদ, আব্দুর রাজ্জাক ও সানজামুল ইসলাম।

আগামী ৫ অক্টোবর সংযুক্ত আরব আমিরাতে পর্দা উঠবে এপিএলের প্রথম আসরের। এই টুর্নামেন্টে অংশ নেবে প্রদেশের পাঁচটি দল। অংশগ্রহণকারী প্রদেশগুলো হচ্ছে- কাবুল, কান্দাহার, নাঙ্গরহর, পাকতিয়া ও বালখ। কিন্তু পাঁচ দলের আইকন ক্রিকেটারদের মধ্যে রশিদ খানই একমাত্র আফগান ক্রিকেটার। আফগান এই লেগস্পিনারকে দলে ভিড়িয়েছে কাবুল।

বাকি আইকনদের চারজনই বিদেশি। এদের মধ্যে পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদিকে কিনেছে পাকতিয়া। ওয়েস্ট ইন্ডিজ তারকা ক্রিস গেইলকে দলে নিয়েছে বালখ। আর নিউজিল্যান্ডের ব্রেন্ডন ম্যাককালামকে আইকন খেলোয়াড় বানিয়েছে কান্দাহার।

পাঁচ দলের অংশগ্রহণে ৫ থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে ২৩টি ম্যাচ। এই টুর্নামেন্টের সবগুলো ম্যাচই অনুষ্ঠিত হবে শারজাহ আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে।

ভারত, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তানের মতো আফগানিস্তানও ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট আয়োজন করে আসছে। কিন্তু তারকা ক্রিকেটারদের স্বল্পতার কারণে শাপাগিজা ক্রিকেট লিগ নামের টুর্নামেন্টটি সেভাবে পরিচিতি পায়নি। এবার তারকা ক্রিকেটারদের ভিড়িয়ে জনপ্রিয়তার আক্ষেপ ঘোচাতে চাইছে দেশটি।

প্রিয় খেলা/শান্ত  

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
প্রস্তুতিটা ভালোই হলো সৌম্য-মিথুনের
সৌরভ মাহমুদ ১৯ নভেম্বর ২০১৮
হঠাৎ টেস্ট দলে সাদমান
সৌরভ মাহমুদ ১৯ নভেম্বর ২০১৮
ছবিতে রনি-প্রমার বিয়ে
সৌরভ মাহমুদ ১৯ নভেম্বর ২০১৮
বিয়ের ঘটক মহেন্দ্র সিং ধোনি!
সৌরভ মাহমুদ ১৯ নভেম্বর ২০১৮
এক নম্বরকে হারিয়ে জেরেভের চমক
প্রিয় ডেস্ক ১৯ নভেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
ট্রেন্ডিং