অসুস্থ স্ত্রীর পাশে নওয়াজ শরিফ ও মেয়ে মরিয়ম। ছবি: সংগৃহীত

স্ত্রীর সঙ্গে শেষ সাক্ষাতে যা বলেছিলেন নওয়াজ শরিফ

স্ত্রীর সঙ্গে নওয়াজের শেষ সাক্ষাতের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

আশরাফ ইসলাম
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:২৯ আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:২৯
প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:২৯ আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৫:২৯


অসুস্থ স্ত্রীর পাশে নওয়াজ শরিফ ও মেয়ে মরিয়ম। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের স্ত্রী কুলসুম নওয়াজ (৬৮) লন্ডনের একটি হাসপাতালে ১১ সেপ্টেম্বর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। দুর্নীতির অভিযোগে গত জুলাই মাসে লন্ডন থেকে নওয়াজ শরীফ পাকিস্তান এসে পৌঁছান। লন্ডন ছাড়ার আগে শেষ বারের মতো অসুস্থ স্ত্রীকে দেখে আসেন পাকিস্তানের তিনবারের এই প্রধানমনন্ত্রী।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইতোমধ্যে স্ত্রীর সঙ্গে নওয়াজের ওই শেষ সাক্ষাতের ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়েছে। ভিডিওতে দেখা যায় নওয়াজ শরিফ স্ত্রী কুলসুমকে বলছিলেন, ‘চোখ খুলো কুলসুম’।

ভিডিওতে দেখা যায়, শয্যাশায়ী স্ত্রীর কাছে কাতর কণ্ঠে বিদায় জানাচ্ছেন নওয়াজ। এ সময় স্ত্রী কুলসুমকে একবারের জন্য চোখ খুলে তাকানোর জন্য অনুরোধ করেন তিনি। কিন্তু নওয়াজ শরিফের ডাকে সারা দিতে দেখা যায়নি স্ত্রী কুলসুমকে। 

ভিডিওটির শেষে নওয়াজ শরিফকে তার স্ত্রীকে বলতে শোনা যায়, ‘আল্লাহ তোমায় শক্তি দিক। দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠো।’                                        

                                                    স্ত্রীর সঙ্গে নওয়াজের শেষ সাক্ষাতের ভিডিও। 

১১ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার লন্ডনের একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কুলসুম নওয়াজ। হারলে স্ট্রিট ক্লিনিক তার মৃত্যুর খবরটি প্রথমে নিশ্চিত করে। এর আগে সোমবার রাতে হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে লাইফ সাপোর্ট দেওয়া হয় তাকে। 

২০১৭ সালের জুন থেকে ফুসফুসের সমস্যা ও ক্যানসারে আক্রান্ত কুলসুম নেওয়াজ লন্ডনের হারলে স্ট্রিট ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

১৯৫০ সালে বেগম কুলসুমের জন্ম। ১৯৭১ সালে নওয়াজ শরিফের সঙ্গে তার বিয়ে হয়।

দুর্নীতির মামলায় পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ, মেয়ে মরিয়ম এবং মেয়ে জামাই গত জুলাই থেকে কারাগারে রয়েছেন।

তবে কুলসুম নওয়াজের দাফন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে নওয়াজ শরিফ, তার মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ ও জামাতা ক্যাপ্টেন (অব.) সাফদারকে প্যারোলে মুক্তি দিয়েছে রাওয়ালপিন্ডির আদিয়াল জেল কর্তৃপক্ষ।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...