অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট জন মরিসন। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারে আগ্রহী স্কট মরিসন

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন, অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত ৪৯ হাজার বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মানুষ অস্ট্রেলিয়ার সমাজে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন।

হাসান আদিল
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:১৬
আপডেট: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২০:১৭


অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট জন মরিসন। ছবি: সংগৃহীত

(ইউএনবি) বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও জোরদারের বিষয়ে আশা প্রকাশ করেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট জন মরিসন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পাঠানো এক চিঠিতে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ওই চিঠিতে মরিসন বলেন, ‘আমি দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে শক্তিশালী করার জন্য আপনার সঙ্গে (শেখ হাসিনা) কাজ করার জন্য উন্মুখ হয়ে আছি।’

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী হওয়ায় পর মরিসনকে অভিনন্দন জানিয়ে শেখ হাসিনার পাঠানো চিঠির জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে ওই চিঠি পাঠানো হয়।

দুই দেশের মধ্যকার শক্তিশালী ও আন্তরিক সম্পর্কের বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে মরিসন বলেন, ‘গত বছর আমাদের দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্য সম্পর্ক ১১ শতাংশেরও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে এবং আমরা সন্ত্রাসবাদ ও অন্যান্য আন্তর্জাতিক অপরাধ মোকাবেলায় ঘনিষ্ঠভাবে সহযোগিতা করেছি।’

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন, অস্ট্রেলিয়ায় বসবাসরত ৪৯ হাজার বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মানুষ অস্ট্রেলিয়ার সমাজে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছেন।

রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় বাংলাদেশের অবদানের কথা স্বীকার করে অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়া বাস্তুচ্যুত মানুষদের খাদ্য, আশ্রয় এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় সেবা সরবরাহের জন্য ৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মানবিক ত্রাণ প্রদানের অঙ্গীকার করেছে।’

২৭ আগস্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অস্ট্রেলিয়ার নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনকে দায়িত্ব গ্রহণের জন্য অভিনন্দন জানান এবং তার সফল মেয়াদ কামনা করেন।

এর আগে ২৪ আগস্ট অস্ট্রেলিয়ার ৩০তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন স্কট মরিসন।

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট
বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শেখ হাসিনার শ্রদ্ধাঞ্জলি
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
টুঙ্গীপাড়ার পথে শেখ হাসিনা
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ১২ ডিসেম্বর ২০১৮