এমন দৃশ্য ক্রিকেটপ্রেমিদের হৃদয়ে গেঁথে থাকবে আজীবন। ছবি: সংগৃহীত

তামিমের সাহসিকতায় বিস্মিত ম্যাথুসরাও

ধীরে ধীরে মাঠ ছাড়ছিলেন তামিম ইকবাল। এ সময় তার সামনে গিয়ে হাঁটু গেড়ে বসে পড়েন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:৩০
আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:৩০


এমন দৃশ্য ক্রিকেটপ্রেমিদের হৃদয়ে গেঁথে থাকবে আজীবন। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) মুশফিকুর রহিমের বিদায়ে ইতি ঘটে বাংলাদেশের ইনিংসের। এক হাতে ব্যান্ডেজ বাধা গ্লাভস আরেক হাতে ব্যাট নিয়ে ধীরে ধীরে মাঠ ছাড়ছিলেন তামিম ইকবাল। এ সময় তার সামনে গিয়ে হাঁটু গেড়ে বসে পড়লেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। তামিমের দিকে তাকিয়ে কিছু একটা বললেন লঙ্কান অধিনায়ক।

হয়তো তামিমের সাহসিকতার বিরল নজিরে শ্রদ্ধাই জানালেন ম্যাথুস। তাতে অবশ্য খুব বেশি অবাক হওয়ার জো নেই। কেননা ক্রিকেট বিশ্বকে একটু আগেই যে চমকে দিয়েছেন তামিম। ৪৭তম ওভারে মুস্তাফিজের বিদায়ের পর এক হাতে ব্যান্ডেজ বাধা গ্লাভস ও অন্য হাতে ব্যাট নিয়ে সবাইকে অবাক করে দিয়েই যে মাঠে নেমে এসেছিলেন তিনি।

দ্বিতীয় ওভারেই হাতে চোট পান তামিম। মাঠ থেকে সরাসরি যেতে হয় হাসপাতালে। স্ক্যান রিপোর্টে জানা যায়, বাঁহাতি এই ওপেনারের বাম হাতের কব্জিতে চিড় ধরেছে। এমন অবস্থায় দলের প্রয়োজনে সাহসী সিদ্ধান্ত নেন তামিম। নেমে যান মাঠে। অবশ্য শুধু মাঠে নামাই নয়। এক হাতে কোনোমতে ঠেকিয়ে দিয়েছেন সুরঙ্গ লাকমলের বলও।

গড়েছেন সাহসিকতার বিরল এক নজির। এক হাতে তামিমের ব্যাট করার ওই দৃশ্য ক্রিকেটপ্রেমিদের হৃদয়ে গেঁথে থাকবে আজীবন। তামিমের এমন সাহসিকতায় বিস্মিত প্রতপক্ষ দলের খেলোয়াড়রাও। ম্যাচ শেষে তাই বাংলাদেশি ওপেনারের এমন সাহসিকতায় মুগ্ধ লঙ্কান অধিনায়ক।

এ নিয়ে ম্যাথুস বলেন, ‘সে অসম্ভব সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে। এক হাতে ব্যাট করেছে। ওই অবস্থায় নেমে পড়া কখনই সহজ কথা নয়। এটা সত্যি বিশাল কিছু।’

তামিম মাঠে নামতেই যেন আগ্রাসীরূপে আবির্ভূত হন মুশফিক। তিন চার ও সমান সংখ্যক ছক্কায় করেন ৩২ রান। ফলাফল, বাংলাদেশের স্কোরকার্ডে দাঁড়িয়ে যায় ২৬১ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ ম্যাচ জিতে নেয় ১৩৭ রানে। ম্যাথুসও মানছেন, তামিমের মাঠে ফেরাতেই মোড় ঘুরে যায় ম্যাচের।

এ নিয়ে লঙ্কান অধিনায়কের ভাষ্য, ‘পুরোটা সময় মুশফিক দারুণ ব্যাট করেছে। শেষ দিকে তারা ২০-৩০  রান (আসলে ৩২ রান) যোগ করে ফেলে। তামিমের মাঠে নামাতেই মূলত মোড় ঘুরে যায়। তবুও আমি মনে করি, এই উইকেটে ২৬২ রান তাড়া করে জেতা সম্ভব ছিল। এ ক্ষেত্রে আমি ব্যাটসম্যানদের দায় দিব।’

প্রিয় খেলা/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে ইউনিসেফ
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
খরুচে রুবেলের পাশে মাশরাফি
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
‘অপুর ফ্লাডলাইটে বল দেখতে সমস্যা হচ্ছিল’
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
মধুর হলো না অনেক উপলক্ষের ম্যাচ
শান্ত মাহমুদ ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
সবাইকে ছাড়িয়ে তামিম-মুশফিক জুটি
মুশাহিদ ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
পঞ্চপাণ্ডবের অন্য রকম সেঞ্চুরি
সৌরভ মাহমুদ ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
বাংলাদেশ ক্রিকেটের সঙ্গে ইউনিসেফ
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
খরুচে রুবেলের পাশে মাশরাফি
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
‘অপুর ফ্লাডলাইটে বল দেখতে সমস্যা হচ্ছিল’
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
যে কারণে শেষ ওভারে মাহমুদউল্লাহ
সৌরভ মাহমুদ ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
মধুর হলো না অনেক উপলক্ষের ম্যাচ
শান্ত মাহমুদ ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
ক্যাটস আইয়ের শুভেচ্ছাদূত হলেন তামিম ইকবাল
ক্যাটস আইয়ের শুভেচ্ছাদূত হলেন তামিম ইকবাল
বাংলা ট্রিবিউন - ২ সপ্তাহ, ২ দিন আগে
লন্ডনে গেলেন তামিম ইকবাল | খেলাধুলা
লন্ডনে গেলেন তামিম ইকবাল | খেলাধুলা
ইত্তেফাক - ২ মাস, ২ সপ্তাহ আগে
লন্ডনে গেলেন তামিম ইকবাল | খেলার খবর
লন্ডনে গেলেন তামিম ইকবাল | খেলার খবর
ইত্তেফাক - ২ মাস, ২ সপ্তাহ আগে