ফাইল ছবি

হঠাৎ কেন বেড়ে গেছে ইলিশ আহরণ?

‘এক কেজি ওজনের মাছ ৫শ থেকে সাড়ে ৫শ টাকা দরে এবং বড় ইলিশের দাম পড়ছে মাত্র ৭শ থেকে সাড়ে ৭শ টাকা। ঢাকাতেও মাছের দাম কমে বিক্রি হচ্ছে ৪৫০-৫০০ টাকা দরে।’

আবু আজাদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৫২
আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৫২


ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) দেশের বিভিন্ন নদ নদী, মোহনা ও সমুদ্রে এখন ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ মাছ।

ইলিশ ধরার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞার মুহূর্তে বিপুল পরিমাণ মাছ ধরা পড়ায় খুব খুশি জেলেরা।

মা ইলিশ সংরক্ষণের জন্য ৭ অক্টোবর থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত টানা ২২ দিন দেশব্যাপী ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মৎস্য অধিদফতর।

এ সময়ে ইলিশের নিরাপদ প্রজননের লক্ষ্যে দেশব্যাপী ইলিশ আহরণ, ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন, মজুদ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

এ আদেশ অমান্য করলে কারাদণ্ড, অর্থদণ্ড বা উভয় দণ্ডের বিধান রেখেছে মৎস্য অধিদফতর।

মূলত এ মৌসুমে ডিমওয়ালা মা ইলিশ সাগর থেকে স্রোতযুক্ত মিঠাপানিতে এসে ডিম ছাড়ে বলে জানান মৎস্য গবেষকরা।

তবে মাছ বেশি ধরা পড়লেও বরফ-সংকটের কারণে তা সংরক্ষণ করা যাচ্ছে না। যার প্রভাব পড়েছে মাছের বাজারে।

মুন্সিগঞ্জের লৌহজং জেলে সমিতির প্রেসিডেন্ট পরিমল মালো বলেন, ‘শুধুমাত্র চাঁদপুর ও মাওয়াতে প্রতিদিন ৩শ মণেরও বেশি ইলিশ ধরা পড়ছে। এ কারণে বাজারে ইলিশের দাম কমে গেছে ৪০ শতাংশ পর্যন্ত। ছোট আকারের ইলিশ আড়াইশ থেকে ৩শ টাকায় এক কেজি ওজনের মাছ ৫শ থেকে সাড়ে ৫শ টাকা দরে এবং বড় ইলিশের দাম পড়ছে মাত্র ৭শ থেকে সাড়ে ৭শ টাকা। ঢাকাতেও মাছের দাম কমে বিক্রি হচ্ছে ৪৫০-৫০০ টাকা দরে।’

মাছের দাম বাজারে কম হলেও জালে মাছ পড়ায় জেলেরা লাভের মুখ দেখছেন বলে তিনি জানান।

তবে হঠাৎ করে এতো ইলিশ জালে পড়ার কারণ হিসেবে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ এবং সামুদ্রিক নিম্নচাপকে প্রধান কারণ হিসেবে মনে করছেন চট্টগ্রাম মেরিন সাইন্স বিভাগের অধ্যাপক সাইদুর রহমান খান।

সাইদুর রহমান বলেন, ‘এক সময় অবাধে ইলিশ আহরণের কারণে বছরের প্রায় প্রতিটি সময় ইলিশের সংকট থাকত। তবে সরকার মাছের প্রজনন মৌসুমে নিষেধাজ্ঞা আরোপ, কারেন্ট জাল জব্দ, জাটকা ধরায় কড়াকড়ির কারণে এখন জেলেদের জালে প্রচুর ইলিশ ধরা পড়ছে।’

‘এ ছাড়া সামুদ্রিক নিম্নচাপ এবং সাইক্লোনের একটা প্রভাবও রয়েছে। কেননা ওই সময়টায় জেলেরা ট্রলার নিয়ে মাছ ধরতে যেতে পারে না। বছরে ২০ থেকে ২৫টি নিম্নচাপ হয়ে থাকে। এতে ৪০-৪৫ দিন মাছ ধরা বন্ধ থাকে যেটা মৎস্য সম্পদের জন্য এক ধরণের আশীর্বাদ বলতে পারেন।’

সাধারণত প্রশান্ত মহাসাগরে এল-নিনোর প্রভাবে নদীতে ইলিশ আহরণের সম্ভাবনা বেড়ে গেলেও চলতি বছরে সমুদ্রে এর কোনো প্রভাব নেই বলেও উল্লেখ করেন সাইদুর রহমান খান।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

প্রিয় সংবাদ/কামরুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট
ভালুকায় ছেলের হাতে মা খুন
ভালুকায় ছেলের হাতে মা খুন
https://www.prothomalo.com/ - ১৩ ঘণ্টা আগে
ধা‌নের শীষ‌কে জয়ী করবো: মা ম্যা চিং
ধা‌নের শীষ‌কে জয়ী করবো: মা ম্যা চিং
বাংলা ট্রিবিউন - ১৪ ঘণ্টা আগে