চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষক মাইদুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সাময়িক বহিষ্কার

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:৪১ আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:৪১
প্রকাশিত: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:৪১ আপডেট: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:৪১


চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষক মাইদুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

(ইউএনবি) তথ্য প্রযুক্তি আইনের মামলায় কারাগারে থাকা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) শিক্ষক মাইদুল ইসলামকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি করার অভিযোগে সাবেক এক ছাত্রলীগ নেতা মাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন।

২৫ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাইদুল ইসলামকে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।’

‘যেকোনো অপরাধে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী যদি জেলে থাকেন নিয়ম অনুযায়ী তাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।’

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার অভিযোগে গত ১৭ জুলাই মাইদুল ইসলামকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা ও চাকরিচ্যুতির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীকে স্মারকলিপি প্রদান ও মানববন্ধন করেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

শিক্ষক মাইদুল ইসলামের বিরুদ্ধে গত ২৩ জুলাই হাটহাজারী থানায় তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি আইন-২০০৬ এর ৫৭ ধারায় মামলা করেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মো. ইফতেখার উদ্দিন আয়াজ। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের ১০-১১ সেশনের শিক্ষার্থী ছিলেন।

মামলায় চবি নাট্যকলা বিভাগের ১০-১১ সেশনের শিক্ষার্থী রকিবুল হাসান ও অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী ইমাম উদ্দিন ফয়সাল পারভেজকে সাক্ষী করা হয়েছে।

উচ্চ আদালতের ৮ সপ্তাহের জামিন শেষে গত ২৪ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রামের জেলা ও দায়রা জজ মো. ইসমাইল হোসেনের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন শিক্ষক মাইদুল। শুনানি শেষে আদালত সেটা নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল