সৌদি যুবরাজ মোহম্মাদ বিন সালমান। ছবি: সংগৃহীত

খাশোগি সম্পর্কে সৌদি যুবরাজের কাছে ব্যাখ্যা চাইল যুক্তরাষ্ট্র

খাশোগির গুম হয়ে যাওয়ার বিষয়ে দুইটি সংলাপেই বিস্তারিত ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৩:১৫
আপডেট: ১১ অক্টোবর ২০১৮, ২০:৫৯


সৌদি যুবরাজ মোহম্মাদ বিন সালমান। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) তুরস্কে নিযুক্ত সৌদি আরবের সাংবাদিক জামাল খাশোগি নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার ঘটনায় সৌদি যুবরাজ মোহম্মাদ বিন সালমানের সঙ্গে কথা বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা। সৌদি যুবরাজের সঙ্গে প্রাথমিকভাবে টেলিফোনে কথা বলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন ও ট্রাম্পের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা জামাতা জ্যারেড কুশনার

পরে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সালমানের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে টেলিফোনে কথা বলেন। ইরানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম পার্স টুডে এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে

হোয়াইট হাউস বলছে, খাশোগির গুম হয়ে যাওয়ার বিষয়ে দুইটি সংলাপেই বিস্তারিত ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সৌদি সরকারকে এ ঘটনার তদন্তে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারা স্যান্ডার্স এ বিষয়ে বলেছেন, নিখোঁজ সাংবাদিকের ভাগ্যে কি ঘটে তা দেখার জন্য ওয়াশিংটন নিবিড় দৃষ্টি রেখেছে।

জামাল খাশোগি। ছবি: সংগৃহীত

২ অক্টোবর তুরস্কে নিযুক্ত সৌদি আরবের সাংবাদিক জামাল খাশোগি ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতর থেকে নিখোঁজ হন। তুরস্কের দাবি, খাশোগিকে কনস্যুলেটের ভেতর হত্যা করে তার মরদেহ সরিয়ে ফেলা হয়েছে। তবে সৌদি আরব বলছে ভিন্ন কথা। সৌদি বলছে, খাশোগি সম্পর্কে তুরস্ক যে দাবি করেছে তা মিথ্যা।

সৌদি রাজতন্ত্রের সমালোচক জামাল ২০১৭ সাল থেকে ওয়াশিংটনে স্বেচ্ছা-নির্বাসিত জীবন কাটাচ্ছিলেন। বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র জোগাড়ে মঙ্গলবার তিনি বাগদত্তাকে বাইরে রেখে ইস্তাম্বুলের কনস্যুলেটে প্রবেশ করেন। এরপর থেকেই তার খোঁজ নেই বলে দাবি করেছেন তার বাগদত্তা হেটিস সেনগিজের।

ঘটনাটি যেহেতু তুরস্কে ঘটেছে তাই দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়িপ এরদোয়ান ‘ব্যক্তিগত’ আগ্রহ থেকেই নজর রাখছেন এর ওপর। 

প্রিয় সংবাদ/আশরাফ/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট
পিয়ংইয়ং যাচ্ছেন মাইক পম্পেও
পিয়ংইয়ং যাচ্ছেন মাইক পম্পেও
সময় টিভি - ৫ মাস, ২ সপ্তাহ আগে

loading ...