‘বাজলো ঝুমুর তারার নূপুর’ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া তারকাদের একাংশ। ছবি সংগৃহীত

নাচের মঞ্চে তারকাদের কান্না হাসির গল্প

মঞ্চে আঙুল কেটে রক্ত বের হওয়া, অঝোরে কান্না, অসুস্থ হয়ে শ্বাসকষ্টের মতো ঘটনাগুলো দুই বাংলার নাচের লড়াইয়ের অনুষ্ঠানের শুটিং স্পটে ঘটেছে।

তাশফিন ত্রপা
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৪:৫৩ আপডেট: ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৪:৫৩


‘বাজলো ঝুমুর তারার নূপুর’ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া তারকাদের একাংশ। ছবি সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ‘ভয়ঙ্কর সুন্দর’ ছবির নায়িকা ভাবনা। নাচের মেয়ে হিসেবেও তার বেশ পরিচিতি আছে। তার জন্য নাচ খুব কঠিন কিছু? কিন্তু একটি নাচের অনুষ্ঠানে নাচ করতে গিয়ে ভাবনা মঞ্চেই অসুস্থ হয়ে পড়ে গেলেন। তবে নাচটা শেষ করেছিলেন আগেই। তারপর সবাই দৌড়ে গেল। তাকে পানি পান করান হলো। নিশ্বাস নিতেও কষ্ট হচ্ছে তার। তারপর?

‘আমি আসলে যা করতে চেয়েছিলাম, তা করতে পারিনি। প্লিজ আমাকে আর একবার তোমরা নাচটা দেখাতে সুযোগ দাও। না হয় আমাকে তোমরা নম্বর নাইবা দিলে। কিন্তু নাচটা আর একবার করার সুযোগ দাও!’ এ অনুরোধটি স্টার জলসার মা সিরিয়ালের ঝিলিক চরিত্রের রূপদানকারী অভিনেত্রী তিথির। তিনি নাচতে গিয়ে পায়ের আঙুল কেটে ফেলেন, রক্ত বের হচ্ছে। কিন্তু সে দিকে তার খেয়াল নেই। তার একটাই আবেদন নাচটি ঠিকমতো বিচারকদের কাছে দেখাতে পারেননি। তাই আরও একবার সুযোগ চাইছেন তিনি। বিচারকরা খুবই কঠিন। সিদ্ধান্ত থেকে সরবেন তারা? তিথির কান্না কি পারবে দুই বিচারকের মন গলাতে?

অনুষ্ঠানের থিম ছিল মা। মাকে নিয়ে নৃত্য পরিবেশন করতে গিয়ে ভারতীয় টিভি সিরিয়াল ‘অগ্নীজল’-এর কলাবতি চরিত্রের নায়িকা সোহিনী স্যানাল আবেগ ধরে রাখতে পারলেন না। অঝোরে কাঁদলেন এবং কাঁদালেন।

বাংলাদেশের ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী স্পর্শিয়া সবে মাত্র নাচ শুরু করেছেন। কে জানে, তখনই তার শ্বাসকষ্ট দেখা দেবে। কেউ বুঝতে পারেনি। দেখা গেল মেয়েটি পড়ে যাচ্ছে। ইনহেলার নিয়ে আসা হলো। তাকে সেবা-যত্নে সবাই ব্যস্ত।

টেনশনে খাওয়া-দাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন অমৃতা। সবাই তাকে বোঝাল, খেয়ে নাও। তার একটাই কথা, না, আগে নাচ শেষ করব তারপর খাব। নাচ করলেন। একদম শেষ দিকে গিয়ে মাথা ঘুরে পড়ে গেলেন। শরীরে প্রচণ্ড- জ্বর। তবুও তিনি নাচ ছাড়ছেন না।

এই ঘটনাগুলো কোনো গল্প নয়। নাচের লড়াইয়ের রিয়েলিটি শো ‘বাজলো ঝুমুর তারা নূপুর’-এর শুটিং স্পটে ঘটে যাওয়া অনেকগুলো ঘটনার কয়েকটি ঘটনা মাত্র। ১৫ অক্টোবর থেকে নাগরিক টিভিতে শুরু হচ্ছে অনুষ্ঠানটি। নাচের এ প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠানটি সপ্তাহের প্রতি সোম, মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় প্রচার হবে।

অনুষ্ঠানটির সম্পর্কে প্রিয়.কমের সঙ্গে নাগরিক টিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান কামরুজ্জামান বাবুর সঙ্গে আলাপ হলে তিনি বলেন, ‘দুই বাংলার তারকাদের সঙ্গে ‘বাজলো ঝুমুর তারার নূপুর’ অনুষ্ঠানটি নিয়ে আমার প্রায় সাড়ে তিন বছর ধরে কাজ করেছি। যদিও শুটিং শেষ হয়েছে একমাসে। দুই দেশের শিল্পীদের অংশগ্রহণে নাচের এমন অনুষ্ঠান এর আগে কখনো হয়নি। নাগরিক টিভিই প্রথম দুই দেশের শিল্পীদের নিয়ে এই প্রথম কোনো নাচের প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান করার উদ্যোগ নিল। এই প্রতিযোগিতার ফাইনাল রাউন্ডে থাকবে স্পেশাল ৩টি পর্ব। স্পেশাল ৩টি পর্বসহ টেলিভিশনের পর্দায় প্রচার হবে মোট ৬৯টি পর্ব। শুরুতে এ অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশের নাগরিক টিভিতে প্রচার হবে। এরপর ভারতের একটি চ্যানেলে প্রচার হবে। তবে সত্যি কথা বলতে, এ অনুষ্ঠানে আমাদের দেশের শিল্পীদের সহযোগিতা খুব বেশি। তাদের পরিশ্রমের ফলেই অনুষ্ঠানটি সফলভাবে নির্মাণ সম্ভব হয়েছে।’

‘বাজলো ঝুমুর তারার নূপুর’ অনুষ্ঠানের মঞ্চে তারকারা। ছবি :সংগৃহীত

বাংলাদেশ ও কলকাতার টেলিভিশন এবং চলচ্চিত্র শিল্পীদের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করতে ও উভয় বাংলার সংস্কৃতির ঐতিহ্যের ধারা দুই বাংলার টেলিভিশন দর্শকদের মধ্যে তুলে ধরার জন্যই ‘বাজলো ঝুমুর তারার নূপুর’।

অনুষ্ঠানের মূল প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ ও ভারত থেকে অংশগ্রহণ করেছেন ছয়জন করে মোট ১২ জন তারকা। বাংলাদেশ থেকে যোগ দিয়েছেন টিভি অভিনেত্রী ইশানা, ভাবনা, জান্নাতুল ফেরদৌস পিয়া, স্পর্শিয়া, অমৃতা ও সাফা কবির। কলকাতা থেকে রিমঝিম, সোহিনী, এনা সাহা, লাভলী, তিথি ও প্রীতি।

এ রিয়েলিটি শোয়ে আরও প্রতিযোগিতা করেছেন বাংলাদেশ থেকে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি, টেলিভিশন অভিনেত্রী সাদিয়া জাহান প্রভা ও জাকিয়া বারী মম। কলকাতা থেকে অংশ নিয়েছেন জি বাংলার রাশি সিরিয়ালের রাশি চরিত্রের অভিনেত্রী গিতশ্রী, চিত্রনায়কা পায়েল ও ছোট ঋতুপর্না।

প্রতিটি পর্বে প্রধান বিচারক হিসেবে আছেন বাংলাদেশের ইলিয়াস কাঞ্চন এবং কলকাতার এক সময়ের সাড়া জাগানো নায়িকা ও বর্তমান ভারতীয় লোকসভার সংসদ সদস্য শতাব্দী রায়।

অনুষ্ঠানের নাচছেন তিন তারকা। ছবি সংগৃহীত

বিভিন্ন পর্বে বাংলাদেশ থেকে অতিথি বিচারক হিসেবে যুক্ত আছেন চিত্রনায়িকা মৌসুমী, চিত্রনায়ক ফেরদৗস, সংগীতশিল্পী আঁখি আলমগীর, অভিনেতা তৌকীর আহমেদ ও সজল। আর কলকাতা থেকে সংগীতশিল্পী জোজো, অনিন্ধ, শ্রীলেখা মিত্র ও নৃত্যবিশারদ তনুশ্রী শংকর। প্রতিটি পর্ব যৌথভাবে উপস্থাপনা করেছেন বাংলাদেশের মাসুমা আক্তার নাবিলা ও কলকাতার সৌরভ।

প্রিয় বিনোদন/গোরা 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
প্রিয় অবসর : ২০ অক্টোবর ২০১৮
প্রিয় ডেস্ক ২০ অক্টোবর ২০১৮
আইয়ুব বাচ্চুর মরদেহ চট্টগ্রামে
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ২০ অক্টোবর ২০১৮
বাংলাদেশি তারকাদের পূজা উদযাপন
তাশফিন ত্রপা ১৯ অক্টোবর ২০১৮
পূজা মণ্ডপে বলিউড তারকারা
তাশফিন ত্রপা ১৯ অক্টোবর ২০১৮
হাতে ফুল, চোখে জল নিয়ে বাচ্চুকে বিদায়
মিঠু হালদার ১৯ অক্টোবর ২০১৮
রঙ্গলাল দেব চৌধুরী আর নেই
ইতি আফরোজ ১৯ অক্টোবর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
দুই বাংলার তারাদের নাচ এক টিভিতে
দুই বাংলার তারাদের নাচ এক টিভিতে
https://www.prothomalo.com/ - ৫ দিন, ২২ ঘণ্টা আগে
চারুকলায় নাচে-গানে শরত্ বন্দনা | রাজধানী
চারুকলায় নাচে-গানে শরত্ বন্দনা | রাজধানী
ইত্তেফাক - ৫ দিন, ২২ ঘণ্টা আগে
চারুকলায় নাচে-গানে শরৎ বন্দনা | সংস্কৃতি
চারুকলায় নাচে-গানে শরৎ বন্দনা | সংস্কৃতি
ইত্তেফাক - ৬ দিন, ১ ঘণ্টা আগে
নাচোলে খরায় পুড়ছে আমন ক্ষেত
নাচোলে খরায় পুড়ছে আমন ক্ষেত
সমকাল - ১ week, ২ দিন আগে