প্রতীকী ছবি

উড়িষ্যা-অন্ধ্র উপকূলে আঘাত হেনেছে ‘তিতলি’

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমূদ্র বন্দরসমূহকে ৪ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

হাসান আদিল
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৮:০৫
আপডেট: ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১৯:২০


প্রতীকী ছবি

(ইউএনবি) হ্যারিক্যানের তীব্রতা সম্পন্ন প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’ ভোর সোয়া ৬টার দিকে (স্থানীয় সময়) গোপালপুরের নিকট দিয়ে ভারতের উড়িষ্যা-অন্ধ্র উপকূলে আঘাত হেনেছে। ভারতের আবহাওয়া বিভাগ তিতলিকে ‘খুব মারাত্মক ঝড়’ হিসেবে উল্লেখ করেছে।

১১ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার এ ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানে।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের এক বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ঘূর্ণিঝড় ‘তিতলি’ আরও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে পরবর্তী ২-৩ ঘণ্টার মধ্যে উপকূল অতিক্রম করতে পারে।

প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৭৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের সর্বোচ্চ একটানা গতিবেগ ঘণ্টায় ১২০ কিলোমিটার যা দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ১৪০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রবল ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের নিকটে সাগর বিক্ষুব্ধ রয়েছে।

চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে সমুদ্র বন্দরসমুহকে চার নম্বর স্থানীয় হঁশিয়ারি সংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট