বিএনপির সংবাদ সম্মেলন। ফাইল ছবি

গ‌দি রক্ষায় বিএন‌পি‌কে নিশ্চিহ্ন করার খেলায় মেতে উঠেছেন শেখ হা‌সিনা: রিজভী

নয়াপল্ট‌নে দ‌লের কেন্দ্রীয় কার্যাল‌য়ে আ‌য়ো‌জিত সংবাদ স‌ম্মেল‌নে তি‌নি এ মন্তব্য করেন।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৪:০৭
আপডেট: ১৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৪:০৭


বিএনপির সংবাদ সম্মেলন। ফাইল ছবি

(‌প্রিয়.কম) গদি রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার খেলায় মেতে উঠেছেন বলে মন্তব্য করেছেন বিএন‌পির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাস‌চিব রুহুল ক‌বির রিজভী আহমেদ

১৩ অ‌ক্টোবর, শনিবার বেলা সোয়া ১১টার দি‌কে নয়াপল্ট‌নে দ‌লের কেন্দ্রীয় কার্যাল‌য়ে আ‌য়ো‌জিত সংবাদ স‌ম্মেল‌নে তি‌নি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী ব‌লে‌ন, ‘শেখ হাসিনা বিএনপি দলটিকেই নিশ্চিহ্ন করার খেলায় মেতে উঠেছেন। তা না হলে তার গদি রক্ষা বিপজ্জনক হতে পারে বলে তিনি আশঙ্কা করছেন। শেখ হাসিনার মনে ন্যূনতম সাহস নেই, আছে শুধু ভয়। ক্ষমতা হারানোর ভয়। বিলকুল সব হারিয়ে যাওয়ার ভয়।’

‘বরাবরই সন্ত্রাসের উর্বর জমি হচ্ছে আওয়ামী লীগ। তাদের বক্তৃতা, আচরণ, দেশ শাসন—সর্বত্রই রক্তাক্ত সন্ত্রাসের চিহ্ন দৃশ্যমান। আওয়ামী সন্ত্রাসের ধারা জেনেটিক্যাল। তারা শুধু গুম, খুন আর ক্রসফায়ারের ব্যাপক বিস্তার ঘটাতে আইন-আদালতকে গড়ে তুলেছে রাষ্ট্রীয় টেরোরিজমের হাতিয়ার হিসেবে।’

‌উচিত-অনুচিতের বিষয়ে রিজভী ব‌লেন, ‘একুশে আগস্ট গ্রে‌নেড হামলা মামলায় বিরোধী দলের প্রতি সরকারের আচরণ নিয়ে উচিত-অনুচিতের নানা বিষয় রায়ের পর্যবেক্ষণে তুলে ধরা হয়েছে, সেখানে কিন্তু বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের হত্যার হুমকি দেওয়া উচিত কি না সেটা উল্লেখ করা হয়নি।’

‘তোমরা চুড়ি পরে থাকো, আমাদের একট মারলে ওদের ১০ জনকে মারতে হবে’—বিরোধী দলের প্রতি এই বিপজ্জনক হুমকি কি একজন প্রধানমন্ত্রী দিতে পারেন? প্রশ্ন করেন রিজভী। আওয়ামী লী‌গের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ ক‌রে তিনি ব‌লেন, ‘বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্য কি ‘‘বিশ্বশান্তি সম্মেলনের বাণী’’?’

একু‌শে আগস্ট গ্রে‌নেড হামলা মামলার রায়ের পর্যবেক্ষণ নিয়ে রিজভী বলেন, ‘সরকারের হুকুমে প্রতিদিনই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক বিনা বিচারে মানুষ হত্যার হিড়িক চলছে। এই হিড়িক কি উন্নয়নের নমুনা নাকি রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস? এগুলো একু‌শে আগস্ট গ্রে‌নেড হামলা মামলা রায়ের পর্যবেক্ষণে না থাকলেও এর দায় তো বর্তমান সরকারের কাউকে নিতেই হবে।’

‘বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর দর্পী মানসিকতা কেন রায়ের পর্যবেক্ষণে আসেনি? সাগর-রুনীসহ ৩৩ জন সাংবাদিককে হত্যার দায় কার? এটা কেন রায়ের পর্যবেক্ষণে আসেনি? বোমা হামলা শুরুই হয়েছে আওয়ামী লীগের আমলে। যশোরে উদীচীর অনুষ্ঠানে বোমা হামলা, রমনা বটমূলে বোমা হামলা, কমিউনিস্ট পার্টির জনসভায় পল্টনে বোমা হামলাসহ অসংখ্য বোমা হামলা হয়েছে আওয়ামী লীগের শাসনামলে।’

‘তাহলে এগুলোর রায়ের পর্যবেক্ষণে এলো না কেন? এগুলোর জন্য আওয়ামী লীগ কেন দায়ী নয়? তনু, মিতু, রিশা-দিশাসহ অসংখ্য নারী পাশবিক নির্যাতন ও হত্যার শিকার হচ্ছে। শুধু টাঙ্গাইল জেলাতেই কলেজছাত্রী রুপাসহ চলন্ত বাসে তিন জন নারীকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে। এগুলি দুঃশাসনেরই ফলশ্রুতি। নারী নির্যাতনের এই নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি কেন রায়ের পর্যবেক্ষণে আসেনি?’

‘রায়ের পর্যবেক্ষণে রাষ্ট্রীয় সম্পদ লুটপাটের কথা নাই কেন? বাংলাদেশ ব্যাংক, সোনালী ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, রূপালী ও পুবালী ব্যাংক, ফার্মার্স ব্যাংক, বেসিক ব্যাংকসহ শেয়ার মার্কেট হরিলুটের কথা রায়ের পর্যবেক্ষণে নেই কেন? এগুলো নিয়ে জনগণের মনে নানা প্রশ্ন দানা বাঁধছে।’

আওয়ামী লীগের রেজিষস্ট্রেশন নিয়ে রিজভী বলেন, ‘গণমাধ্যমে তথ্যানুযায়ী ছাত্রলীগের হাতে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত টেন্ডারবাজি ও চাঁদাবাজির ভাগাভাগি নিয়ে খুন হয়েছে ২৭ জন। তাই ওবায়দুল কাদের সাহেবের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, আপনাদের লোকদের কর্তৃক এত খুন-জখমের পরেও কি আওয়ামী লীগের রেজিস্ট্রেশন থাকা উচিত? আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত স্বৈরাচারের টিকে থাকার মূল ভিত্তিই হচ্ছে সহিংস সন্ত্রাস।’

‘ছাত্রদল ঢাকা মহানগর (পূর্ব)-এর সাংগঠনিক সম্পাদক রবিউল ইসলাম নয়নকে গত পরশু হাইকোর্টের গেট থে‌কে গোয়েন্দা পুলিশ ধরে নিয়ে গিয়ে এখনো তার কোনো সন্ধান দিচ্ছে না। ৪২ ঘণ্টা অতিবাহিত হলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নীরব থাকছে। তাদের এই নীরবতা নয়নের পরিবার ও দলের জন্য ভয় ও উদ্বেগজনক। অজানা আশঙ্কায় পরিবার ও দলের নেতাকর্মীরা প্রহর গুনছে। প্রকাশ্য দিবালোকে সাদা পোশাকধারীরা পোশাকধারী পুলিশের কাছ থেকেই তুলে নিয়ে গেছে। সুতরাং নয়ন গোয়েন্দা পুলিশের কাছেই আছে। আমি অবিলম্বে নয়নকে সর্বসম্মুখে হাজির করে পরিবারের সদস্যদের কাছে ফিরিয়ে দিতে আহ্বান জানাচ্ছি।’

সরকা‌রের ক‌ঠোর সমা‌লোচনা ক‌রে রিজভী আরও ব‌লেন, ‘দেশব্যাপী গায়েবি মামলার পর এখন বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদেরকে পাইকারি হারে গ্রেফতার শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। মামলা দায়েরের তামাশা এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, ৯ বছর, দুই বছর ও এক বছর পূর্বে মৃত ব্যক্তিদের নামেও মামলা দেওয়ার কথা আপনাদেরকে অবহিত করেছি। এই মামলা থেকে রেহাই পাননি দীর্ঘদিন থেকে হাসপাতালের বেডে পড়ে থাকা পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগীও। তামাশার আরও নজির দেখতে পাই, টঙ্গীতে ছাত্রলীগ সভাপতির নাম মামলায় চলে আসায় এজাহার পাল্টিয়ে তাকে বাদ দিয়ে নতুন এজাহার দেওয়া হয়েছে।’

‘আমরা গণমাধ্যম থেকে জানতে পারলাম যে দেশব্যাপী বিএনপি নেতাকর্মীদেরকে ধরার জন্য সাঁড়াশি অভিযান চালাতে পুলিশ হেডকোয়ার্টার থেকে ওসিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সুতরাং আইন ও বিচার যে সরকারের সম্পূর্ণ করায়ত্তে সেটার দৃষ্টান্ত বারবার দেওয়ার দরকার নেই। তাই একুশে আগস্ট বোমা হামলার রায় আওয়ামী প্রধানের নির্দেশিত রায়, সেটিও খুব সহজেই জনগণ উপলব্ধি করছে। এই রায়ের পক্ষে জনগণের কোনো সাড়া না পেয়ে ক্ষমতাসীন দলের লোকেরা উন্মা‌দের মতো কথা বলছেন।’

প্রিয় সংবাদ/শিরিন/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
জাপানে বিজয় দিবস উদ্‌যাপিত
প্রিয় ডেস্ক ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
চকলেটে ঢেকে গেল শহরের রাস্তা!
আশরাফ ইসলাম ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
নিম্নচাপ রূপ নিয়েছে ঘূর্ণিঝড়ে
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
রাজনৈতিক দলগুলো টাকা পায় কোথায়
আবু আজাদ ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮
সরকারের হুকুমে খালেদা জিয়ার মনোনয়ন বাতিল: রিজভী
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮
বিএনপি প্রার্থী ফজলুল হক মিলন গ্রেফতার
জানিবুল হক হিরা ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
ভোটের স্বাভাবিক পরিবেশ পাচ্ছি না: ফখরুল
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১২ ডিসেম্বর ২০১৮
ফখরুলের গাড়িবহরে হামলা
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১১ ডিসেম্বর ২০১৮
শেষ মুহূর্তে ২০ দলীয় জোটের ৯ আসনে রদবদল
প্রদীপ দাস ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮
রাজনৈতিক দলগুলো টাকা পায় কোথায়
আবু আজাদ ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮
টিভিতে আজকের খেলা সূচি
টিভিতে আজকের খেলা সূচি
https://www.prothomalo.com/ - ২ দিন, ৪ ঘণ্টা আগে
৫ ঘণ্টা ঘুমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
৫ ঘণ্টা ঘুমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
সময় টিভি - ২ দিন, ৮ ঘণ্টা আগে