জাতীয় প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

জাতীয় ঐক্য ছাড়া সরকারকে সরানো সম্ভব নয়: মোশাররফ

মোশাররফ বলেন, জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির নেতাকর্মীদের নামে লাখ লাখ মামলা দেওয়ার একটাই উদ্দেশ্য। সেটা হলো আবারও বিএনপিকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখা।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:৩৬
আপডেট: ১৩ অক্টোবর ২০১৮, ১৫:৩৬


জাতীয় প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) জাতীয় ঐক্য ছাড়া বর্তমান সরকারকে সরানো সম্ভব নয় ব‌লে মন্তব্য ক‌রে‌ছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন

১৩ অ‌ক্টোবর, শনিবার দুপু‌রে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক প্রতিবাদ সভায় মোশাররফ এ মন্তব্য করেন।

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে সব মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে দোয়া মাহফিল ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী নাগরিক দল।

ওই সভায় মোশাররফ বলেন, ‘অতি শিঘ্রই জাতীয় ঐক্যের রূপরেখার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া হবে।’

দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়ে মোশাররফ বলেন, ‘জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে লাখ লাখ মামলা দেওয়ার একটাই উদ্দেশ্য। সেটা হলো আবারও বিএনপিকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখা, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে বাংলাদেশের রাজনীতি থেকে বিচ্ছিন্ন করা এবং বর্তমানে যারা বিনা ভোটে গায়ের জোরে ক্ষমতায় আছে, তাদের ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করা। মূলত সরকারের অলিখিত বাকশালকে প্রতিষ্ঠা করতেই বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে ভুতুড়ে মামলা দেওয়া হচ্ছে।’

ক্ষমতাসীন সরকারের কাছে কেউ ন্যায়বিচার আশা করে না মন্তব্য করে বিএনপির অন্যতম নীতি নির্ধারক বলেন, ‘যে দেশে প্রধান বিচারপতি নিজে বিচার পাননি, সে দেশে অন্যান্য নাগরিকরা সুবিচার পাবে, এটা আশা করা অত্যন্ত কষ্টকর।’

‘সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা তার বইয়ে লিখেছেন, ‘যে দেশে আমি প্রধান বিচারপতি হয়ে বিচার পাইনি, সে দেশে সাধারণ মানুষ বিচার পাবে, সেটা আমি আশা করি না।’’ খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিষয়েও তাই হয়েছে।’

২১ আগস্ট মামলার রায়ের পর বিএনপির আর নিবন্ধন থাকতে পারে না–আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ এই নেতা। তিনি বলেন, ‘আমরা কোনো হত্যাকাণ্ডকেই সমর্থন করি না। তবে অতীতে রমনার বটমূলে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে কি নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটেনি? পিলখানায় নৃশংস হত্যাকাণ্ড ঘটেনি? এসব ঘটনার জন্য তাহলে অনেক আগেই আওয়ামী লীগের নিবন্ধন বাতিল হওয়া উচিত ছিল।’

ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশে খন্দকার মোশাররফ আরও বলেন, ‘আপনি বেশি কথা বলেন। গ্রামের চায়ের দোকানেও আপনার বক্তব্য নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে।’

খালেদা জিয়াকে ছাড়া অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে না জানিয়ে সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, ‘জনগণের মধ্যে আওয়াজ উঠেছে, এই স্বৈরাচারের হাত থেকে মুক্তি পেতে হলে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে নির্দলীয়, নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। দেশের মানুষ নীতিগতভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে যে, খা‌লেদা জিয়াকে ছাড়া অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হবে না এবং জাতীয় ঐক্য ছাড়া জনগণকে এই স্বৈরাচারী সরকারের হাত থেকে মুক্ত করা সম্ভব হবে না।’

‘জাতীয় ঐক্যের বিষয়ে আমরা অনেক দূর এগিয়েছি। অতি শিগগিরই জাতীয় ঐক্যের রূপরেখার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়া হবে, যার মাধ্যমে দেশের মানুষ তাদের ভোটাধিকার ফিরে পাবে।’

প্রিয় সংবাদ/ইতি/আজহার

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
জাপানে বিজয় দিবস উদ্‌যাপিত
প্রিয় ডেস্ক ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
চকলেটে ঢেকে গেল শহরের রাস্তা!
আশরাফ ইসলাম ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
নিম্নচাপ রূপ নিয়েছে ঘূর্ণিঝড়ে
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
ফোনালাপ বানোয়াট ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, দাবি মোশাররফের
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
৩০ ডিসেম্বর সরকারের পতনের দিন
৩০ ডিসেম্বর সরকারের পতনের দিন
ইনকিলাব - ২ দিন, ৮ ঘণ্টা আগে
নেতাদের মুখে ঐক্য, মাঠে বিভক্ত | কালের কণ্ঠ
নেতাদের মুখে ঐক্য, মাঠে বিভক্ত | কালের কণ্ঠ
কালের কণ্ঠ - ২ দিন, ৯ ঘণ্টা আগে
জাতীয় পার্টির ইশতেহার ঘোষণা আজ | কালের কণ্ঠ
জাতীয় পার্টির ইশতেহার ঘোষণা আজ | কালের কণ্ঠ
কালের কণ্ঠ - ২ দিন, ৯ ঘণ্টা আগে