ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। ছবি: সংগৃহীত

উত্তরখানে আগুনে দগ্ধদের মধ্যে আরও এক নারীর মৃত্যু

গ্যাসের লাইন আগে থেকেই লিকেজ ছিল। দেশলাইয়ের কাঠি জ্বালানোর সঙ্গে সঙ্গেই আগুন লাগে।

জনি রায়হান
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ১০:০১
আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ১০:০১


ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) রাজধানীর উত্তরখান ব্যাপারীপাড়ার একটি বাসায় গ্যাসলাইন লিকেজ হয়ে তিন পরিবারের আট জন দগ্ধ হওয়ার ঘটনায় আরও এক নারী মারা গেছেন।

১৪ অক্টোবর, রবিবার সকাল ৭টার দিকে সুফিয়া বেগম (৫০) নামে এক নারীর মৃত্যু হয় বলে জানান ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া

এর আগে ১৩ অক্টোবর, শনিবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুফিয়ার ভাতিজা আজিজুল ইসলাম (২৭) মারা যান। অাগুনে তার শরীরের ৯৯ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল। এরপর ওইদিন সন্ধ্যায় মারা যান তার স্ত্রী মুসলিমা (২০)। বাকিদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আগুনে দগ্ধ চিকিৎসাধীন অন্যরা হলেন- সুফিয়ার মেয়ে আফরোজা আক্তার পূর্ণিমা (৩০), পূর্ণিমার ছেলে সাগর (১২), সুফিয়ার ভাতিজি ও আজিজুলের বোন আঞ্জু আরা (২৫) ও তার স্বামী ডাবলু মোল্লা (৩৩), তাদের ছেলে আব্দুল্লাহ সৌরভ (৫)।। এরা অধিকাংশই পোশাক শ্রমিক। তাদের বাড়ি পাবনা জেলার ভাঙ্গুরা থানায়। এর আগে শনিবার ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ভবনটির নিচতলায় গ্যাসলাইন লিকেজ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

ফায়ার সার্ভিসের উত্তরা কার্যালয়ের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম জানান, শনিবার ভোরে রান্না করতে গিয়ে আগুনের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসকর্মীরা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন এবং দগ্ধদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে পাঠান। 

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হয়, গ্যাসের লাইন আগে থেকেই লিকেজ ছিল। দেশলাইয়ের কাঠি জ্বালানোর সঙ্গে সঙ্গেই আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে বলে জানান মো. শফিকুল ইসলাম।

প্রিয় সংবাদ/ইতি/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
জাপানে বিজয় দিবস উদ্‌যাপিত
প্রিয় ডেস্ক ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
‘আমরা তোমাদের ভুলবো না’
সৌরভ মাহমুদ ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
চকলেটে ঢেকে গেল শহরের রাস্তা!
আশরাফ ইসলাম ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট