ফাইল ছবি

চট্টগ্রামে পাহাড় ও দেয়াল ধসে মা-মেয়েসহ নিহত ৪

ভারী বর্ষণে পাহাড়ের মাটি নরম হয়ে যায়। এতে বড় গাছ ভেঙে পাহাড়ের নিচে থাকা কয়েকটি কাঁচা-পাকা ঘরের ওপর পড়ে।

ইতি আফরোজ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ১১:০২
আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ১১:০৬


ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) চট্টগ্রাম নগরে পাহাড় ও দেয়াল ধসে মা-মেয়েসহ চার জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন।

১৩ অক্টোবর, শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে নগরীর আকবরশাহ থানার ফিরোজশাহ কলোনির ১নং ঝিল এলাকা ও পাঁচলাইশ থানার রহমান নগরে এ ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে আহত ব্যক্তিদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন- ফিরোজশাহ কলোনির বরিশাল ঘোনার বাসিন্দা একই পরিবারের মা নূর জাহান (৪৫), তার আড়াই বছরের মেয়ে ফয়জুন্নেসা ও বিবি জোহরা (৭০)।

অপরদিকে নগরের পাঁচলাইশ থানার রহমান নগর এলাকায় পৃথক দেয়াল ধসের ঘটনায় নূরে আলম লাল্টু (৩০) নামে এক জন নিহত হন। তিনি রহমান নগরের বাসিন্দা লালমিয়ার ছেলে।

ফায়ার সার্ভিস সূত্র জানায়, প্রবল বৃষ্টিতে ফিরোজশাহ কলোনিতে পাহাড়ধস হয়। এতে মাটিচাপা পড়ে মা ও মেয়ের মৃত্যু  এবং কয়েকজন আহত হন। খবর পেয়ে উদ্ধারকাজ চলায় ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা। আহত ব্যক্তিদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখানে আরও এক জনের মৃত্যু হয়।

চমেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শীলব্রত বড়ুয়া জানান, রাত আড়াইটার দিকে নগরীর আকবরশাহ থানার ফিরোজশাহ কলোনির ১ নম্বর ঝিল এলাকায় পাহাড় ধসে মা-মেয়েসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে বায়েজিদ ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার এনামুল হক জানান, ভারী বর্ষণে পাহাড়ের মাটি নরম হয়ে যায়। এতে বড় গাছ ভেঙে পাহাড়ের নিচে থাকা কয়েকটি কাঁচা-পাকা ঘরের ওপর পড়ে। এ সময় দেয়াল ধসে নূরে আলম লাল্টু মিয়াসহ কয়েকজন আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে লাল্টুর মৃত্যু হয়।

প্রিয় সংবাদ/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
জাপানে বিজয় দিবস উদ্‌যাপিত
প্রিয় ডেস্ক ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
‘আমরা তোমাদের ভুলবো না’
সৌরভ মাহমুদ ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
চকলেটে ঢেকে গেল শহরের রাস্তা!
আশরাফ ইসলাম ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
বদলে যাওয়া সারাকে চিনতে পারেননি মা-ও!
বদলে যাওয়া সারাকে চিনতে পারেননি মা-ও!
এনটিভি - ২ দিন, ৭ ঘণ্টা আগে