প্রতীকী ছবি

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রেক্ষাপটে আন্তর্জাতিক মান

আন্তর্জাতিক মান দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)।

আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ১১:১৯ আপডেট: ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ১১:২০


প্রতীকী ছবি

(প্রিয়.কম) আন্তর্জাতিক মান দিবস আজ (১৪ অক্টোবর, রবিবার)। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের প্রেক্ষাপটে আন্তর্জাতিক মান’।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন করা হচ্ছে। এ উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। খবর বাসস।

এরই অংশ হিসেবে বিএসটিআইয়ের প্রধান কার্যালয়ের পাশাপাশি আঞ্চলিক অফিসসমূহে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে। বাংলাদেশ টেলিভিশনে বিশেষ সাক্ষাতকারভিত্তিক আলোচনা অনুষ্ঠান এবং বাংলাদেশ বেতারে আলোচনা অনুষ্ঠান ও কথিকা সম্প্রচারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ ছাড়া আন্তর্জাতিক মান দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।

দিবসটি উপলক্ষে দেওয়া বাণীতে পণ্যের মান প্রণয়ন ও উন্নয়নের মাধ্যমে জনগণকে কাঙ্ক্ষিত সেবা প্রদানে বিএসটিআইকে আরও দক্ষ, জবাবদিহি ও দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে বলে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক মান অনুসরণের মাধ্যমে আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর ও গুণগত মানসম্পন্ন শিল্পোৎপাদন বাড়ালে বিশ্বের সব দেশে বাণিজ্য সহজতর হবে এবং নতুন নতুন পণ্যের বাজার সৃষ্টির সম্ভাবনার পথও সুগম হবে।’

‘আমি আশা করি, বিএসটিআই পণ্য ও সেবার জন্য সময়োপযোগী আন্তর্জাতিক মান বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশের জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের মাধ্যমে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে ভূমিকা রাখবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী ইতিমধ্যে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের ছোঁয়া লেগেছে। শিল্প বিপ্লবের এ অগ্রযাত্রায় আন্তর্জাতিক মান গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। বিশ্বব্যাপী অধিকতর উন্নত জীবনের চাহিদার প্রেক্ষিতে এ যুগ হবে অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক। এই প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে টিকে থাকতে হলে নতুন উদ্ভাবিত প্রযুক্তির পরিবর্তনগুলো গ্রহণ ও বাস্তবায়ন দ্রুততম সময়ের মধ্যে করতে হবে।’

সমাজ ও রাষ্ট্রের অধিকতর উন্নতির জন্য আন্তর্জাতিক মান অনুসরণীয় বিনির্দেশ হিসেবে কাজ করে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বর্তমানে মানুষের শারীরিক পরিশ্রমের স্থানে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন রোবট প্রতিস্থাপিত হচ্ছে।’

‘যথাযথ নিরাপত্তার মাধ্যমে হ্যাকারদের থেকে আমাদের গুরুত্বপূর্ণ ডাটাসমূহকে নিরাপদ রাখা যাচ্ছে। নাগরিকদের জন্য দ্রুততম ও আধুনিক পরিবহন ব্যবস্থা হিসেবে ইলেকট্রিক মেট্রোরেল সংযোজিত হয়েছে, যা বাংলাদেশেও অচিরেই বাস্তবায়িত হবে।’

প্রিয় সংবাদ/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
খাসোগি হত্যায় প্রকাশ্যে এলো নতুন তথ্য
আশরাফ ইসলাম ২২ অক্টোবর ২০১৮
‘আইন মেনে চলব, নিরাপদ সড়ক গড়ব’
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ২২ অক্টোবর ২০১৮
১৯ মাস পর ঘোড়াশালে ইউরিয়া উৎপাদন শুরু
আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন ২২ অক্টোবর ২০১৮
ট্রাকচাপায় বাবার পর আহত ছেলের মৃত্যু
কাঞ্চন কুমার ২২ অক্টোবর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট
ট্রেন্ডিং