বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন, আয়শা টাকিয়া, কিম শর্মা, নম্রতা শিরোদকর ও অমৃতা রাও। ছবি: সংগৃহীত

বলিউড থেকে হারিয়ে যাওয়া আবেদনময়ী অভিনেত্রীরা

নানা করণে, অকারণে অর্জিত সব অর্জন ফেলে রেখে চলে যান আবেদনময়ী অভিনেত্রীরা।

তাশফিন ত্রপা
লেখক
প্রকাশিত: ২১ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:৩১ আপডেট: ২১ অক্টোবর ২০১৮, ১৭:৩২


বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন, আয়শা টাকিয়া, কিম শর্মা, নম্রতা শিরোদকর ও অমৃতা রাও। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) বহু কাটখড় পুড়িয়ে বলিউড ছবিতে অভিনয় শুরু করেন অনেকেই। এরপর অভিনয়ের লড়াইয়ে সফল হওয়া শিল্পীরা অর্জন করেন তাদের জনপ্রিয়তা। দক্ষতার মাধ্যমে সুনাম কুড়ান অসংখ্য ভক্তের। সফলতার চূড়ায় এসে অনেকেই আবার নানা করণে, অকারণে অর্জিত সব অর্জন ফেলে রেখে চলে যান। অনেকে আবার অল্পতেই রাতারাতি তারকা বনে যান, আবার রাতারাতি বিদায়ও নেন।

সুস্মিতা সেন: ১৯৯৬ সালে ‘দস্তক’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক ঘটে মিস ইউনিভার্স সুস্মিতা সেনের। এরপর ‘ম্যায় হুঁ না’,‘বিবি নং ১’, ‘স্রিফ তুম’ ও ‘মেয়নে পেয়ার কিউ কিয়া’ ছবির মতো ছবি উপহার দিয়েছেন তিনি। কিন্তু ২০১০ সালে ‘নো প্রোবলেম’ ছবির পর বলিউডের আর কোনো ছবিতে অভিনয় করেননি তিনি।

আয়শা টাকিয়া: ২০০৪ ‘টারজান দ্য ওয়ান্ডার কার’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্যদিয়ে বলিউডের অভিষেক হয় আয়শা টাকিয়ার। ২০০৪ সাল থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত চুটিয়ে অভিনয় করেছেন তিনি। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য ছবিগুলোর মধ্যে আছে ‘দিল মাঙ্গে মোর’, ‘শাদী নম্বর ওয়ান’, ‘সুপার’, ‘হোম ডেলিভারি’ ও ‘ওয়ান্টেড’সহ অসংখ্য ছবি। অবশেষে ২০১১ সালে মুক্তি পাওয়া ‘মড’ ছবির পর আর কোনো ছবিতে অভিনয় করেতে দেখা যায়নি মিষ্টি হাসির এ অভিনেত্রীকে।

শমিতা শেঠি: বলিউড অভিনেত্রী শমিতা শেঠি। শিল্পা শেঠির বোন তিনি। ২০০০ সালে মুক্তি পাওয়া ‘মোহাব্বাতিন’ ছবির মধ্যদিয়ে বলিউডে পা রাখেন শমিতা। এরপর বেশ কিছু বলিউড ছবিতে অভিনয় করেন। বলিউডে তার অভিনীত শেষ ছবি ‘ক্যাশ’ মুক্তি পায় ২০০৭ সালে। এরপর কোনো ছবিতে অভিনয় করেননি তিনি।

অমৃতা রাও: ২০০২ সালে ‘অবকে বরস’ ছবিতে অভিনয় করে বলিউডের অভিনয় শুরু করেন অমৃতা রাও। এরপর আরও ২৩টি ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। ২০১৩ সালে মুক্তি পাওয়া ‘সত্যাগ্রহ’ ছবির পর বলিউডের আর কোনো ছবিতে দেখা যায়নি তাকে।

নম্রতা শিরোদকর: ১৯৯৮ সালে মুক্তি পাওয়া ‘জব পেয়ার কিসিসে হোতা হ্যায়’ ছবিটি ছিল নম্রতা শিরোদকরের অভিনীত প্রথম বলিউড ছবি। ২০০৪ সাল পর্যন্ত বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। ২০০৪ সালে মুক্তি পাওয়া ‘রোক সাকো তো রোক লো’ ছবিটি ছিল নম্রতার অভিনীত শেষ ছবি। ২০০৫ সালে তেলেগু সুপারস্টার মহেশ বাবুকে বিয়ের পর থেকে আর কোনো ছবিতে অভিনয় করতে দেখা যায়নি তাকে।

কিম শর্মা:২০০০ সালের মোহাব্বাতিন’ ছবির মধ্যদিয়ে বলিউডে পা দেন কিম শর্মাও। ২০০৬ সালের ‘জিন্দগি রকস’ ছবির পর তাকে আর বলিউড ছবিতে দেখা যায়নি।

সূত্র: এমএসএন

প্রিয় বিনোদন/গোরা 

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
প্রিয় অবসর : ১৯ নভেম্বর ২০১৮
প্রিয় ডেস্ক ১৯ নভেম্বর ২০১৮
সাফা ও ইরফানের প্রেমের গল্প
তাশফিন ত্রপা ১৮ নভেম্বর ২০১৮
জেমসের গান, পুরস্কৃত সোহানী হোসেন
নিজস্ব প্রতিবেদক ১৮ নভেম্বর ২০১৮
তাহসান-কনার গানের ভিডিওতে মেহজাবিন
তাশফিন ত্রপা ১৮ নভেম্বর ২০১৮
ঢাকায় ‘রবিন হুড’
প্রিয় ডেস্ক ১৮ নভেম্বর ২০১৮
স্পন্সরড কনটেন্ট