মে দিবস শ্রমজীবী মানুষের ন্যায্য অধিকারের প্রতীক। ছবি: সংগৃহীত

ত্রিপুরায় সরকারি ছুটির তালিকা থেকে মে দিবস বাদ

মে দিবসকে নিয়মিত ছুটির তালিকায় আনার জন্য অবিলম্বে সরকারি হস্তক্ষেপ দাবি করেছে সিপিএম।

আজাদ চৌধুরী
জ্যেষ্ঠ সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ১২:২৮ আপডেট: ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ১২:২৮
প্রকাশিত: ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ১২:২৮ আপডেট: ০৬ নভেম্বর ২০১৮, ১২:২৮


মে দিবস শ্রমজীবী মানুষের ন্যায্য অধিকারের প্রতীক। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ভারতের রাজ্য সরকারের নিয়মিত ছুটির তালিকা থেকে মে দিবসকে বাদ দেওয়া হয়েছে। ত্রিপুরার বিজেপি শাসিত সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার বদলে এই দিনটিকে সংরক্ষিত ছুটির তালিকায় নিয়ে এসেছে। সিদ্ধান্তটির তীব্র নিন্দা করেছে ত্রিপুরার প্রধান বিরোধী দল সিপিএম।

এনডিটিভির প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানা যায়, গত শনিবার মুখ্যসচিব এস কে দেববর্মার তরফ থেকে সরকারিভাবে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। যেখানে বলা হয়, রাজ্য সরকারি কর্মীরা তাদের ১২টি সংরক্ষিত ছুটির মধ্যে থেকে চারটি ছুটি নিতে পারবেন। ওই সংরক্ষিত ছুটির তালিকায় রাখা হয়েছে মে দিবসকেও।

এদিকে মে দিবসকে নিয়মিত ছুটির তালিকায় আনার জন্য অবিলম্বে সরকারি হস্তক্ষেপ দাবি করেছে সিপিএম। দলের পক্ষ থেকে রবিবার এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। সেখানে বলা হয়, ‘রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্ত সব শ্রমজীবী ও খেটে খাওয়া মানুষের স্বার্থের পরিপন্থী।’

১৯৭৮ সালে ত্রিপুরার প্রথম মুখ্যমন্ত্রী নৃপেন চক্রবর্তী মে দিবসকে রাজ্য সরকারের নিয়মিত ছুটির তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেন।

প্রিয় সংবাদ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...