চিকিৎসকদের অনুমতি ছাড়া অন্য কাউকে দিয়ে একটি ছাড়পত্র লেখা হয়েছে। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ফাইল ছবি

অসুস্থ খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠানোর অভিযোগ ফখরুলের

হুইলচেয়ারে করে খালেদা জিয়াকে আদালতে নেওয়া হয়। তার সঙ্গে কথা বলতে চাইলেও অনুমতি পাননি মির্জা ফখরুল।

মোক্তাদির হোসেন প্রান্তিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৪:৫৯ আপডেট: ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৮:৩২
প্রকাশিত: ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৪:৫৯ আপডেট: ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ১৮:৩২


চিকিৎসকদের অনুমতি ছাড়া অন্য কাউকে দিয়ে একটি ছাড়পত্র লেখা হয়েছে। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতাল থেকে কারাগারে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

৮ ন‌ভেম্বর, বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টার দিকে পুরান ঢাকার জেল গেটে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ অভিযোগ করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশনেত্রী খালেদা জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ, জোর করে তাকে কারাগারে নিয়ে আসা হয়েছে। পিজিতে চিকিৎসাধীন ছিলেন খালেদা জিয়া। তার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তিনি অত্যন্ত অসুস্থ। কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, চিকিৎসকদের অনুমতি ছাড়া অন্য কাউকে দিয়ে একটি ছাড়পত্র লিখিয়ে জোর করে তাকে কারাগারে নিয়ে আসা হয়েছে। সম্পূর্ণ রাজনৈতিক কারণে এটা করা হয়েছে।’

‘কারাগারে আমরা দেখলাম দেশনেত্রী অত্যন্ত অসুস্থ। তিনি হুইলচেয়ারে বসতে পারছিলেন না। এর মধ্যে আদালত পরিচালনা করা হয়। আমি দেশ‌নেত্রীর সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিলাম কিন্তু আমাকে অনুমতি দেওয়া হয়নি। অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসা শেষ না করে জোর করে কারাগারে নিয়ে আসা অমানবিক। আমরা এর নিন্দা জানাই। আমরা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানাচ্ছি।’

নাইকো দুর্নীতি মামলায় শুনানির জন্য বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে খালেদাকে পুরান ঢাকার নাজিমুদ্দিন রোডের সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে নেওয়া হয়

এর আগে বেলা ১১টা ২২ মিনিটে খালেদা জিয়াকে নিয়ে হাসপাতাল ছাড়ে কারা কর্তৃপক্ষ।

বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসার নির্দেশনা চেয়ে রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ৪ অক্টোবর খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) ভর্তির নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। ওই নির্দেশ অনুযায়ী গত ৬ অক্টোবর বিকেল ৩টার পর খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে নেওয়া হয়

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে সাবেক কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন খালেদা জিয়া।

প্রিয় সংবাদ/শিরিন/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

বিএনপি এখন কী করবে?

প্রিয় ২ দিন, ১৩ ঘণ্টা আগে

বিএনপি এখন কী করবে?

প্রিয় ২ দিন, ১৩ ঘণ্টা আগে

loading ...