হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তোলেন কিউই ব্যাটসম্যান রস টেলর। ছবি: সংগৃহীত

হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলে শাস্তির মুখে টেলর!

এবার আম্পায়ার নন, পাকিস্তানি অফস্পিনারের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যান।

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ২০:১৬ আপডেট: ০৮ নভেম্বর ২০১৮, ২০:১৬


হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তোলেন কিউই ব্যাটসম্যান রস টেলর। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মোহাম্মদ হাফিজের অভিষেক ২০০৩ সালে। ক্যারিয়ারের প্রায় এক যুগ নির্বিঘ্নে কাটলেও বিপত্তি দেখা দেয় ২০১৪ সালে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে প্রথমবারের মতো বোলিং অ্যাকশন প্রশ্নবিদ্ধ হয় তার।

সেটাই শুরু! এরপর একাধিকবার প্রশ্ন উঠেছে হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে। পরীক্ষা দিয়েছেন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) ল্যাবে।

নিষিদ্ধ হয়েছে বোলিং অ্যাকশন, আবার নিষেধাজ্ঞা কাটিয়েও ফিরেছেন। কিন্তু থামেনি হাফিজের এই বোলিং অ্যাকশন নিয়ে চলমান প্রশ্নোত্তর পর্ব। সর্বশেষ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে প্রশ্ন উঠেছে হাফিজের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে।

এবার আম্পায়ার নন, পাকিস্তানি অফস্পিনারের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যান রস টেলর। কিন্তু ডানহাতি এই কিউই ব্যাটসম্যানের এমন আচরণ মোটেও ভালোভাবে নেয়নি পাকিস্তান। টেলরের বিরুদ্ধে ম্যাচ রেফারির কাছে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ জানানোর সিদ্ধান্তও নিয়েছে পাকিস্তানের টিম ম্যানেজমেন্ট। তাতে হয়তো বেশ বড় বিপদেই পড়তে যাচ্ছেন রস টেলর।

বুধবার আবুধাবিতে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে নিউজিল্যান্ডের মুখোমুখি হয় স্বাগতিক পাকিস্তান। এই ম্যাচে ৬ ওভারে ২৩ রান খরচ করেও কোনো উইকেট পাননি হাফিজ। জুটেছে বোলিং অ্যাকশন নিয়ে অভিযোগ। এদিন ইনিংসের পঞ্চম ওভারে হাফিজের হাতে বল তুলে দেন অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। কিন্তু এই ওভারেই আম্পায়ারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন টেলর। হাত নাড়িয়ে ইঙ্গিত করেন, চাকিং করছেন পাকিস্তানি স্পিনার।

এভাবেই হাত নাড়িয়ে চাকিংয়ের ইঙ্গিত করেন রস টেলর। ছবি: সংগৃহীত

আম্পায়াররা অবশ্য হাফিজের বোলিংয়ে কোনো বাধা দেননি। তবে ঘটনার প্রতিবাদ করতে সময় মোটেও নেননি পাকিস্তানি অধিনায়ক। আম্পায়ারের সঙ্গে তাকে অনেকটা সময় কথা বলতে দেখা যায়। পরে টেলরের সঙ্গেও সরফরাজের উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় হয়।

সেখানেই থেমে থাকেনি। ম্যাচ শেষেও ক্ষোভ প্রকাশ করেন পাকিস্তানি অধিনায়ক। টেইলরের এমন অঙ্গভঙ্গি অপমানজনক উল্লেখ করে সরফরাজ বলেন, ‘আমি বলব টেইলরের এমন অ্যাকশন ঠিক ছিল না। টিভির কাজ তার করা মোটেও ঠিক না। এটা আমার জন্য অপমানজনক। তার কাজ হচ্ছে ব্যাটিং করা। তার সেখানেই মনোসংযোগ করা ভালো। আমি আম্পায়ারের কাছে অভিযোগ করেছি, তার কর্মকাণ্ড স্পোর্টসম্যানশিপের মধ্যে পড়ে না।’

সরফরাজের বিরক্তিতেই এই সমস্যার সমাধান হচ্ছে না। টেলরের বিরুদ্ধে ম্যাচ রেফারির কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান টিম ম্যানেজমেন্ট। আর তাতে শাস্তির মুখে পড়তে পারেন নিউজিল্যান্ডের এই টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান।

প্রিয় খেলা/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট
বোলিংয়ের অনুমতি পেলেন মোহাম্মদ হাফিজ
বোলিংয়ের অনুমতি পেলেন মোহাম্মদ হাফিজ
বাংলা নিউজ ২৪ - ৬ মাস, ৩ সপ্তাহ আগে
ট্রেন্ডিং