পুলিশের ধারণা গণধর্ষণ শেষে নির্যাতিতার গোপনাঙ্গে কাঠি ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রতীকী ছবিটি সংগৃহীত

গণধর্ষণ ও গোপনাঙ্গে কাঠি ঢুকিয়ে দেওয়ার অভিযোগ, প্রাক্তন স্বামী গ্রেফতার

কালী পূজার দিন নাটক দেখতে গিয়েছিলেন ওই নারী। সে সময় রাস্তা থেকে তাকে তুলে নিয়ে যান তার প্রাক্তন স্বামী এবং তার দুই সঙ্গী।

আজাদ চৌধুরী
জ্যেষ্ঠ সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৩২ আপডেট: ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৩২
প্রকাশিত: ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৩২ আপডেট: ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১১:৩২


পুলিশের ধারণা গণধর্ষণ শেষে নির্যাতিতার গোপনাঙ্গে কাঠি ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রতীকী ছবিটি সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) ভারতের ঝাড়খন্ডে এক নারীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শুধু তা-ই নয়, ধর্ষণ শেষে ওই নারীর গোপানাঙ্গে কাঠি ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে অনুমান করছে পুলিশ। এর জেরে মৃত্যু হয়েছে নির্যাতিতার। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ওই নারীর প্রাক্তন স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, কালী পূজার দিন নাটক দেখতে গিয়েছিলেন ওই নারী। সে সময় রাস্তা থেকে তাকে তুলে নিয়ে যান তার প্রাক্তন স্বামী এবং তার দুই সঙ্গী। এরপর একটি মাঠে নিয়ে তাকে গণধর্ষণ করেন।

সারা রাত মাঠেই পড়ে থাকেন ওই নারী। পরদিন সকালে তার আর্তনাদ শুনতে পেয়ে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নারায়ণপুর শহরের হাসপাতালে নিয়ে যান। তার অবস্থা গুরুতর ছিল বলে পরে তাকে সেই হাসপাতাল থেকে জামাত্রা সর্দার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় পুলিশের কর্মকর্তা বিএন সিং জানান, স্থানীয়রা পুলিশকে জানিয়েছেন মাঠ থেকে উদ্ধার করার সময় নির্যাতিতা জানিয়েছিলেন তার প্রাক্তন স্বামী ও তার সঙ্গীরা তাকে নির্যাতন করেছেন।

বিএন সিং জানান আরও জানান, ধারণা করা হচ্ছে, ধর্ষণের পর নির্যাতিতার গোপনাঙ্গে কাঠি ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মৃতার প্রাক্তন স্বামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি দুই অভিযুক্তকে ধরতে পুলিশি তল্লাশি চলছে।

প্রিয় সংবাদ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...