চীনের ওই প্রতিষ্ঠানে সব ধরনের শাস্তি দেওয়া হতো প্রকাশ্যে। ছবি: সংগৃহীত

নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে না পারার শাস্তি মূত্রপান!

ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ, শ্রমিকরা নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে না পারলে শাস্তি দেওয়ার নামে অমানবিক অত্যাচার করা হতো।

আশরাফ ইসলাম
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:৩৪ আপডেট: ১০ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:৩৪
প্রকাশিত: ১০ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:৩৪ আপডেট: ১০ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:৩৪


চীনের ওই প্রতিষ্ঠানে সব ধরনের শাস্তি দেওয়া হতো প্রকাশ্যে। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) কর্তৃপক্ষের প্রত্যাশা অনুযায়ী ও নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে না পারলে মূত্রপান করানো হয়, পোকামাকড়ও খাওয়ানো হয়। কখনো কখনো বেত ও বেল্ট দিয়েও মারাও হয় কর্মীদের। 

চীনের গুইঝাও প্রদেশে এমন অমানুষিক অত্যাচার সহ্য করতে হয়েছে গৃহসজ্জা নির্মাণকারী একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের। আর এই খবর সবার সামনে নিয়ে এসেছে দেশটির একটি সংবাদমাধ্যম। ওই সব ঘটনার বেশ কিছু ভিডিও ফুটেজও ইতোমধ্যে চীনের মিডিয়াগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে।

বিজনেস ইনসাইডারএই সময়ের প্রতিবেদনে জানানো হয়, ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ রয়েছে। সেখানে মালিকপক্ষের নির্দেশ অনুযায়ী শ্রমিকরা নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে না পারলে শাস্তি দেওয়ার নামে শ্রমিকদের অমানবিক অত্যাচার করা হতো। 

মালিকপক্ষের বিরুদ্ধে বেতন আটকে রাখা ছাড়াও শৌচাগার থেকে মূত্রপান, তেলাপোকা চিবিয়ে খেতে বাধ্য করা, মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া, কমোডে মুখ ঢুকিয়ে সেই পানি পান করতেও বাধ্য করার অভিযোগও রয়েছে।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, প্রতিষ্ঠানের অন্য শ্রমিকদের সামনেই এসব শাস্তি দেওয়া হতো। এত অত্যাচারের পরও বেশির ভাগ শ্রমিক চাকরি ছাড়তেন না। এ ঘটনায় প্রতিষ্ঠানের মালিকপক্ষের তিন জনের মধ্যে দুজনকে ১০ দিনের এবং এক জনকে ৫ দিনের কারাদণ্ড ভোগ করতে হয়েছে।  

প্রিয় সংবাদ/আজহার