গোলের পর নেইমারের উচ্ছ্বাস। এই গোলেই যে জয় নিশ্চিত হয় সেলেসাওদের। ছবি : মেইল অনলাইন

নেইমারের গোলে হারল উরুগুয়ে

একমাত্র গোলটিও হজম করে ফাউলের কারণে। নিজেদের ডি বক্সে ফাউল করে বসেন বার্সেলোনার উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১১:২৮ আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১১:২৮
প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১১:২৮ আপডেট: ১৭ নভেম্বর ২০১৮, ১১:২৮


গোলের পর নেইমারের উচ্ছ্বাস। এই গোলেই যে জয় নিশ্চিত হয় সেলেসাওদের। ছবি : মেইল অনলাইন

(প্রিয়.কম) ল্যাটিন আমেরিকার অন্যতম সেরা দুই দল ব্রাজিল আর উরুগুয়ে। আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে শুক্রবার দিবাগত রাতে ইংলিশ ক্লাব আর্সেনালের মাঠ এমিরেটসে একে অপরের মুখোমুখি হয় তারা।

প্রীতি ম্যাচে দুই দলই নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলতে শুরু করে। প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি কেউ। অবশেষে দ্বিতীয়ার্ধের ৭৬ মিনিটে আসে সেই মুহূর্ত। পেনাল্টিতে গোল করে ব্রাজিলকে প্রথম এগিয়ে দেন দলের সেরা তারকা নেইমার। পরের সময়টাতে আর কোনো দল গোল না পেলে নেইমারের করা একমাত্র গোলেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তিতের দল।

এই ম্যাচে সুয়ারেজ-কাভানিরা ছয়টি হলুদ কার্ডের দেখা পায়। এই পরিসংখ্যানটাই বলে দিচ্ছে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়দেরকে কী পরিমাণ ফাউল করার চেষ্টা করেছেন অস্কার তাবারেজের শিষ্যরা। একমাত্র গোলটিও হজম করে ফাউলের কারণে। নিজেদের ডি বক্সে ফাউল করে বসেন বার্সেলোনার উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজ। আর সেই পেনাল্টির কারণেই হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় উরুগুয়ের।

উরুগুয়ের বিপক্ষে ব্রাজিলের জার্সিতে এদিন ক্যারিয়ারের ৬০তম গোলটি করেন নেইমার। ৯৫ ম্যাচ থেকে এই গোল করেন প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার। এই সময়ে সতীর্থদের দিয়ে আরও ৪১ গোল করাতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন নেইমার।

ব্রাজিলের কিংবদন্তি রোনালদোর চেয়ে আর মাত্র দুই গোল পিছিয়ে নেইমার। সেলেসাওদের হয়ে রোনালদোর গোলসংখ্যা ৬২। ব্রাজিলের সর্বোচ্চ গোলদাতা এখনও পেলে। ৭৭ গোল করে দেশটির সর্বোচ্চ গোলদাতার শীর্ষে অবস্থান করছেন পেলে। আর মাত্র ১৭ গোল করলেই পেলেকে ছুঁয়ে ফেলবেন ২৬ বছর বয়সী নেইমার। 

সূত্র : বিবিসি

প্রিয় খেলা/রুহুল