মরদেহ দুটি কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতীকী ছবি

টেকনাফে গুলিতে দুই ‘মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত

ঘটনাস্থল থেকে এক লাখ ইয়াবা বড়ি, স্থানীয়ভাবে তৈরি দুটি বন্দুক ও ৮ রাউন্ড গুলি জব্দ করা হয়েছে।

আয়েশা সিদ্দিকা শিরিন
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৮, ১০:২৭ আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৮, ১০:২৮
প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৮, ১০:২৭ আপডেট: ২০ নভেম্বর ২০১৮, ১০:২৮


মরদেহ দুটি কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রতীকী ছবি

(ইউএনবি) কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় গুলিতে দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) দাবি, নিহত ব্যক্তিরা মাদক ব্যবসায়ী এবং বন্দুকযুদ্ধে তারা নিহত হন।

২০ নভেম্বর, মঙ্গলবার ভোরে টেকনাফ স্থলবন্দরসংলগ্ন কেরুনতলী এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধ হয়।

নিহত ব্যক্তিরা হলেন—ময়মনসিংহের কোতোয়ালি এলাকার মো. আব্দুল হাকিমের ছেলে আশিক জাহাঙ্গীর কুদরত (৩২) ও মুন্সিগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া এলাকার আব্দুল বারেকের ছেলে মো. আরিফ হোসেন (৩০)।

র‌্যাবের ভাষ্য, ভোরে কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের ঘটনাস্থল এলাকায় চেকপোস্টের সামনে কক্সবাজারগামী একটি ট্রাককে সিগন্যাল দিলে ট্রাক থেকে র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়া হয়। আত্মরক্ষায় র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়।

র‌্যাবের টেকনাফ কার্যালয়ের লেফটেন্যান্ট মির্জা সাহেদ বলেন, ‘পরে ট্রাকটির নিচ থেকে দুটি মরদেহ উদ্ধার করা হয় এবং এক লাখ ইয়াবা বড়ি, স্থানীয়ভাবে তৈরি দুটি বন্দুক ও ৮ রাউন্ড গুলি জব্দ করা হয়েছে।’

মির্জা সাহেদের ভাষ্য, বন্দুকযুদ্ধের সময় মাদক কারবারিদের আরও দুই-তিনজন পালিয়ে গেছেন। তাদের গুলিতেই এই দুজন নিহত হয়েছেন।

নিহতদের মরদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান র‌্যাব কর্মকর্তা মির্জা সাহেদ।

প্রিয় সংবাদ/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...