বিচারিক আদালতকে ছয় মাসের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

গ্যাটকো মামলা বাতিলের রুল খারিজ

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে গ্যাটকো মামলার আসামিদের নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:০৪ আপডেট: ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:০৪
প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:০৪ আপডেট: ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ১৫:০৪


বিচারিক আদালতকে ছয় মাসের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা গ্লোবাল এগ্রোট্রেড প্রাইভেট কোম্পানি লিমিটেড তথা গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা বাতিলে জারি করা রুল খারিজ করে দিয়েছে হাইকোর্ট।

২৫ নভেম্বর, রবিবার বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে এ রায় দেন।

গ্যাটকো নামের প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক সৈয়দ গালিব আহমেদ, সৈয়দ তানভীর আহমেদের এক আবেদনের প্রেক্ষিতে রুল জারি করেছিল আদালত।

রবিবার আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

আদালত থেকে বেরিয়ে আমিন উদ্দিন মানিক সাংবাদিকদের জানান, রুল খারিজ ও স্থগিতাদেশ তুলে নেওয়া হয়েছে। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে এই আসামিদের নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারিক আদালতকে ছয় মাসের মধ্যে মামলা নিষ্পত্তির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এর ফলে খালেদা জিয়ার গ্যাটকো মামলা নিম্ন আদালতে চলতে আর কোনো বাধা রইল না।

সৈয়দ গালিব আহমেদের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার আজমালুল হোসেন কিউসি। আর সৈয়দ তানভীর আহমেদের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আহসানুল করিম।

এর আগে ১১ নভেম্বর এ রুল শুনানি শেষ হয়।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০০৮ সালের ২৯ জুলাই মামলাটি বাতিলের রুল নিশি জারি ও মামলার কার্যক্রম স্থগিত ও আসামিদের জামিন দেওয়া হয়। এ কারণে দীর্ঘ ১০ বছর ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৩-এ মামলাটির কার্যক্রম বন্ধ আছে।

এ বিষয়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মানিক জানান, অনভিজ্ঞ ও অদক্ষ গ্যাটকোকে বেআইনি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে সরকারি কাজ পাইয়ে দেওয়া হয়। এ কারণে সরকারের এক হাজার কোটি টাকা ক্ষতিসাধনের অভিযোগ এনে দুদকের উপপরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী ২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর তেজগাঁও থানায় মামলা করেন।

মামলায় খালেদা জিয়া, আরাফাত রহমান কোকো, সাবেক নৌপরিবহনমন্ত্রী আকবর হোসেন, তার ছেলে ইসমাইল হোসেন সায়মন, সৈয়দ গালিব আহমেদ, সৈয়দ তানভীর আহমেদসহ ১৩ জনকে আসামি করা হয়।

প্রিয় সংবাদ/শিরিন/আজহার

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...