বাংলামোটরে বাবার হাতে খুন হওয়া শিশুর লাশ। ছবি: সংগৃহীত

বাংলামোটরে উদ্ধার হওয়া শিশুর ময়নাতদন্ত সম্পন্ন

সোহেল মাহমুদ জানান, সাফায়েতের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। প্রাথমিকভাবে কপালে ছোট আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ ছাড়া মস্তিষ্ক ও লিভারে সমস্যা পাওয়া গেছে এবং কারণ নিশ্চিতে কিছু পরীক্ষা করা হবে।

মোস্তফা ইমরুল কায়েস
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:৩৭
আপডেট: ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৭:১৬


বাংলামোটরে বাবার হাতে খুন হওয়া শিশুর লাশ। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) রাজধানীর বাংলামোটরে বাসা থেকে উদ্ধার হওয়া শিশু সাফায়েতের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে।

৬ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের চিকিৎসক সোহেল মাহমুদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

সোহেল মাহমুদ জানান, সাফায়েতের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। প্রাথমিকভাবে কপালে ছোট আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। এ ছাড়া মস্তিষ্ক ও লিভারে সমস্যা পাওয়া গেছে এবং কারণ নিশ্চিতে কিছু পরীক্ষা করা হবে। তার ভিসেরা ও রক্ত রাসায়নিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। ভিসেরা রিপোর্ট পাওয়ার পর ঠিক কীভাবে শিশুটি মারা গিয়েছিল সে ব্যাপারে বিস্তারিত জানা যাবে।

এর আগে বুধবার সাফায়েতকে হত্যার অভিযোগে তার বাবার বিরুদ্ধে মামলা হয়।

শিশুটির মা মালিহা আক্তার বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় বাবা নুরুজ্জামান কাজলের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের রমনা বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার।

৫ ডিসেম্বর বাংলামোটরের লিংক রোডের খোদেজা খাতুন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উল্টো দিকের ১৬ নম্বর বাড়িতে দুই শিশুকে বাবা জিম্মি করে রেখেছেন খবর পেয়ে বাসাটি ঘিরে ফেলে পুলিশ, র‍্যাব ও আনসার সদস্যরা।

পরে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পরে সেই বাসাটিতে অভিযান চালান র‌্যাব ও পুলিশের সদস্যরা।

বেলা ১টা ৫০ মিনিটে দুই শিশুকে জিম্মি করে রাখা সেই বাবা নুরুজ্জামান কাজলকে আটক করা হয়। সে সময় এক শিশুকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

প্রিয় সংবাদ/নোমান/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট
মোবাইলে বেশি সময় কাটালে শিশু যা অনুভব করে
মোবাইলে বেশি সময় কাটালে শিশু যা অনুভব করে
বিডি নিউজ ২৪ - ২ দিন, ১০ ঘণ্টা আগে
গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা, পলাতক স্বামী
গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা, পলাতক স্বামী
সময় টিভি - ৫ দিন, ১৬ ঘণ্টা আগে

loading ...