লিওনেল মেসির খুদে ভক্ত। ছবি: সংগৃহীত

সেই মেসি এখন ঘরছাড়া!

বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার লিওনেল মেসির এই খুদে ফ্যানের গল্পটা ফুটবলপ্রেমী প্রায় সবারই জানা। আফগানিস্তানের যুদ্ধবিধ্বস্ত অঞ্চলে দারিদ্র্যের মধ্যে বেড়ে ওঠা তার।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৩:৫৫
আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৩:৫৫


লিওনেল মেসির খুদে ভক্ত। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) আফগান শিশু মুর্তাজা আহমাদি। পলিথিনের ব্যাগ কেটে লিওনেল মেসির জার্সি গায়ে জড়িয়ে নজর কুড়িয়েছিলেন ফুটবল-দুনিয়ার। কিন্তু বর্তমানে খু খারাপ সময় পার করছে লিওনেল মেসির এই খুদে ভক্ত। ক্রমাগত ফোনে হুমকি পেয়ে দেশ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মুর্তাজা।

ছেলে অপহরণের ভয়ে আফগানিস্তান থেকে পাকিস্তানে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছিল মুর্তাজার পরিবার। পরে কাবুলে ফিরলেও তাদের জেলা জাগহরিতে থাকতে পারেননি তারা। কারণ বন্দুকের আওয়াজ শোনার পর রাতারাতি কাবুলে চলে আসে। এরপর থেকে রাজধানীতে বাড়ি ভাড়া করে থাকে মেসির এই খুদে ফ্যান। তালেবান আতঙ্কে কার্যত গৃহবন্দী জীবন-যাপন করতে হচ্ছে আফগান মেসিকে।

মুর্তাজার মা শাফিকা জানান, ‘অনেকেই বলছে তালেবানরা আমার ছেলেকে খুঁজছে। ওরা খুঁজে পেলে আমার ছেলেকে টুকরো টুকরো করে কেটে ফেলবে। তাই আমি সব সময় ওর মুখ ঢেকে রাখার চেষ্টা করি।’

মুর্তাজার বাবা মহম্মদ আরিফ আহমেদি বলেন, ‘আমাদের জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। ফোনে ক্রমাগত হুমকি দেওয়া হয়। ভয় হচ্ছে, আমার ছেলেকে না অপহরণ করে নেওয়া হয়। এই ভয়ে আমরা দেশ ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।’

বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার লিওনেল মেসির এই খুদে ফ্যানের গল্পটা ফুটবলপ্রেমী প্রায় সবারই জানা। আফগানিস্তানের যুদ্ধবিধ্বস্ত অঞ্চলে দারিদ্র্যের মধ্যে বেড়ে ওঠা তার। আসল জার্সি কেনার সামর্থ্য ছিল না বলে পলিথিন দিয়ে তৈরি করে নিয়েছিল লিওনেল মেসির জার্সি। মেসির প্রতি সেই ভালোবাসা দেখে আবেগে ভেসেছিল ফুটবল-দুনিয়া। বাদ যাননি সময়ের মহাতারকা লিওনেল মেসিও।

পরবর্তী সময়ে নিজের স্বাক্ষর করা দেশের জার্সি খুদে ফ্যানকে উপহার দেন মেসি। প্রিয় ফুটবলারের জার্সি পেয়ে খুদে ভক্তের আনন্দের শেষ সীমা ছিল না। কিন্তু সেই জার্সিই কি না বিষাদ বয়ে নিয়ে আসে মুর্তাজার পরিবারের জন্য!

সূত্র: বিবিসি

প্রিয় খেলা/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন
স্পন্সরড কনটেন্ট
বার্নাব্যুতে রিভারপ্লেটের শিরোপা উৎসব
প্রিয় ডেস্ক ১০ ডিসেম্বর ২০১৮