আইসিসির লেভেল-১ আচরণবিধি ভেঙেছেন সাকিব আল হাসান। ছবি: প্রিয়.কম

সাকিবকে আইসিসির জরিমানা

ওই সময় বেশ রেগে যান সাকিব। চিৎকার করেন এবং এটা নিয়ে আম্পায়ারদের সঙ্গে তর্কে জড়ান।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৮:৫৭ আপডেট: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৮:৫৮
প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৮:৫৭ আপডেট: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৮:৫৮


আইসিসির লেভেল-১ আচরণবিধি ভেঙেছেন সাকিব আল হাসান। ছবি: প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) টেস্টে হোয়াইটওয়াশের পর ওয়ানডেতেও আধিপত্য বজায় রেখে সিরিজ জয়। তবে টি-টোয়েন্টির শুরুটা হলো দুঃসহ যন্ত্রণার। তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে ক্যারিবীয়দের কাছে উড়েই গেছে সাকিব আল হাসানের দল। এই দুঃসহ হারের ক্ষত না শুকাতেই বাংলাদেশ অধিনায়ক পেলেন আরেকটি দুঃসংবাদ।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) সাকিবের ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ জরিমানা করেছে। কারণ, বাংলাদেশ অধিনায়ক ম্যাচ চলাকালীন আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেছেন এবং বেশ কিছুক্ষণ সেটি নিয়ে তাদের সঙ্গে ‌তর্ক করেছেন।

ঘটনাটি ঘটেছিল বাংলাদেশ ইনিংসের ১৪তম ওভারের শেষ বলে। ওশানে থমাসের করা বাউন্সারটা পুল করতে চেয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু ব্যাটে-বলে হয়নি, লেগ স্টাম্পের বাইরে দিয়ে সেটি চলে যায় উইকেটরক্ষকের হাতে। সাকিব দাবি করেন, এটা ওয়াইড। কিন্তু আম্পায়ারদের যুক্তি, বলটা তার জার্সি ছুঁয়ে গেছে।

ওয়াইড না দেওয়ায় বেশ রেগে যান ওই ম্যাচে ৪৩ বলে ৬১ রান করা সাকিব। চিৎকার করেন এবং এটা নিয়ে আম্পায়ারদের সঙ্গে তর্কে জড়ান। খেলা শেষে ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রোর কাছে সাকিব তার ভুল স্বীকার করে নিলে আনুষ্ঠানিকভাবে শুনানির প্রয়োজন হয়নি।

আইসিসির লেভেল-১ আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে সাকিবকে ম্যাচ ফির ১৫ শতাংশ ও ১ ডিমেরিট পয়েন্ট জরিমানা করা হয়েছে। চলতি বছর এ নিয়ে সাকিব দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট পেলেন। আগেরটি পেয়েছিলেন গত মার্চে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত নিদাহাস ট্রফিতে লঙ্কানদের বিপক্ষে।

প্রিয় খেলা/রুহুল