সৌম্য-লিটনের পর সাজঘরে ফিরেছেন মুশফিকও। ছবি: প্রিয়.কম

সাকিব-রিয়াদের ব্যাটে বাংলাদেশের রেকর্ড সংগ্রহ

প্রথম ম্যাচের হতাশা ভুলে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে সাকিব আল হাসানের দল।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:৪৯ আপডেট: ২০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:৫৩
প্রকাশিত: ২০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:৪৯ আপডেট: ২০ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:৫৩


সৌম্য-লিটনের পর সাজঘরে ফিরেছেন মুশফিকও। ছবি: প্রিয়.কম

(প্রিয়.কম) টেস্টে হোয়াইটওয়াশ। এরপর ওয়ানডেতেও আধিপত্য বজায় রেখে ২-১ এ সিরিজ জয়। তবে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে উইন্ডিজের বিপক্ষে একপ্রকার উড়েই গেছে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচের হতাশা ভুলে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে সাকিব আল হাসানের দল।

২০ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২১১ রান। সাকিব আল হাসান ৪২ (২৬বল) ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ৪৩ (২১ বল) রানে ব্যাট করছেন।

হোম অব ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ

এর আগে ২০১৩ সালে নিউজিল্যান্ডে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ২০৪ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিল। হোম অব ক্রিকেটে সেটাই ছিল যে কোন দলের দলীয় সর্বোচ্চ সংগ্রহ। দ্বিতীয় ম্যাচে উইন্ডিজের বিপক্ষে চার উইকেট হারিয়ে ২১১ রান তুলে সেই রেকর্ড নিজেদের করে নিয়েছে বাংলাদেশ।

এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো টি-টয়েন্টি ২০০ ছাড়িয়েছে বাংলাদেশের সংগ্রহ। একই সঙ্গে এটা উইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সংগ্রহ। 

পঞ্চম উইকেটে জুটির হাফ সেঞ্চুরি

ভালো শুরুর পরও দ্রুতই তিন উইকেট হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় বাংলাদেশ। তবে সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের পাল্টা আক্রমণে ইনিংসের লাগাম আবারও নিজেদের হাত এনিয়েছে বাংলাদেশ। রানের চাকা বাড়ানোর পথে সাকিব ও মাহমুদউল্লাহ জুটি পঞ্চাশ পেরিয়েছে। পঞ্চাশ ছুঁতে ২১ বল খেলেন সাকিব-রিয়াদ।

সাকিবের ছক্কায় দলের ১৫০

ইনিংসের ১৬ তম ওভারের দ্বিতীয় বলে কার্লোস ব্র্যাথওয়েটকে ছক্কায় হাঁকান সাকিব। এই ছক্কায় দল পেরিয়ে যায় ১৫০ রান।

লিটন-সৌম্যর পর সাজঘরে ফিরলেন মুশফিকও

আগের ওভারেই দুই সেট ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার ও লিটন দাস সাজঘরে ফিরেছনে। পরের ওভারে ফিরলেন মুশফকুর রহিমও। ওশানে থমাসের বলে উড়িয়ে মেরেছিলেন মুশফিক। কিন্তু সীমানা ছাড়াতে পারেননি। ডিপ মিড উইকেটে ফ্যাবিয়ান অ্যালেনের হাতে ধরা পড়েন মুশফিক। আউট হওয়ার আগে ১ রান করেন মুশফিক। 

একই ওভারের ফিরলেন লিটন

ইনিংসের ১২তম ওভারের প্রথম বলে ফিরেছিলেন সৌম্য সরকার। ওভারের শেষ বলে আবারও আঘাত হানেন শেলডন কটরেল। এবার তার শিকার লিটন দাস। বাহাতি এই পেসারের বলে সরাসরি বোল্ড হন লিটন। আউট হওয়ার আগে ডানহাতি এই ওপেনার ৩৪ বলে ৬ চার ও ৪ ছক্কায় ৬০ রান করেন।

দুর্দান্ত ক্যাচে ফিরলেন সৌম্য

ইনিংসের ১২তম ওভারের প্রথম বল। শেলডন কটরেলের লেংথ বল কভারের উপর দিয়ে খেলেছিলেন সৌম্য। কভারে দাঁড়িয়ে থাকা কার্লোস ব্রাথওয়েট দুইবারের চেষ্টায় তালুবন্দী করেন বলটি। আউট হওয়ার আগে ২২ বলে ৩ চার ও এক ছক্কায় ৩২ রান করেন বাঁহাতি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। 

১০.১ ওভারে বাংলাদেশের ১০০

ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে পঞ্চাশ ছুঁয়েছিল বাংলাদেশের সংগ্রহ। অর্থ্যা প্রথম পঞ্চাশ করতে বাংলাদেশ কেলেছিল ৩৩ বল। দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি অবশ্য ২৮ বলেই করে ফেলে স্বাগতিকরা। অর্থ্যাৎ ইনিংসের ১১তম ওভারের প্রথম বলে একশ পেরিয়ে যায় বাংলাদেশ। 

দ্বিতীয় উইকেটে ৫০ রানের জুটি

দলীয় ৪২ রানে ফিরে যান তামিম ইকবাল। এরপর সৌম্য সরকারকে সঙ্গে নিয়ে রানের চাকা বাড়াতে থাকেন লিটন দাস। ৩৪ বলেই পঞ্চাশ ছুঁয়েছে এই জুটি।

২৬ বলে লিটনের হাফ সেঞ্চুরি

ইনিংসের নবম ওভারের পঞ্চম বল। কার্লোস ব্রাথওয়েটকে মিড অফ দিয়ে চার হাঁকান লিটন দাস। এই চারে হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ডানহাতি এই ওপেনার।

শুরুর কয়েক বল দেখে খেলার পরই হাত খুলে খেলতে থাকেন লিটন দাস। আগের ম্যাচে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা পেসার শেলডন কটরেলকে এক ওভারেই এদিন লিটন দাস তিনটি চার হাঁকান। এর পরের ওভারে কার্লোস ব্রাথওয়েটকে দুটি ছক্কাও হাঁকান তিনি। দলের রানের চাকা সচল এই ডানহাতি ওপেনারের ব্যাটেই।

চার-ছক্কার ফুলঝুরিতে ২৬ বলেই হাফ সেঞ্চুরি স্বাদ পান লিটন। এটা তার ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি।

লিটনের ছক্কায় বাংলাদেশের হাফ সেঞ্চুরি

ব্যাট হাতে দ্যুতি ছড়াচ্ছেন লিটন কুমার দাস। ডানহাতি এই ওপেনারের ব্যাটে এগোচ্ছে বাংলাদেশের রান। ষষ্ঠ ওভারের তৃতীয় বলে ছক্কা মেরে বাংলাদেশের দলীয় সংগ্রহ পঞ্চাশে নিয়ে যান লিটন।

পাওয়ার প্লেতে ৪৭/১

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে শুরুটা দুর্দান্ত এনে দেন তামিম ইকবাল ও লিটন দাস। পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে তামিম ফিরে যান। তবে ১০.১৬ গড়ে ছয় ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬১/১ রান। আগের ম্যাচে ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠা পেসার শেলডন কটরেলকে এক ওভারেই এদিন লিটন দাস তিনটি চার হাঁকান। এর পরের ওভারে কার্লোস ব্রাথওয়েটকে দুটি ছক্কাও হাঁকান তিনি। সবমিলিয়ে শুরুটা এদিন ভালো ছিল স্বাগতিকদের।

সাজঘরে তামিম

ইনিংসের পঞ্চম ওভারের প্রথম বলে সাজঘরে ফিরে গেলেন তামিম ইকবাল। ফ্যাবিয়ান অ্যালেনের বলে উড়িয়ে মারতে চেয়েছিলেন বাঁহাতি এই ওপেনার। কিন্তু টাইমিং হয়নি ঠিকমতো। শর্ট মিড উইকেটে শেলডন কটরেলের হাতে ধরা পড়েন ১৫ রান করা তামিম।

জীবন পেলেন তামিম

কটরেলের করা দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে জীবন পেলেন তামিম। আলগা শটে অ্যালেনের হাতে কভারে ক্যাচ তুলেছিলেন বাঁহাতি এই ওপেনার। লাফিয়ে বল তালুবন্দি করতে ব্যর্থ হন অ্যালেন। ওই সময় ১৩ রানে ব্যাট করছিলেন তামিম ইকবাল।

টস

২০ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার বিকেলে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার টসে জয়লাভ করেছেন উইন্ডিজ অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথওয়েট। টসে জিতে আগে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে উইন্ডিজ। এদিন দু’দলই অপরিবর্তিত একাদশ নিয়েই মাঠে নেমেছে। 

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আরিফুল হক, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান ও আবু হায়দার রনি।

উইন্ডিজ একাদশ: এভিন লুইস, শাই হোপ, শিমরন হেটমেয়ার, ড্যারেন ব্রাভো, নিকোলাস পুরান, রোভম্যান পাওয়েল, কার্লোস ব্রাথওয়েট (অধিনায়ক), ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, কিমো পল, শেলডন কটরেল ও ওশানে থমাস।

সমতায় ফেরার প্রেরণায় উইন্ডিজ সফর

গত জুলাইয়ে বিদেশের মাটিতে উইন্ডিজকে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারিয়েছে সাকিব আল হাসানের দল। ওই সিরিজে সেন্ট কিটসে প্রথম ম্যাচে হেরেছিল বাংলাদেশ। তবে পরের দুই ম্যাচে ফ্লোরিডায় জয় তুলে নিয়ে বাংলাদেশই জিতে নিয়েছিল সিরিজ। এবারও সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে সিলেটে হেরেছে বাংলাদেশ। লক্ষ্য এবার মিরপুরের ম্যাচ দুটি জেতা। আপাতত প্রথম লক্ষ্য দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি জিতে সিরিজে সমতা ফেরানো।

এগিয়ে উইন্ডিজই!

টি-টোয়েন্টির বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ১০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। যার মধ্যে ৪ ম্যাচে জয়ের বিপরীতে হার পাঁচ ম্যাচে। বাকি একটি ম্যাচ হয়েছে পরিত্যক্ত। 

প্রিয় খেলা/রিমন