জাতীয় সংসদ ভবন। ফাইল ছবি

একাদশ সংসদ নির্বাচন: আইনি লড়াইয়ের পথে বিএনপি

বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের অভিযোগ নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি। এমপিদের শপথ সংবিধান সম্মত হয়নি।

আমিনুল ইসলাম মল্লিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৫১ আপডেট: ০৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:৩৪
প্রকাশিত: ০৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৫১ আপডেট: ০৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:৩৪


জাতীয় সংসদ ভবন। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত এমপিদের শপথ গ্রহণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা।

৩০ ডিসেম্বর, সংসদ নির্বাচনের পর থেকেই সুপ্রিম কোর্টের বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা সংবাদ সম্মেলনসহ নানা পদক্ষেপের প্রস্তুতি নিতে দেখা যায়।

বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের অভিযোগ নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি। এমপিদের শপথ সংবিধান সম্মত হয়নি।

এমপিদের শপথকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বিএনপি আইনি পদক্ষেপে এগুচ্ছে কি না?

এমন প্রশ্নের জবাবে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও দলটির ভাইস চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন প্রিয়.কমকে বলেন, ‘এ বিষয়ে আমরা আজকে লিগ্যাল নোটিশ দিয়েছি। সে নোটিশে বলা আছে জবাব না পেলে আমরা পরবর্তীতে আইনি প্রক্রিয়ায় যাব।’

এমপিদের শপথ বিষয়ে চাইলে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন প্রিয়.কমকে বলেন, ‘ভাইলেশন অব আর্টিকেল (১০৩)। মানে সংবিধান লঙঘন করে শপথটি নিয়েছেন, মেম্বার অব পার্লামেন্টরা।’

তিনি বলেন, ‘সংবিধানের বলা আছে যে মেয়াদোত্তীর্ণের আগেই কোনো কার্যক্রম গ্রহণ করা যাবে না। মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার আগেই তারা শপথ নিয়েছেন। এটি ক্লিয়ার ভায়োলেশন অব কনস্টিটিউশন (সংবিধানের পরিষ্কার লঙ্ঘন)।’

নির্বাচনের পর সংবাদ সম্মেলন ও নোটিশ প্রদান করে বিএনপি আইনিভাবে এগুচ্ছে কি না? এমন প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দেননি খোকন।

দশম জাতীয় সংসদ না ভেঙে দিয়ে একাদশ সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত এমপিদের শপথ গ্রহণের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। নোটিশটি স্পিকার, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব বরাবর পাঠানো হয়।

৮ জানুয়ারি, মঙ্গলবার রেজিস্ট্রি ডাকযোগে মাহবুব উদ্দিন খোকন নোটিশটি প্রেরণ করেন।

খোকন বলেন, ‘সংবিধানের ১২৩(৩) অনুচ্ছেদে সংসদ ভেঙে দিয়ে পুনরায় সংসদ সদস্যদের শপথ অনুষ্ঠিত হওয়ার বিধান রয়েছে। কিন্তু সে অনুচ্ছেদ প্রতিপালন না করে পুনরায় সংসদ সদস্যরা শপথ নেওয়ায় বর্তমানে দুইটি সংসদ বহাল রয়েছে, যা সংবিধান পরিপন্থী।’

এদিকে গতকাল সোমবার বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শপথ নেন নতুন মন্ত্রিসভার ৪৭ সদস্য। নিয়ম অনুযায়ী প্রথমে প্রধানমন্ত্রী এবং পরে পর্যায়ক্রমে মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীরা শপথ গ্রহণ করেন। এর আগে গত ২ জানুয়ারি নির্বাচন বাতিলে উচ্চ আদালতের হস্তক্ষেপ কামনা করে সংবাদ সম্মেলন করেন জয়নুল আবেদীনসহ বিএনপিপন্থী আইনজীবী নেতারা।

সোমবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্টের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এমন দাবি করেন বিএনপির এই ভাইস চেয়ারম্যান।

নির্বাচনের বিষয়ে দেশের উচ্চ আদালত হস্তক্ষেপের দাবি জানান তিনি।

গত ৩০ ডিসেম্বর জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট বিজয়ী হয়। এরপর এমপিরা শপথ গ্রহণ করেন। পরে সোমবার (৭ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শেখ হাসিনা শপথ গ্রহণ করেন। প্রধানমন্ত্রী পর মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রীরা শপথ গ্রহণ করেন।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...