বেখেয়ালে রাস্তার পাশের জায়ান্ট স্ক্রিনে পর্নো সিনেমা প্রদর্শিত হয়। ছবি: সংগৃহীত

রাস্তায় প্রকাশ্যে বড় পর্দায় পর্নোগ্রাফি প্রদর্শন!

পর্ন দেখার তাড়না হোক বা উত্তেজনায় হোক, তিনি ভুলেই গিয়েছিলেন তার কম্পিউটারের সঙ্গে যোগ রয়েছে রাস্তার ওই জায়ান্ট স্ক্রিনেরও।

আজাদ চৌধুরী
জ্যেষ্ঠ সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১১:৩৫ আপডেট: ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১১:৩৫
প্রকাশিত: ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১১:৩৫ আপডেট: ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১১:৩৫


বেখেয়ালে রাস্তার পাশের জায়ান্ট স্ক্রিনে পর্নো সিনেমা প্রদর্শিত হয়। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) অবসর সময় কাটানোর জন্য মানুষ নানা বিষয়ের আশ্রয় নেয়। কখনো কখনো একঘেয়েমি দূর করতেও মানুষ নানা পন্থা অবলম্বন করে। কিন্তু সেই অবসর মুহূর্তটি যদি নেতিবাচক বিষয়ে মোড়ানো থাকে, আর তা যদি কেউ দেখে ফেলে তাহলে ওই মানুষটি যেমন বিভ্রান্ত হন, তেমনি অন্যরাও বিড়ম্বনায় পড়েন। চীনে সম্প্রতি এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে।

এনডিটিভির প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, চীনের লিয়াং জিয়াংসু শহরে এক কর্মী অবসর মুহূর্ত কাটাতে তার কম্পিউটারে চালু করেন পর্নো সিনেমা। কিন্তু তিনি ঘুণাক্ষরেও বুঝতে পারেননি তার সে সিনেমাটি তৎক্ষণাৎ রাস্তার জায়ান্ট স্ক্রিনে ভেসে ওঠে। পর্ন দেখার তাড়না হোক বা উত্তেজনায় হোক, তিনি ভুলেই গিয়েছিলেন তার কম্পিউটারের সঙ্গে যোগ রয়েছে রাস্তার ওই জায়ান্ট স্ক্রিনেরও। ফলে শহরের এক রাস্তায় প্রকাশ্যে চলতে থাকে পর্নোগ্রাফিক প্রদর্শনী।

স্থানীয় প্রতিবেদনের মতে, অনেক যাত্রীই এই অদ্ভুত জিনিস দেখে রাস্তায় দাঁড়িয়ে ওই বড় পর্দায় পর্নের ছবি তুলতে থাকেন। কেউ কেউ সুযোগ বুঝে নিজের মোবাইলে সযত্নে ভিডিও করে রাখেন ওই নীলছবির পুরো অংশ। চীনা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলোতে এখন ভাইরাল এই ভিডিও ও ছবিগুলো

যদিও বিষয়টি একসময় নজরে আসে ওই কর্মীর এক সহকর্মীর। পরে পরিস্থিতি বুঝতে পেরে তৎক্ষণাৎ তিনি ফোন করেন বন্ধুকে। পুরো বিষয়টি বলার পরে নিজের এই মারাত্মক ভুল বুঝতে পেরে প্রায় দেড় ঘণ্টা পরে ওই পর্ন বন্ধ করে দেন তিনি। বর্তমানে ঘটনার তদন্ত চলছে।

গত বছর ভারতেও অনুরূপ একটি ঘটনায় দিল্লির ব্যস্ততম একটি মেট্রো স্টেশনে বড় পর্দায় পর্নোগ্রাফি চলতে দেখা গেছে।

প্রিয় জটিল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


loading ...