ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ফাইল ছবি

ফেসবুকে গুজব ছড়ানো বন্ধের আহ্বান মোস্তাফা জব্বারের

ভুয়া আইডি বন্ধ করে অপপ্রচার, গুজব ছড়ানো ও মিথ্যা তথ্য প্রদান না করার আহ্বান জানান মন্ত্রী। না হলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে সতর্ক করেন তিনি।

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০১:০৩ আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০১:০৭
প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০১:০৩ আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০১:০৭


ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। ফাইল ছবি

(প্রিয়.কম) সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে গুজব বা মিথ্যা তথ্য প্রচার করলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার

১১ জানুয়ারি, শুক্রবার রাতে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে টাইমলাইনে এ তথ্য জানান।

ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট বা পেজ খুলে মিথ্যা তথ্য ও গুজব ছড়ানোর অভিযোগে সম্প্রতি ৭ জনকে আটক করেছে র‌্যাব। আটককৃতদের ছবি ও সংবাদ নিজের টাইমলাইনে শেয়ার করেন মন্ত্রী।

এ সময় মোস্তাফা জব্বার লিখেন, ‘ফেসবুকে ফেক আইডি খুলে যা খুশি করবে এবং আমরা কিছুই করতে পারব না, সেই দিন অতীত হয়ে গেছে। মাটির নিচে থাকলেও আমরা খুঁজে বের করতে পারব।’

ভুয়া আইডি বন্ধ করে অপপ্রচার, গুজব ছড়ানো ও মিথ্যা তথ্য প্রদান না করার আহ্বান জানান মন্ত্রী। না হলে তাদের হাতে হাতকড়া পড়বে বলেও সতর্ক করেন তিনি।

গুজব ছড়ানোর অভিযোগে র‌্যাবের হাতে আটক ব্যক্তিদের মধ্যে ছয়জন। ছবি: সংগৃহীত

র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সিনিয়র সহকারী পরিচালক সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, র‌্যাবের বিভিন্ন ব্যাটালিয়ন রাজধানীর উত্তরা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, মাদারীপুর, কুমিল্লা, বগুড়া ও কিশোরগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৭ জনকে আটক করে।

আটককৃতরা হলেন- রবিউল ইসলাম (৪২), আখলাকুজ্জামান আনসারী (৪৩), তোফাজ্জল হোসেন হেলাল (৪০), তানভীর হাসান মোহন (২২), ইউসুফ (৩০), আবু রায়হান আলবিরুনী পুসকিন (৪৩) ও আবুল কালাম (৩৪)।

মিজানুর রহমান জানান,  আটক ব্যক্তিরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, সেনাবাহিনী প্রধান, পুলিশের মহাপরিদর্শক, র‌্যাবের মহাপরিচালক, ডিএমপি কমিশনারসহ রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ছবি বিকৃত করে প্রচার ও গুজব ছড়িয়ে আসছিল।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে ফেসবুকে ভুয়া অ্যাকাউন্ট ও পেজ খুলে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগ করেছে আওয়ামী লীগ। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে দলটি বলেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, তার বোন শেখ রেহানা ও মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুলের কোনো নিজস্ব ফেসবুক অ্যাকাউন্ট বা পেজ নেই। কিন্তু তাদের নামে একাধিক অ্যাকাউন্ট খুলে মিথ্যা, বানোয়াট ও বিভ্রান্তিমূলক তথ্য প্রচার করা হচ্ছে। এসব অ্যাকাউন্ট বা পেজের পরিচালক ও অ্যাডমিনদের সতর্ক করেছে দলটি।

প্রিয় সংবাদ/রিমন

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...