বিপাকেই পড়েছেন হার্দি পান্ডে ও লোকেশ রাহুল। ছবি: সংগৃহীত

‘হার্দিক-রাহুলদের সাথে এক বাসেও কখনো উঠবো না’

ওই অনুষ্ঠানে সঞ্চালক করণের প্রশ্নের জবাবে বেশকিছু অশালীন মন্তব্য করে বসেন হার্দিক-রাহুল। যেমন করণের এক প্রশ্নের জবাবে হার্দিক জানান, একবার একটি পার্টিতে গিয়ে এক তরুণীকে দেখিয়ে তিনি তার মা-বাবাকে জানিয়েছিলেন, ওই নারীর সঙ্গেই প্রথমবার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছিল তার।

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:৫০ আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১১:০৪
প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১০:৫০ আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১১:০৪


বিপাকেই পড়েছেন হার্দি পান্ডে ও লোকেশ রাহুল। ছবি: সংগৃহীত

(প্রিয়.কম) অস্ট্রেলিয়া সফরের আগেই জনপ্রিয় টেলিভিশন শো ‘কফি উইথ করণ’-এ গিয়েছিলেন হার্দিক পান্ডেলোকেশ রাহুল। ওই অনুষ্ঠানে সঞ্চালক করণের প্রশ্নের জবাবে বেশকিছু অশালীন মন্তব্য করে বসেন হার্দিক-রাহুল। যেমন করণের এক প্রশ্নের জবাবে হার্দিক জানান, একবার একটি পার্টিতে গিয়ে এক তরুণীকে দেখিয়ে তিনি তার মা-বাবাকে জানিয়েছিলেন, ওই নারীর সঙ্গেই প্রথমবার শারীরিক সম্পর্ক হয়েছিল তার।

হার্দিক বলেন, মায়ের সঙ্গে তিনি নাকি খুবই ফ্র্যাঙ্ক। বান্ধবীদের ব্যাপারে মায়ের সঙ্গে খোলামেলা ভাবেই আলোচনা করেন তিনি। এমনকি হার্দিক নাকি কোনো পার্টিতে গিয়েই নিজে থেকে মেয়েদের নাম জিজ্ঞাসা করেন না। এমন আচরণের কারণ জানতে চাওয়ায় সঞ্চালককে হার্দিক বলেন, ‘আমি প্রথমে দেখি মেয়েটি কতটা আগ্রহী। আমি একটু কালো তো। তাই মেয়েদের তরফ থেকে কীরকম আগ্রহ আসছে সেটাই আগে দেখি।’

টেলিভিশনে এই এপিসোড সম্প্রচারের পরেই শুরু হয় গণ্ডগোল। রাহুল ও পান্ডে নারী বিরোধী ও লিঙ্গবৈষম্যমূলক মন্তব্য করেছেন বলে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। এই তালিকায় সাধারণ সমর্থকদের থেকে শুরু করে রয়েছেন সাবেক ক্রিকেটাররাও। এই যেমন হরভজন সিংয়ের কথাই বলা যাক। ভারতীয় সাবেক এই স্পিনার তো বলেই দিয়েছেন, হার্দিক-রাহুলের সঙ্গে এক বাসেও কখনো উঠবেন না তিনি!

ক্ষুব্ধ হরভজনের ভাষ্য, ‘আপনি যদি আমাকে বলেন, কাল কোনো পার্টিতে দেখা হবে ওদের সাথে। কোনো কথা বলবো কি না। আমার উত্তর হবে না। এমনকি আমার স্ত্রী ও মেয়ে সঙ্গে থাকলে হার্দিক-রাহুলদের সাথে আমি কখনো এক বাসেও উঠবো না। সে ভারতীয় দলের মাথা নিচু করে দিয়েছে। ভারতীয় দলে থাকতে আমরা কখনোই এমন সংস্কৃতি তৈরি করিনি যে যা মন চাইবে তাই করবো!’

পরিস্থিতি বেগতিক দেখে ক্ষমা চান হার্দিক। যদিও হার্দিকের এমন ক্ষমা প্রার্থনা কেউ আমলেই নেয়নি। এমনকি ভারতীয় এই তারকা ক্রিকেটার পাশে পাননি অধিনায়ক বিরাট কোহলিকেও। বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়াও (বিসিসিআই) অস্ট্রেলিয়ায় ওয়ানডে সিরিজ না খেলিয়ে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনছে। গঠন করা হয়েছে ছয় সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি। পর্যালোচনা শেষে কঠিন শাস্তির মুখেই পড়তে হবে এই দুই ভারতীয় ক্রিকেটারকে।

প্রিয় খেলা/রুহুল

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...