সাকিবের ঢাকার চারে চার

ছয়ের ফুলঝুরি সাজিয়েও সিলেটকে জয় এনে দিতে পারেননি ক্যারিবীয় এই ব্যাটিং ঝড়।

শান্ত মাহমুদ
নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:০৮ আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:২৭
প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:০৮ আপডেট: ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:২৭

(প্রিয়.কম) ঢাকা ডায়নামাইটসের জয়রথ ছুটেই চলেছে। কোনো প্রতিপক্ষই তাদের গতিতে লাগাম টানতে পারছে না। দাপুটে জয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) শুরু করা ঢাকা আরেকবার জয়ের হাসি হেসেছে। শনিবার মিরপুরে  সিলেট সিক্সার্সকে রীতিমতো পরীক্ষায় ফেলে ৩২ রানের জয় তুলে নিয়েছে সাকিব আল হাসানের দল। পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দল ঢাকা ডায়নামাইটসের এটা টানা চতুর্থ জয়।

মিরপুরে টস জিতে আগে ব্যাটিং করতে নামা ঢাকা ডায়নামাইটস দাপুটে শুরু করতে না পারলেও বড় সংগ্রহ দাঁড় করায়। ম্যাচসেরা রনি তালুকদারের হাফ সেঞ্চুরি এবং সুনীল নারিন, অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও মোহাম্মদ নাঈমের ছোট কিন্তু কার্যকর ইনিংসে ৭ উইকেটে ১৭৩ রান তোলে। জবাবে ছয়ের ফুলঝুরি সাজানো নিকোলাস পুরানোর চোখ ধাঁধানো ৭২ রানের পরও সিলেট সিক্সার্সের ইনিংস ৯ উইকেটে ১৪১ রানে থেমে যায়।

১৭৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে সিলেটের শুরুটা হয় চরম হতাশার। দলীয় ৮ রানে প্রথম উইকেট হারানো সিলেট ৩৭ রানের মধ্যেই ৫ উইকেট খুইয়ে বসে। একে একে ফিরে যান অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার, আফিফ হোসেন ধ্রুব, লিটন দাস ও সাব্বির রহমান। এদের মধ্যে সর্বোচ্চ ১২ রান করেন সাব্বির। দলের দুঃসময়ে কিছু করতে পারেননি অলোক কাপালি ও সোহেল তানভীরও।

এর মাঝেই একপাশে নিজেকে থিতু করে ফেলেন সিলেটের হয়ে একমাত্র লড়াই করা নিকোলাস পুরান। ৭৫ রানে ৭ উইকেট হারানো দলকে পথ দেখানোর মিশনে তাসকিন আহমেদকে একপাশে রেখে ব্যাট চালিয়ে যান ক্যারিবীয় এই ব্যাটসম্যান। তার টর্নেডো স্টাইলের ব্যাটিংয়ের কারণেই সিলেটের হারের ব্যবধানটা বিশাল হয়নি।

রুবেল হোসেনের বলে আউট হওয়ার আগে ৪৭ বলে একটি চার ও ৯টি ছক্কায় ৭২ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেলেন পুরান। সিলেটের পেসার তাসকিনের ব্যাট থেকে আসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৮ রান। ঢাকার রুবেল ৩টি এবং সাকিব ও শুভাগত ২টি করে উইকেট নেন।   

এর আগে ব্যাটিংয়ে নামা ঢাকা ডায়নামাইটস ভালো শুরু করতে পারেনি। দলীয় ৪ রানেই সেরা অস্ত্র হজরতউল্লাহ জাজাইকে হারাতে হয় তাদের। যদিও এই চাপ দলকে বুঝতে দেননি রনি তালুকদার। ২৫ রান করা সুনীল নারিনকে সঙ্গে দ্বিতীয় উইকেটে ৬৭ রানের জুটি গড়ে তোলেন দারুণ এক হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেওয়া রনি। অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের সঙ্গেও কিছুটা পথ পাড়ি দেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

সাজঘরে ফেরার আগে ঢাকাকে ১০০ রানের সীমানা পার করে দিয়ে আসেন রনি। এর আগে ৩৪ বলে ৫টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৫৮ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন ঢাকার এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান। এরপর অধিনায়ক সাকিবের ২৩ এবং দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহানের ১৮ ও মোহাম্মদ নাঈমের ২৫ রানের সুবাদে ৭ উইকেটে ১৭৩ তোলে ঢাকা।  

প্রিয় খেলা/শান্ত মাহমুদ

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...