ঢাকা ডায়নামাইটসের জার্সিতে চলমান আসরে ছয় উইকেট নিয়েছেন পেসার রুবেল হোসেন।

জিটিভির ‘ক্রিকেট তক্ক’ অনুষ্ঠানে ব্যঙ্গ, রুবেলের ক্ষোভ (ভিডিও)

কী এমন হয়েছিল যে ‘ক্রিকেট তক্ক’ অনুষ্ঠানের ওপর অসন্তুষ্ট ও ক্ষুব্ধ ঢাকা ডায়নামাইটসের এই তারকা পেসার?

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯:৩৬ আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯:৩৮
প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯:৩৬ আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯:৩৮


ঢাকা ডায়নামাইটসের জার্সিতে চলমান আসরে ছয় উইকেট নিয়েছেন পেসার রুবেল হোসেন।

(প্রিয়.কম) বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) উপলক্ষে ক্রিকেটবিষয়ক নানা অনুষ্ঠান আয়োজন করে থাকে টেলিভিশন চ্যানেলগুলো। এর মধ্যে সাড়া ফেলেছে জিটিভির ‘ক্রিকেট তক্ক’ অনুষ্ঠানটি। গত বছরও দর্শকপ্রিয়তা পায় জিটিভির এই অনুষ্ঠানটি। এই অনুষ্ঠানে বিপিএলে নিজেদের দলকে সমর্থন জানিয়ে হাজির হন সমর্থকরা।

এই সমর্থকরা অবশ্য সাধারণ দর্শকদের কাছে পরিচিত মুখ। যেমন—মুনিরা মিঠু, সাজু খাদেম, রাশেদ মামুন অপু, জয়রাজ, মাজনুন মিজান, শামিম মামুন, সাঈদ বাবু প্রমুখ। প্রতি ম্যাচের আগে-পরে নিজ সমর্থিত দল নিয়ে আলোচনা ও প্রতিপক্ষ দল নিয়ে একটু-আধটু রসিকতাই এই অনুষ্ঠানের মূল বিষয়।

এই অনুষ্ঠান নিয়েই অসন্তোষ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জাতীয় দলের তারকা পেসার রুবেল হোসেন।

কী এমন হয়েছিল যে ‘ক্রিকেট তক্ক’ অনুষ্ঠানের ওপর অসন্তুষ্ট রুবেল? ঘটনার সূত্রপাত ঢাকা ডায়নামাইটস বনাম রাজশাহী কিংস ম্যাচ। খেলা শুরুর আগে এই অনুষ্ঠানটির একটি পর্বে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ছোটপর্দার পরিচিত দুই মুখ জয়রাজ ও রাশেদ মামুন অপু। জয়রাজ ছিলেন ঢাকা আর অপু রাজশাহীর সমর্থক।

অনুষ্ঠান চলাকালে জয়রাজ পুরান ঢাকার প্রচলিত ভাষায় বলেন, ‘আমাদের রুবেল আছে। এমন মার দেবে হ্যাপি হয়ে যাবে।’ অপুর ওই কথার জবাবে উপস্থাপক সাঈদ বাবু বলেন, ‘কে হ্যাপি হবে?’ জবাবে জয়রাজ বলেন, ‘উইকেট এমনভাবে ফেলবে জনতা হ্যাপি হয়ে যাবে।’ এ সময় উপস্থাপক বলেন, ‘ও জনতা? আমি তো মনে করেছি হ্যাপি।’

‘ক্রিকেট তক্ক’ অনুষ্ঠানটির ওই পর্বের ভিডিও ক্লিপস

২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপের সময় মডেল ও অভিনেত্রী নাজনীন আক্তার হ্যাপিকে নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন রুবেল হোসেন। এমনকি ওই সময় জেলও খাটতে হয়েছিল বাংলাদেশ জাতীয় দলের তারকা এই পেসারকে।

টেলিভিশন চ্যানেল জিটিভির ‘ক্রিকেট তক্ক’ অনুষ্ঠানে হ্যাপি শব্দ নিয়ে উপস্থাপক ও অতিথিরা রসিকতা করেন। ক্রিকেট তক্ক অনুষ্ঠানে ’হ্যাপি’ শব্দ দিয়ে উপস্থাপক ও অতিথিরা রুবেলের ওই অতীত কাহিনিকেই ইঙ্গিত করেছেন। দুঃসময় কাটিয়ে রুবেল নতুন জীবন শুরু করলেও এখনো ওই প্রসঙ্গ টেনে আনায় স্বভাবতই বিরক্ত এই পেসার

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে নিজের অফিশিয়াল পেজে খোভ প্রকাশ করেছেন ঢাকা ডায়নামাইটসের এই পেসার।

ওই পোস্টে রুবেল লিখেছেন, ‘জিটিভিতে ক্রিকেট তক্ক খুব ভালো জিনিস (অনুষ্ঠান)। আমি নিজেও এটাকে সাপোর্ট করি। যারা এটা করছে তাদের বোঝা উচিত যে পুরো দেশ এবং পুরো দেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা এটা দেখছে। সুতরাং মজা এখানে থাকবেই। তবে যেহেতু এটা ক্রিকেট সম্পর্কিত তাই আলাপ-আলোচনাও ক্রিকেট-এর মধ্যেই থাকা উচিত। কিন্তু অপ্রাসঙ্গিক কোনো কথা বলা উচিত নয় যেটা ব্যক্তিগতভাবে কাউকে ইঙ্গিত করবে।’

প্রিয় খেলা/আজাদ চৌধুরী

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

loading ...