ফেসবুকে পোস্ট করা ভিডিও থেকে স্ক্রিনশট

ফেসবুকে বুলবুলের পোস্ট করা শেষ যন্ত্রসঙ্গীত (ভিডিও)

‘তোমরা যারা আমার অসুস্থতায় সুস্থতা কামনা করেছ, শুধু তাদের জন্য এই গান।’

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রিয়.কম
প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৩৭ আপডেট: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৬:০৪
প্রকাশিত: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৩৭ আপডেট: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৬:০৪


ফেসবুকে পোস্ট করা ভিডিও থেকে স্ক্রিনশট

(প্রিয়.কম) গত বছরের মাঝামাঝি গুণী সংগীতশিল্পী আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের শরীরে দুটি স্টেন্ট (রিং) স্থাপনের পর চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণ শেষে সুস্থ হয়ে ৫ জুন বাসায় ফিরেন তিনি। তারপর ৭ জুন ‘তুমি মোর জীবনের ভাবনা’ শিরোনামের গানটির একটি ভিডিও যন্ত্রসঙ্গীত ফেসবুকে তার টাইমলাইনে পোস্ট করেন।

ভিডিওটির ক্যাপশনে লিখেছিলেন, ‘তোমরা যারা আমার অসুস্থতায় সুস্থতা কামনা করেছ, শুধু তাদের জন্য এই গান।’ ভিডিওটি আজ পর্যন্ত ৯৪ হাজার ৪০৮ জন দর্শক দেখেছেন। 

মঙ্গলবার ভোর সোয়া ৪টার দিকে আফতাব নগরের নিজ বাসায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান বুলবুল। গত প্রায় এক বছর ধরে নানা অসুস্থতায় ভোগা এই সুরকারের বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর।

২০১৮ সালের মাঝামাঝি বুলবুলের হার্টে আটটি ব্লক ধরা পড়ে। তার শারীরিক অবস্থার কথা জানতে পেরে চিকিৎসার দায়িত্ব নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী দায়িত্ব নেওয়ার পর বুলবুলকে ভর্তি করা হয় জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে। সেখানে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে চিকিৎসকরা বুলবুলের বাইপাস সার্জারি না করে শরীরে রিং পরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এরপর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেন তিনি। জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. অধ্যাপক আফজালুর রহমানের অধীনে বুলবুলের শরীরে রিং স্থাপন করা হয়।

বুধবার সকালে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে সর্বসাধারণের জন্য সাড়ে ১২টা পর্যন্ত মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাখা হবে। সেখানেই গুণী এই শিল্পীকে রাষ্ট্রীয় সম্মান গার্ড অব অনার দেওয়া হবে।

এরপর জোহর নামাজের পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে বিকেল ৪টায় এফডিসিতে আরেকটি জানাজা হবে। তারপর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুল তিন শতাধিক চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালনা করেছেন। চলচ্চিত্রের সংগীত পরিচালনা করে দুবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন।

তার জন্ম ১৯৫৭ সালের ১ জানুয়ারি ঢাকায়। ১৯৭১ সালে মাত্র ১৫ বছর বয়সে বুলবুল কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে রাইফেল হাতে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন রণাঙ্গনে। মুক্তিযুদ্ধের প্রত্যক্ষ স্মৃতি বিস্মৃতি নিয়ে বহু জনপ্রিয় গান লিখেছেন এবং সুর করেছেন।

প্রিয় বিনোদন/রিমন

পাঠকের মন্তব্য(০)

মন্তব্য করতে করুন


আরো পড়ুন

দেখুন এক খেপে কত মাছ

প্রিয় ১০ ঘণ্টা, ১৪ মিনিট আগে

loading ...